গাজীপুরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী
jugantor
গাজীপুরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী

  কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি  

২৯ জুলাই ২০২০, ১১:১৯:১২  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী
ফাইল ছবি

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক এলাকায় স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী। নিহত গৃহবধূর নাম ঝর্ণা বেগম ফলি (২৮)।

বুধবার সকালে উপজেলার মোল্লাবাড়ি এলাকা থেকে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঝর্ণা বেগম টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর থানার চানপুর এলাকার জাহাঙ্গীর মিয়ার স্ত্রী। তিনি স্থানীয় কোকাকোলা কারখানায় কাজ করতেন। ঝর্ণা স্বামীর সঙ্গে মোল্লাবাড়ি হাজী সাইদুর রহমানের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

পলাতক স্বামী জাহাঙ্গীর মিয়া টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর থানার চানপুর এলাকার মৃত আবদুল খালেকের ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, রাতের কোনো একসময় স্ত্রী ঝর্ণাকে ছুরি দিয়ে খুন করে ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে পালিয়ে যায়।

সকালে পাশের বাড়ির লোকজন দরজা বন্ধ দেখে ডাকতে গিয়ে দেখে ঘরে ঝর্ণার মরদেহ পড়ে রয়েছে। কিন্তু স্বামী জাহাঙ্গীরকে পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

মৌচাক ফাঁড়ির ওসি মনিরুজ্জামান জানান, ওই এলাকায় স্বামী স্ত্রীকে গলায় ছুরি মেরে হত্যা করে। নিহতের বুকের বাম পাশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

গাজীপুরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী

 কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি 
২৯ জুলাই ২০২০, ১১:১৯ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গাজীপুরে স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী
ফাইল ছবি

গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার মৌচাক এলাকায় স্ত্রীকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে পালালেন স্বামী। নিহত গৃহবধূর নাম ঝর্ণা বেগম ফলি (২৮)।

বুধবার সকালে উপজেলার মোল্লাবাড়ি এলাকা থেকে ওই গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঝর্ণা বেগম টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর থানার চানপুর এলাকার জাহাঙ্গীর মিয়ার স্ত্রী। তিনি স্থানীয় কোকাকোলা কারখানায় কাজ করতেন। ঝর্ণা স্বামীর সঙ্গে মোল্লাবাড়ি হাজী সাইদুর রহমানের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন।

পলাতক স্বামী জাহাঙ্গীর মিয়া টাঙ্গাইল জেলার গোপালপুর থানার চানপুর এলাকার মৃত আবদুল খালেকের ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, রাতের কোনো একসময় স্ত্রী ঝর্ণাকে ছুরি দিয়ে খুন করে ঘরের দরজা বাইরে থেকে বন্ধ করে পালিয়ে যায়।

সকালে পাশের বাড়ির লোকজন দরজা বন্ধ দেখে ডাকতে গিয়ে দেখে ঘরে ঝর্ণার মরদেহ পড়ে রয়েছে। কিন্তু স্বামী জাহাঙ্গীরকে পাওয়া যায়নি। পরে পুলিশে খবর দিলে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।

মৌচাক ফাঁড়ির ওসি মনিরুজ্জামান জানান, ওই এলাকায় স্বামী স্ত্রীকে গলায় ছুরি মেরে হত্যা করে। নিহতের বুকের বাম পাশে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।