বিয়ে করতে না পেরে বরগুনায় অষ্টম শ্রেণির ছাত্রের আত্মহত্যা!
jugantor
বিয়ে করতে না পেরে বরগুনায় অষ্টম শ্রেণির ছাত্রের আত্মহত্যা!

  আমতলী ও তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি  

০২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ২১:৪৪:২৯  |  অনলাইন সংস্করণ

পছন্দের মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে বরগুনার তালতলী উপজেলায় বিষপানে আত্মহত্যা করেছে আবদুল্লাহ নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র।

রোববার তালতলী উপজেলার লালুপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আবদুল্লাহ ওই উপজেলার লালুপাড়া গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে। সে লাউপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আবদুল্লাহ ওই স্কুলের এক ছাত্রীরসঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পরে। ওই মেয়েকে বিয়ের জন্য বাবা ও মাকে চাপ প্রয়োগ করে আবদুল্লাহ। কিন্তু বাবা ও মা ওই মেয়েকে বিয়ে করাতে রাজি হয়নি। এতে মা ও বাবার সঙ্গে অভিমান করে আবদুল্লাহ রোববার বিষপান করে।

স্বজনরা দ্রুত উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। ওই হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক স্কুলছাত্রের মৃত্যু ঘোষণা করেন। আমতলী থানা পুলিশ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরণ করেছে।

স্কুলছাত্রের নানা আবদুর রাজ্জাক কেরানী বলেন, বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হাসপাতালে আনার পূর্বেই আবদুল্লাহর মৃত্যু হয়েছে।

আমতলী থানার ওসি মো. আবুল বাশার বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তালতলী থানার তাই তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।

বিয়ে করতে না পেরে বরগুনায় অষ্টম শ্রেণির ছাত্রের আত্মহত্যা!

 আমতলী ও তালতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি 
০২ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০৯:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

পছন্দের মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে বরগুনার তালতলী উপজেলায় বিষপানে আত্মহত্যা করেছে আবদুল্লাহ নামে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্র।

রোববার তালতলী উপজেলার লালুপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

আবদুল্লাহ ওই উপজেলার লালুপাড়া গ্রামের মনির হোসেনের ছেলে। সে লাউপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্র ছিল।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, আবদুল্লাহ ওই স্কুলের এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমে জড়িয়ে পরে। ওই মেয়েকে বিয়ের জন্য বাবা ও মাকে চাপ প্রয়োগ করে আবদুল্লাহ। কিন্তু বাবা ও মা ওই মেয়েকে বিয়ে করাতে রাজি হয়নি। এতে মা ও বাবার সঙ্গে অভিমান করে আবদুল্লাহ রোববার বিষপান করে।

স্বজনরা দ্রুত উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসেন। ওই হাসপাতালে আনার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক স্কুলছাত্রের মৃত্যু ঘোষণা করেন। আমতলী থানা পুলিশ স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে প্রেরণ করেছে।

স্কুলছাত্রের নানা আবদুর রাজ্জাক কেরানী বলেন, বিদ্যালয়ের এক ছাত্রীর সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। ওই মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে বিষপানে আত্মহত্যা করেছে।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসার মো. মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হাসপাতালে আনার পূর্বেই আবদুল্লাহর মৃত্যু হয়েছে।

আমতলী থানার ওসি মো. আবুল বাশার বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা মর্গে পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি তালতলী থানার তাই তারা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিবেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন