রাবিতে অনশনে অসুস্থ ১৫ শিক্ষার্থী
jugantor
রাবিতে অনশনে অসুস্থ ১৫ শিক্ষার্থী

  রাজশাহী ব্যুরো  

২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:৪২:৫৮  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের নাম ‘ফলিত পরিসংখ্যান’ করার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশনের চব্বিশ ঘণ্টা পার হয়েছে।

অনশনে এ পর্যন্ত ১৫ শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর একটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এ কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ফরিদ খান দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীদের এই কর্মসূচিতে যুক্ত হয়েছেন।

এ বিষয়ে ড. ফরিদ খান বলেন, আমি মানবিক কারণেই এখানে এসেছি। দুইদিন ধরে ছেলে মেয়েরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অনশন করছে।

অনেকেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে যাচ্ছে। আমি একজন শিক্ষক হয়ে এভাবে নিরব থাকতে পারি না। আমি অবশ্যই তাদের দাবির সঙ্গে একমত। আমার মনে হয়েছে এটি যৌক্তিক দাবি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন একটু আন্তরিক হলেই এ দাবি মেনে নিতে পারে। আমি ওদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে এবং সহমর্মিতা জানাতেই এখানে এসেছি।

অনশনরত শিক্ষার্থীরা জানান, মোবাশশির উল্লাহ, সোহাগ, নিশি খাতুন, আবিদ হাসান ও তপশ্রী স্যানালসহ এ পর্যন্ত আরও ১১ জন অসুস্থ হয়েছেন।

এদের মধ্যে তিনজন রাতে এবং বাকি সবাই সকালের পর থেকে অসুস্থ হয়েছে। তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ সম্পর্কে অনশনরত আবিদ হাসান নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের অনশনের চব্বিশ ঘণ্টা হয়ে গেছে। এখনও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

তারা বলেছেন উপাচার্য রাজশাহীর বাইরে আছেন। তিনি আসলে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

সকাল থেকে এই পর্যন্ত কোন শিক্ষক বা প্রশাসনের কেউ আমাদের দেখতে আসেননি। বিভাগ পরিবর্তনের ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত আমাদের অনশন চলবে।
এ বিষয়ে সহকারী প্রক্টর হুমায়ূন কবির বলেন, বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইজন উপউপাচার্য, প্রক্টর, বিভাগীয় সভাপতি এবং অন্য শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙানোর চেষ্টা করলেও শিক্ষার্থীরা তাতে সম্মত হননি।

প্রসঙ্গত, পিএসসিতে বিষয় কোড অন্তর্ভুক্তের দাবি জানিয়ে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

তবে বর্তমানে বিভাগের নাম পরিবর্তন করে ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা।

রাবিতে অনশনে অসুস্থ ১৫ শিক্ষার্থী

 রাজশাহী ব্যুরো 
২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০২:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) পপুলেশন সায়েন্স এন্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভেলপমেন্ট বিভাগের নাম ‘ফলিত পরিসংখ্যান’ করার দাবিতে শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশনের চব্বিশ ঘণ্টা পার হয়েছে।

অনশনে এ পর্যন্ত ১৫ শিক্ষার্থী অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বৃহস্পতিবার দুপুর একটায় এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত এ কর্মসূচি অব্যাহত রয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ফরিদ খান দুপুর ১২টার দিকে শিক্ষার্থীদের এই  কর্মসূচিতে যুক্ত হয়েছেন।  

এ বিষয়ে ড. ফরিদ খান বলেন, আমি মানবিক কারণেই এখানে এসেছি। দুইদিন ধরে ছেলে মেয়েরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে অনশন করছে।

অনেকেই অসুস্থ হয়ে হাসপাতালে যাচ্ছে।  আমি একজন শিক্ষক হয়ে এভাবে নিরব থাকতে পারি না। আমি অবশ্যই তাদের দাবির সঙ্গে একমত। আমার মনে হয়েছে এটি যৌক্তিক দাবি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন একটু আন্তরিক হলেই এ দাবি মেনে নিতে পারে। আমি ওদের দাবির সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করতে এবং সহমর্মিতা জানাতেই এখানে এসেছি।

অনশনরত শিক্ষার্থীরা জানান, মোবাশশির উল্লাহ, সোহাগ, নিশি খাতুন, আবিদ হাসান ও তপশ্রী স্যানালসহ এ পর্যন্ত আরও ১১ জন অসুস্থ হয়েছেন।

এদের মধ্যে তিনজন রাতে এবং বাকি সবাই সকালের পর থেকে অসুস্থ হয়েছে। তারা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ও বিশ্ববিদ্যালয় মেডিকেল সেন্টারে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এ সম্পর্কে অনশনরত আবিদ হাসান নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, আমাদের অনশনের চব্বিশ ঘণ্টা হয়ে গেছে। এখনও কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

তারা বলেছেন উপাচার্য রাজশাহীর বাইরে আছেন। তিনি আসলে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

সকাল থেকে এই পর্যন্ত কোন শিক্ষক বা প্রশাসনের কেউ আমাদের দেখতে আসেননি। বিভাগ পরিবর্তনের ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত আমাদের অনশন চলবে।
এ বিষয়ে সহকারী প্রক্টর হুমায়ূন কবির বলেন, বুধবার রাত সাড়ে ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের দুইজন উপউপাচার্য, প্রক্টর, বিভাগীয় সভাপতি এবং অন্য শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের অনশন ভাঙানোর চেষ্টা করলেও শিক্ষার্থীরা তাতে সম্মত হননি।

প্রসঙ্গত, পিএসসিতে বিষয় কোড অন্তর্ভুক্তের দাবি জানিয়ে গত ১৯ জানুয়ারি থেকে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জন করে মানববন্ধন, অবস্থান কর্মসূচিসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করে আসছেন ওই বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

তবে বর্তমানে বিভাগের নাম পরিবর্তন করে ফলিত পরিসংখ্যান করার দাবিতে আমরণ অনশন শুরু করেছেন শিক্ষার্থীরা।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন