অবশেষে রাবির আইন ও ভূমি প্রশাসনের সভাপতি শাহরিয়ার পারভেজ
jugantor
অবশেষে রাবির আইন ও ভূমি প্রশাসনের সভাপতি শাহরিয়ার পারভেজ

  রাজশাহী ব্যুরো  

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:২৯:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের নতুন সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন মো. শাহরিয়ার পারভেজ। এর আগে আদালতের নির্দেশে সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ।

সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি ড. চন্দকে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজকে এ নতুন দায়িত্ব দেয়া হয়।

রাবি রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, রাবির বর্তমান ভিসি এম আবদুস সোবহান ৭৩-এর অ্যাক্ট লঙ্ঘন করে আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলামকে আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেন। একই সঙ্গে আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের তৎকালীন সভাপতি ড. চন্দকে আইন বিভাগে যোগদানের নির্দেশ দেয়া হয়।

এ ঘটনায় অ্যাক্ট লঙ্ঘন ও নিয়মবহির্ভূত উল্লেখ করে বর্তমান ভিসি ও রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী তৎকালীন সভাপতি ও ওই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজ। মামলা দুটি আদালত আমলে নিয়ে রফিকুল ইসলামকে সভাপতি হিসেবে স্বীকৃতি না দিয়ে তৎকালীন সভাপতি ড. চন্দকে পরবর্তী সভাপতি নিয়োগ না দেয়া পর্যন্ত দায়িত্ব পালনের আদেশ দেন।

এক পর্যায়ে নিয়ম মেনেই ওই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজকে সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি ২০০৯ সালে আইন বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে ২০১২ সালে সহকারী অধ্যাপক হন।

অবশেষে রাবির আইন ও ভূমি প্রশাসনের সভাপতি শাহরিয়ার পারভেজ

 রাজশাহী ব্যুরো 
৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের নতুন সভাপতির দায়িত্ব পেয়েছেন মো. শাহরিয়ার পারভেজ। এর আগে আদালতের নির্দেশে সভাপতির দায়িত্বে ছিলেন অধ্যাপক ড. বিশ্বজিৎ চন্দ।

সম্প্রতি রাষ্ট্রপতি ড. চন্দকে বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সদস্য হিসেবে নিয়োগ দেয়ায় একই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজকে এ নতুন দায়িত্ব দেয়া হয়।

রাবি রেজিস্ট্রার স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, রাবির বর্তমান ভিসি এম আবদুস সোবহান ৭৩-এর অ্যাক্ট লঙ্ঘন করে আইন বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. রফিকুল ইসলামকে আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব দেন। একই সঙ্গে আইন ও ভূমি প্রশাসন বিভাগের তৎকালীন সভাপতি ড. চন্দকে আইন বিভাগে যোগদানের নির্দেশ দেয়া হয়।

এ ঘটনায় অ্যাক্ট লঙ্ঘন ও নিয়মবহির্ভূত উল্লেখ করে বর্তমান ভিসি ও রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে পৃথক দুটি মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী তৎকালীন সভাপতি ও ওই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজ। মামলা দুটি আদালত আমলে নিয়ে রফিকুল ইসলামকে সভাপতি হিসেবে স্বীকৃতি না দিয়ে তৎকালীন সভাপতি ড. চন্দকে পরবর্তী সভাপতি নিয়োগ না দেয়া পর্যন্ত দায়িত্ব পালনের আদেশ দেন।

এক পর্যায়ে নিয়ম মেনেই ওই বিভাগের সহকারী অধ্যাপক শাহরিয়ার পারভেজকে সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। তিনি ২০০৯ সালে আইন বিভাগে প্রভাষক হিসেবে যোগদান করেন। পরবর্তীতে ২০১২ সালে সহকারী অধ্যাপক হন।

 
আরও খবর