চবির রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের প্রশ্নপত্রে ১০ বানান ভুল

  চট্টগ্রাম ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ১৫:৪৬ | অনলাইন সংস্করণ

চবির রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের প্রশ্নপত্রে ১০ বানান ভুল
চবির রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের প্রশ্নপত্রে ১০ বানান ভুল। ছবি-সংগৃহীত

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের চতুর্থ বর্ষ বিএসএস (সম্মান) পরীক্ষায় প্রশ্নপত্রে গুরুত্বপূর্ণ ১০টি বানান ভুল পাওয়া গেছে।

সোমবার বিভাগটির চতুর্থ বর্ষের ৪০৫ নম্বর কোর্সের পরীক্ষায় হাতের লেখায় তৈরি প্রশ্নপত্রে এসব বানানের ভুল ধরা পড়ে।

প্রশ্নপত্রের শুরুতে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় বানানে চট্টগ্রামের বানান ভুল লেখা হয়েছে।

তিন নম্বর প্রশ্নে লেখা হয়েছে- ‘ব্যক্তিত্ব ও হতাশার মধ্যকার সম্পর্ক বিশ্লেষন কর’। শুদ্ধ বানান হবে বিশ্লেষণ। চার নম্বর প্রশ্নে লেখা হয়েছে- ‘নবাব স্যার সলিমুল্লাহর ব্যক্তিত্ব গঠনে তার সমসাময়িক আর্থসামাজিক ও ধর্মীয় রাজনৈতিক পরিস্থিতি কি ভূমিকা পালন করেছিল?’ এখানে ব্যবহার করা হয়েছে ‘কি’, হবে ‘কী’।

পাঁচ নম্বর প্রশ্নে- ‘রাজা রামমোহন রায়ের ব্যক্তিত্বের বৈশিষ্ট্যসমূহ চিহ্নিত কর। এই বৈশিষ্ট্যসমূহ কীভাবে সংষ্কারক হিসেবে তার ভূমিকাকে প্রভাবিত করেছিল? আলোচনা কর।' এখানে ‘সংষ্কারক’-এ ‘ষ’ ব্যবহার করা হয়েছে। শুদ্ধ বানান হবে- ‘স’ দিয়ে অর্থাৎ ‘সংস্কারক’।

ছয় নম্বর প্রশ্নে- ‘উপমহাদেশের কমিউনিস্ঠ আন্দোলনে কমরেড মুজফ্ফর আহমদ-এর ভূমিকা আলোচনা কর।’ এখানে ‘কমিউনিস্ঠ’-এ ‘ঠ’ ব্যবহার করা হয়েছে। শুধু বানান হবে ‘স্ট’ দিয়ে অর্থাৎ ‘কমিউনিস্ট’।

এ ছাড়া সাত নম্বর প্রশ্নে- হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ‘হোসেন’ বানানটি বাংলায় শুদ্ধ থাকলেও ইংরেজিতে লেখা হয়েছে ‘Hossain’। হবে ‘Huseyn’।

এমনকি আট নম্বর প্রশ্নে- বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের বানানও ভুল লেখা হয়েছে। প্রশ্নে লেখা আছে- ‘মুজিবর’, হবে ‘মুজিবুর’।

এ ছাড়া ইংরেজিতে ‘বঙ্গবন্ধু’ শব্দটির বানানও ভুল লেখা হয়েছে। প্রশ্নে লেখা আছে- ‘Bangbandhu’, হবে ‘Bangabandhu।

নয় নম্বর প্রশ্নে- ‘কর্মকান্ড’ লেখা আছে, হবে ‘কর্মকাণ্ড’। প্রমিত বাংলা বানান অনুসারে ণ+ড হবে। এ ছাড়া টীকা প্রশ্নে বাংলায় মওলানা ভাসানী বানান ঠিক থাকলেও ইংরেজিতে ভুল লেখা হয়েছে। ইংরেজিতে লেখা হয়েছে ‘Moulana’। শুদ্ধ বানান হবে ‘Mawlana’ বা ‘Maulana’।

জানতে চাইলে পরীক্ষা কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. ভূঁইয়া মো. মনোয়ার কবির এ বিষয়ে কোনো কথা বলতে রাজি হননি। পরে পরীক্ষা কমিটির সদস্য সহকারী অধ্যাপক আককাছ আহমদের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বিভাগের সভাপতির সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেন।

বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ ইয়াহ্ইয়া আখতার জানান, তিনি এ বিষয়ে কিছু জানেন না। বানান ভুলের বিষয়টি খবর নেবেন বলে জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর
-

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×