মেম্বারের বাড়ির পাশের গর্তে চাল, কাড়াকাড়ি করে নিল গ্রামবাসী
jugantor
মেম্বারের বাড়ির পাশের গর্তে চাল, কাড়াকাড়ি করে নিল গ্রামবাসী

  ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২২ এপ্রিল ২০২০, ২২:০৫:৪৪  |  অনলাইন সংস্করণ

কাড়াকাড়ি করে পেয়েছেন ২ বস্তা চাল
কাড়াকাড়ি করে পেয়েছেন ২ বস্তা চাল। ছবি: যুগান্তর

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় এক ইউপি সদস্যের বাড়ির পেছনের গর্তে লুকিয়ে রাখা হয় প্রায় ৫০ বস্তা চাল। সেই চাল গ্রামবাসী কাড়াকাড়ি করে নেয়ার খবর পাওয়া গেছে। 

জানা গেছে, তারাকান্দা উপজেলার গালাগাঁও গ্রামে ইউপি সদস্য আবুল খায়েরের বাড়ির পেছনের একটি গর্তে লতাপাতা দিয়ে ঢাকা অবস্থায় স্থানীয় যুবক মো. আমিন অনেকগুলো ত্রাণের চালের বস্তা পড়ে থাকতে দেখেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের লোকজন এসে কাড়াকাড়ি করে সেগুলো নিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গালাগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক জিয়া বলেন, সরকার কঠোর হওয়ায় হতদরিদ্রদের ১০ টাকা কেজি চালের বস্তা কেউ এখানে লুকিয়ে রেখেছিল। টের পেয়ে অনেকেই কাড়াকাড়ি করে নিয়ে গেছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করছি। 

ইউপি সদস্য আবুল খায়ের জানান, নীরব জায়গা পেয়ে কেউ লুকিয়ে রেখেছিল। তবে চালগুলো কার তা আমার জানা নেই। 

ডিলার আব্দুর রহমান তালুকদার বলেন, আমি গত চার-পাঁচদিন আগে চাল দিয়ে শেষ করেছি। এ চালগুলো কার আমি বলতে পারব না।
 
তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তারাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চিত্রা শিকারী জানান, এলাকাবাসী চাল কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আমি শুনেছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

মেম্বারের বাড়ির পাশের গর্তে চাল, কাড়াকাড়ি করে নিল গ্রামবাসী

 ফুলপুর (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২২ এপ্রিল ২০২০, ১০:০৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কাড়াকাড়ি করে পেয়েছেন ২ বস্তা চাল
কাড়াকাড়ি করে পেয়েছেন ২ বস্তা চাল। ছবি: যুগান্তর

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় এক ইউপি সদস্যের বাড়ির পেছনের গর্তে লুকিয়ে রাখা হয় প্রায় ৫০ বস্তা চাল। সেই চাল গ্রামবাসী কাড়াকাড়ি করে নেয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, তারাকান্দা উপজেলার গালাগাঁও গ্রামে ইউপি সদস্য আবুল খায়েরের বাড়ির পেছনের একটি গর্তে লতাপাতা দিয়ে ঢাকা অবস্থায় স্থানীয় যুবক মো. আমিন অনেকগুলো ত্রাণের চালের বস্তা পড়ে থাকতে দেখেন। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের লোকজন এসে কাড়াকাড়ি করে সেগুলো নিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গালাগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান জিয়াউল হক জিয়া বলেন, সরকার কঠোর হওয়ায় হতদরিদ্রদের ১০ টাকা কেজি চালের বস্তা কেউ এখানে লুকিয়ে রেখেছিল। টের পেয়ে অনেকেই কাড়াকাড়ি করে নিয়ে গেছে। সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে ঘটনায় জড়িতদের বিচার দাবি করছি।

ইউপি সদস্য আবুল খায়ের জানান, নীরব জায়গা পেয়ে কেউ লুকিয়ে রেখেছিল। তবে চালগুলো কার তা আমার জানা নেই।

ডিলার আব্দুর রহমান তালুকদার বলেন, আমি গত চার-পাঁচদিন আগে চাল দিয়ে শেষ করেছি। এ চালগুলো কার আমি বলতে পারব না।

তারাকান্দা থানার ওসি আবুল খায়ের জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তারাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা চিত্রা শিকারী জানান, এলাকাবাসী চাল কাড়াকাড়ি করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি আমি শুনেছি। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।