স্কুটি ছিনতাইকারী কে এই জনি?

  যুগান্তর ডেস্ক    ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:১১ | অনলাইন সংস্করণ

শাহনাজ ও জুবাইদুল ইসলাম জনি
শাহনাজ ও গ্রেফতার জুবাইদুল ইসলাম জনি। ছবি: যুগান্তর

ভাড়ায় বাইক চালানো শাহনাজ আক্তারের চুরি যাওয়া আয়ের অবলম্বন বাইকটি উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে আটক করা হয় জুবায়দুল ইসলাম জনি নামে ওই ছিনাতাইকারীকে। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে আগেই শেরেবাংলা থানায় মামলা হয়।

গ্রেফতার জুবাইদুল ইসলাম জনি (২৭) বরিশাল জেলার মুলাদী থানার চরলক্ষ্মীপুর হাওলাদার বাড়ির জসিমউদ্দিনের ছেলে। গ্রেফতার জনি নির্দিষ্ট কোনো পেশার সঙ্গে জড়িত নয় বলে জানায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা।

বুধবার ওই মামলায় তাকে জেলহাজতে পাঠায় পুলিশ। এর আগে মঙ্গলবার রাতে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থানার রঘুনাতপুর এলাকা থেকে প্রযুক্তির সহায়তায় তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে তেজগাঁও জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার সাংবাদিকদের বলেন, আমরা অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করি।তার বিষয়ে একটি মামলা দায়ের হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, জনি উরফে জোবাইদুল এর আগে এ রকম কোন প্রতারণা করেছে কিনা সেটা জানার জন্য আমরা আদালতের কাছে রিমান্ড চাইব।

এদিকে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই সফিকুল ইসলাম জানান, জনিকে আদালতে মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। বিস্তারিত জানার জন্য আদালতে সাত দিনের রিমান্ড চাওয়া হয়েছে। তবে রিমান্ড মঞ্জুরের বিষয়ে সন্ধ্যায় জানা যাবে।

সফিকুল ইসলাম বলেন, ফতুল্লায় তার একটি বাড়ি রয়েছে। জনি বিবাহিত। তবে নির্দিষ্ট কোনো পেশার সঙ্গে জড়িত নয়।

যেভাবে জনির সঙ্গে পরিচয়

ভিকটিম শাহনাজ বলেন, উবার চালানোর সূত্রে পাঁচ দিন আগে জনি নামের এক ব্যক্তির সঙ্গে শ্যামলী বাসস্ট্যান্ডে পরিচয় হয়েছিল। তিনিও আমার মতো উবার চালাতেন।

‘সম্প্রতি ওই ব্যক্তি আমাকে নির্দিষ্ট এক নারী রাইডারকে ঠিক করে দেয়ার আশ্বাস দেন। ওই নারী রাইডারের সঙ্গে দেখা করতে তিনি আমাকে আজ (মঙ্গলবার) খামারবাড়ি আসতে বলেন।

শাহনাজ বলেন, ওই নারীকে না পেয়ে তিনি আমাকে নিয়ে বিমানবন্দর যান। সেখান থেকে আবার আগারগাঁওয়ের তালতলা আসি। সেখান থেকে তাকে নিয়ে আমি আসাদগেট এলাকায় আসি। এ সময় তিনি ‘মেয়েদের স্কুটি’ কীভাবে চালায়- বলে আমার বাইকে উঠে বসেন।

‘আমি কিছু বুঝে উঠার আগেই তিনি আমার বাইক নিয়ে চলে যান।’

সংগ্রামী নারী শাহনাজ আক্তার সপ্তম শ্রেণি পর্যন্ত পড়াশোনা করেছেন। রাজধানীর মিরপুরেই জন্ম তার। বাবা নেই, মা আর বোনরা আছেন। স্বামী থাকলেও তিনি আলাদা থাকেন। তার সঙ্গে তার দুই মেয়েও থাকে। বড় মেয়ে নবম ও ছোট মেয়ে প্রথম শ্রেণিতে পড়ে।

ঘটনাপ্রবাহ : শাহনাজের স্কুটি

আরও পড়ুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×