ফেসবুক প্রেমে সর্বস্ব হারাল সেই পুলিশ

  পূবাইল প্রতিনিধি ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২৩:১৯ | অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরে প্রতারণার দায়ে আটক দুইজন
গাজীপুরে প্রতারণার দায়ে আটক দুইজন

ভুয়া ফেসবুক আইডির মাধ্যমে মেয়ে সেজে প্রেমের ফাঁদে ফেলে এক পুলিশ সদস্যের সর্বস্ব কেড়ে নিয়েছে প্রতারক চক্র।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন এলাকার পূবাইল থানার মীরের বাজার এলাকারয় নির্জন স্থানে নিয়ে এক লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে ওই পুলিশ সদস্যের সর্বস্ব কেড়ে নেয় প্রতারকরা।

বিবাহিত পুলিশ সদস্য মিজানুর রহমান ঢাকা পুলিশ হেড কোয়ার্টারে ড্রাইভার হিসাবে কর্মরত।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, শনিবার পুলিশ হেড কোয়াটারে কর্মরত মিজানুর রহমান তার নিজ ফেসবুক আইডি থেকে সাদিয়া নামে একটি মেয়ের আইডিতে পরিচয় হয়। পরিচয় থেকে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে দুজনের মধ্যে।

মন দেয়া নেয়ার এক পর্যায়ে মিজানুর রহমানের সঙ্গে সঙ্গে দেখা করার আগ্রহ পোষণ করে ফেসবুক ফ্রেন্ড সাদিয়া। এরপর সাদিয়া প্রথমে টঙ্গী স্টেশন রোডে আসার পর একটি ফোন নাম্বার দিয়ে মিরের বাজার এলাকায় এসে একটি ফোন নাম্বার দিয়ে মিজানুর রহমানকে যোগাযোগ করতে বলে।

পরে পুলিশ সদস্য মিরের বাজার পৌঁছানোর পর তাকে একজন ব্যক্তি এসে পূবাইলের সমরসিং হাকির পুরান বাড়িতে নিয়ে তিন থেকে চারজন লোক গাছের সঙ্গে হাত-পা বেঁধে ফেলে এবং ধারালো চাকু বের করে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে।

পরবর্তীতে তার সঙ্গে থাকা নগদ টাকা ও মোবাইল ফোন নিয়ে নেয় এবং আরও ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে। পরবর্তীতে পুলিশ সদস্যের স্ত্রীকে ফোন করে মুক্তিপণ বাবদ ১ লাখ টাকা দাবি করে। পুলিশ সদস্যের স্ত্রী বিকাশে ১১ হাজার পাঁচশত টাকা পাঠিয়ে দেয়।

ওই অপহরণকারী চক্রের সদস্যরা ছেড়ে দিলে মিজানুর রহমান পূবাইল থানা পুলিশকে অবগত করে এবং সহযোগিতা চায়। পুলিশ অভিযান চালিয়ে অপহরণ চক্রের দুই সদস্যকে আটক করে।

আটককৃত ব্যক্তিরা হল পূবাইল থানা এলাকার বসুগাঁও গ্রামের সাইফুল ও শাহিন। এই অপহরনকারী চক্র দীর্ঘদিন যাবত ফেসবুকে মেয়ে সেজে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি করে প্রতারণা করে আসছিল।

এ ব্যাপারে পুলিশ সদস্য মিজানুর রহমান বাদী হয়ে পূবাইল থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করেছেন। আটককৃত আসামিদের গাজীপুর কোর্টে প্রেরণ করা হয়।

এ ব্যাপারে গাজীপুর মেট্রোপলিটন পূবাইল থানার ওসি নাজমুল হক ভূঁইয়া জানান, পুলিশকে ঘটনাটি জানানোর পরে অভিযান চালিয়ে দুই জনকে আটক করা হয়। বাকি অপহরণকারী চক্রের সদস্যদের আটকের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×