জাবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা, আসামি ২৫০
jugantor
জাবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা, আসামি ২৫০

  জাবি প্রতিনিধি  

২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ২২:২৭:১৮  |  অনলাইন সংস্করণ

জাবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা, আসামি ২৫০

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি)শিক্ষার্থীদের ওপর স্থানীয় গেরুয়াবাসীর হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছে।

রোববার বিকালে অজ্ঞাতনামা ২৫০ জনের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার কর্মকর্তা জেফরুল হাসান চৌধুরী সজল মামলাটি দায়ের করেন।

এদিকে ছেলেদের হলগুলোতে ছাত্ররা অবস্থান করতে পারলেও মেয়েদের হলে উঠতে পারেননি ছাত্রীরা। রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বরে এক সংবাদ সম্মেলন করে সোমবারের মধ্যে ছাত্রীদের হলে উঠার ব্যবস্থা না করলে আবারও তালা ভাঙার হুশিয়ারি দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা।

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীরা হলের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থানরতদের বিদ্যুৎ, গ্যাসসহ অন্য মৌলিক সুযোগ-সুবিধা দেওয়াসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছেন। তাদের অন্য দাবিগুলো হলো- গেরুয়ায় অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের পুলিশি নিরাপত্তায় ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে আনা, হামলায় আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন, আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া।

তবে সরেজমিন শিক্ষার্থীদের অবস্থান করা হল ঘুরে জানা যায়, ডাইনিং-ক্যান্টিন ছাড়া পানি-বিদ্যুৎসহ অন্যান্য সেবা অব্যাহত রেখেছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হামলায় আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দিতে চেয়েছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছে জাবির জনসংযোগ কার্যালয়।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, রাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত আসলেই হল খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে জাবি কর্তৃপক্ষ। এজন্য রাষ্ট্র ও সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত মানার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়।

গত শুক্রবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ক্যাম্পাসসংলগ্ন গেরুয়ার স্থানীয় লোকজনের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে জাবির অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হন। এছাড়া ক্যম্পাসের বাহিরে শিক্ষার্থীরা অনিরাপদ মনে করায় শনিবার বিকালে আবাসিক হলের তালা ভেঙে শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করা শুরু করেন।

জাবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা, আসামি ২৫০

 জাবি প্রতিনিধি 
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০:২৭ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
জাবি শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার ঘটনায় মামলা, আসামি ২৫০
ফাইল ছবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) শিক্ষার্থীদের ওপর স্থানীয় গেরুয়াবাসীর হামলার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেছে। 

রোববার বিকালে অজ্ঞাতনামা ২৫০ জনের বিরুদ্ধে বিশ্ববিদ্যালয়ের নিরাপত্তা শাখার কর্মকর্তা জেফরুল হাসান চৌধুরী সজল মামলাটি দায়ের করেন।

এদিকে ছেলেদের হলগুলোতে ছাত্ররা অবস্থান করতে পারলেও মেয়েদের হলে উঠতে পারেননি ছাত্রীরা। রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বরে এক সংবাদ সম্মেলন করে সোমবারের মধ্যে ছাত্রীদের হলে উঠার ব্যবস্থা না করলে আবারও তালা ভাঙার হুশিয়ারি দিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। 

সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষার্থীরা হলের তালা ভেঙে ভেতরে অবস্থানরতদের বিদ্যুৎ, গ্যাসসহ অন্য মৌলিক সুযোগ-সুবিধা দেওয়াসহ ছয় দফা দাবি জানিয়েছেন। তাদের অন্য দাবিগুলো হলো- গেরুয়ায় অবস্থানরত শিক্ষার্থীদের পুলিশি নিরাপত্তায় ক্যাম্পাসে ফিরিয়ে আনা, হামলায় আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন, আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া।

তবে সরেজমিন শিক্ষার্থীদের অবস্থান করা হল ঘুরে জানা যায়, ডাইনিং-ক্যান্টিন ছাড়া পানি-বিদ্যুৎসহ অন্যান্য সেবা অব্যাহত রেখেছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়া বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ হামলায় আহত শিক্ষার্থীদের চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন ও ক্ষতিগ্রস্তদের ক্ষতিপূরণ দিতে চেয়েছে বলে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে নিশ্চিত করেছে জাবির জনসংযোগ কার্যালয়। 

বিবৃতিতে আরও বলা হয়, রাষ্ট্রের সিদ্ধান্ত আসলেই হল খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে জাবি কর্তৃপক্ষ। এজন্য রাষ্ট্র ও সিন্ডিকেটের সিদ্ধান্ত মানার জন্য সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ জানানো হয়।

গত শুক্রবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে ক্যাম্পাসসংলগ্ন গেরুয়ার স্থানীয় লোকজনের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। এতে জাবির অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হন। এছাড়া ক্যম্পাসের বাহিরে শিক্ষার্থীরা অনিরাপদ মনে করায় শনিবার বিকালে আবাসিক হলের তালা ভেঙে শিক্ষার্থীরা হলে অবস্থান করা শুরু করেন। 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন