বগুড়ায় তুফান-মতিনের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

  বগুড়া ব্যুরো ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮, ২০:৪৯ | অনলাইন সংস্করণ

তুফান সরকার ও মতিন সরকার
তুফান সরকার ও মতিন সরকার। ছবি: যুগান্তর

বগুড়ার আলোচিত নারী নির্যাতনকারী তুফান সরকার ও তার বড় ভাই মতিন সরকারের বিরুদ্ধে জ্ঞাত আয়বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও তা গোপনের অভিযোগে মামলা হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম সোমবার বিকালে সদর থানায় পৃথক দুটি মামলা করেন। সদর থানার ওসি এসএম বদিউজ্জামান মামলার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এজাহারে তুফান সরকারের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে প্রায় এক কোটি ৬০ লাখ টাকার সম্পদ অর্জন এবং আরও প্রায় ৩০ লাখ টাকার সম্পদ গোপনের অভিযোগ আনা হয়েছে। অপর মামলায় মতিন সরকারের বিরুদ্ধে অবৈধভাবে তিন কোটি টাকার সম্পদ অর্জন ও আরও প্রায় সোয়া দুই কোটি টাকার সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগ আনা হয়।

শ্রমিক লীগ নেতা তুফান সরকার গত বছরের ১৭ জুলাই এক কিশোরীকে কলেজে ভর্তির নামে বাড়িতে নিয়ে ধর্ষণ করে। আর স্বামীকে বাঁচাতে স্ত্রী আশা সরকার তার বোন বগুড়া পৌরসভার সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মারজিয়া হাসান রুমকির সহযোগিতায় ২৮ জুলাই ওই কিশোরী ও তার মাকে ধরে এনে নির্যাতন এবং মাথা ন্যাড়া করে দেয়। এ ঘটনায় পুলিশ তুফান, স্ত্রী আশা, শালিকা রুমকি, শ্বাশুড়ি রুমাসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করে।

এ নিয়ে পত্রিকায় লেখালেখি হলে সারা দেশে তোলপাড় শুরু হয়। শহর শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক থেকে তুফান ও শহর যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক পদ থেকে তার ভাই মতিনকে বহিষ্কার করা হয়। এরপর দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয় থেকে দুই ভাইয়ের সম্পদের অনুসন্ধান শুরু করে। গত ৬ ও ৭ মার্চ দুই ভাইকে তাদের সম্পদের হিসাব দাখিল করতে চিঠি দেয়া হয়।

দুদক কর্মকর্তা এজাহারে উল্লেখ করেছেন, বৈধ আয় না থাকলেও তুফান সরকার এক কোটি ২৯ লাখ ৭৯ হাজার ১৫ টাকার সম্পদের হিসাব দেন। তবে অনুসন্ধানে দেখা যায়, তুফানের নামে এক কোটি ৫৯ লাখ ৫৮ হাজার ৮৮৫ টাকা সম্পদের তথ্য পাওয়া যায়। তিনি ২৯ লাখ ৭৯ হাজার ৮৭০ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেন। এছাড়া তার দখলে থাকা এক কোটি ৫৯ লাখ টাকার যে সম্পদ রয়েছে, তা আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়।

অপর মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে, মতিন সরকার দুই কোটি ২১ লাখ টাকার সম্পদের তথ্য গোপন করেছেন। এছাড়া তিনি তিন কোটি নয় লাখ টাকার যে সম্পদের হিসাব দাখিল করেছেন, তা জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ নয়। তাই দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধে দুদক আইন-২০০৪ এর ২৬ (২) এবং ২৭ (১) ধারায় মামলা করা হয়েছে।

মামলার বাদী দুদক বগুড়া সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক আমিনুল ইসলাম জানান, তিনি প্রায় ৯ মাস অনুসন্ধান করেছেন। এরপর দুদক রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়ের নির্দেশে সোমবার বিকালে সদর থানায় মামলাটি করেছেন।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×