কিশোরগঞ্জে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রাণ গেল জামাইয়ের
jugantor
কিশোরগঞ্জে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রাণ গেল জামাইয়ের

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো  

১৪ আগস্ট ২০২০, ১৬:০৯:৪৬  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় শাশুড়ির মৃত্যু সংবাদ শুনে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল মুজিবুর রহমান (২৭) নামে এক যুবকের।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার সগড়া বেইলি ব্রিজ এলাকায় কিশোরগঞ্জ-ভৈরব আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মুজিবুর রহমান পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দি পশ্চিমপাড়া গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, ময়মনসিংহের ধোবাউড়া এলাকায় শাশুড়ির মৃত্যুর সংবাদ শুনে স্ত্রী-মেয়েকে নিয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে যাচ্ছিলেন মুজিবুর রহমান। তাদের বহনকারী অটোরিকশা সগড়া এলাকা অতিক্রমকালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে রাস্তায় উল্টে যায়।

এতে স্ত্রী-মেয়ে, অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল আরোহী বেঁচে গেলেও সিএনজি যাত্রী মুজিবুর রহমান ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময় মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যান এর চালক।

এদিকে এ ঘটনায় এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এতে সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজট। অনেক যানবহনকে মূল সড়ক ছেড়ে কিশোরগঞ্জ শহরের সড়ক ব্যবহার করে গন্তব্যে পাড়ি জমায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দেড় ঘণ্টা পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি আবুবকর সিদ্দিক বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত মোটরসাইকেল ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা জব্দ করা হয়েছে। নিহত মুজিবুরের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন ওসি।

কিশোরগঞ্জে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে প্রাণ গেল জামাইয়ের

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো 
১৪ আগস্ট ২০২০, ০৪:০৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় শাশুড়ির মৃত্যু সংবাদ শুনে শ্বশুরবাড়ি যাওয়ার পথে সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল মুজিবুর রহমান (২৭) নামে এক যুবকের।

শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সদর উপজেলার সগড়া বেইলি ব্রিজ এলাকায় কিশোরগঞ্জ-ভৈরব আঞ্চলিক মহাসড়কে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত মুজিবুর রহমান পাকুন্দিয়া উপজেলার নারান্দি পশ্চিমপাড়া গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে।

জানা গেছে, ময়মনসিংহের ধোবাউড়া এলাকায় শাশুড়ির মৃত্যুর সংবাদ শুনে স্ত্রী-মেয়েকে নিয়ে সিএনজিচালিত অটোরিকশাযোগে যাচ্ছিলেন মুজিবুর রহমান। তাদের বহনকারী অটোরিকশা সগড়া এলাকা অতিক্রমকালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটরসাইকেলের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এ সময় অটোরিকশা নিয়ন্ত্রণ করতে গিয়ে রাস্তায় উল্টে যায়। 

এতে স্ত্রী-মেয়ে, অটোরিকশা ও মোটরসাইকেল আরোহী বেঁচে গেলেও সিএনজি যাত্রী মুজিবুর রহমান ঘটনাস্থলেই মারা যান। এ সময়  মোটরসাইকেল ফেলে পালিয়ে যান এর চালক। 

এদিকে এ ঘটনায় এলাকাবাসী বিক্ষুব্ধ হয়ে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। এতে সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। সৃষ্টি হয় দীর্ঘ যানজট। অনেক যানবহনকে মূল সড়ক ছেড়ে কিশোরগঞ্জ শহরের সড়ক ব্যবহার করে গন্তব্যে পাড়ি জমায়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দেড় ঘণ্টা পর যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়।

কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি আবুবকর সিদ্দিক বলেন, দুর্ঘটনাকবলিত মোটরসাইকেল ও সিএনজিচালিত অটোরিকশা জব্দ করা হয়েছে। নিহত মুজিবুরের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল  মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ব্যাপারে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানিয়েছেন ওসি।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন