কিশোরগঞ্জে শিয়ালের কামড়ে ১৪ জন আহত
jugantor
কিশোরগঞ্জে শিয়ালের কামড়ে ১৪ জন আহত

  কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি  

০১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৮:৪২:৪৯  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী পৌর সদরে একটি শিয়ালের কামড়ে ১৪ নারী-পুরুষ আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে কটিয়াদী পৌরসভার পূর্বপাড়া মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- রোজিনা খাতুন (৪০), রত্না দেবনাথ (৩৫), হাজী রতন মিয়া (৪৮), জুয়েল মিয়া (২৫), শফিকুল ইসলাম(২২), আবুল কাসেম (৫০), মুছা মিয়া (৫০), রানু আক্তার (৩৫), হীরন রবি দাস (২৩), আ: রাশিদ (৭০), রফিকুল ইসলাম (৩০), লালন মিয়া (২৯), শিবলু মিয়া (৩১) ও শিরিনা আক্তার (৪০)। গুরুতর আহত রতনা দেবনাথকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যদের কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়ার সময় কটিয়াদী পূর্বপাড়া মহল্লার রোজিনা খাতুন হাসপাতালের দিকে যাওয়ার সময় একটি শিয়াল পেছন দিক থেকে দৌড়ে এসে পায়ে কামড় দিয়ে আহত করে।

তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়ার সময় আহত আরও দুই-তিনজনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। এ সময় ওই শিয়ালের আক্রমণে আতঙ্কিত লোকজন হাসপাতালের বাইরের রাস্তায় বিভিন্ন দিকে ছোটাছুটি করছিলেন।

সকাল ৭টা থেকে ১১টা পর্যন্ত পাগলা শিয়ালটি হাসপাতালের সম্মুখের রাস্তায় ১৪ জন নারী-পুরুষকে কামড়িয়ে আহত করে। এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে শিয়ালটিকে ধরে রশি দিয়ে বেঁধে পিটিয়ে মেরে ফেলেন।

কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তানভীর হাসান যুগান্তরকে বলেন, সকালে কটিয়াদী পৌর সদরে পাগলা শিয়ালের আক্রমণে আহত ১৪ জন রোগীকে জলাতঙ্কের ইনজেকশন দিয়ে আমাদের অবজারভেশনে রাখা হয়েছে।

কিশোরগঞ্জে শিয়ালের কামড়ে ১৪ জন আহত

 কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি 
০১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:৪২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী পৌর সদরে একটি শিয়ালের কামড়ে ১৪ নারী-পুরুষ আহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে কটিয়াদী পৌরসভার পূর্বপাড়া মহল্লায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- রোজিনা খাতুন (৪০), রত্না দেবনাথ (৩৫), হাজী রতন মিয়া (৪৮), জুয়েল মিয়া (২৫), শফিকুল ইসলাম(২২), আবুল কাসেম (৫০), মুছা মিয়া (৫০), রানু আক্তার (৩৫), হীরন রবি দাস (২৩), আ: রাশিদ (৭০), রফিকুল ইসলাম (৩০), লালন মিয়া (২৯), শিবলু মিয়া (৩১) ও শিরিনা আক্তার (৪০)। গুরুতর আহত রতনা দেবনাথকে উন্নত চিকিৎসার জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অন্যদের কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে।

জানা যায়, মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি পড়ার সময় কটিয়াদী পূর্বপাড়া মহল্লার রোজিনা খাতুন হাসপাতালের দিকে যাওয়ার সময় একটি শিয়াল পেছন দিক থেকে দৌড়ে এসে পায়ে কামড় দিয়ে আহত করে। 

তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়ার সময় আহত আরও দুই-তিনজনকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে আসেন স্বজনরা। এ সময় ওই শিয়ালের আক্রমণে আতঙ্কিত লোকজন হাসপাতালের বাইরের রাস্তায় বিভিন্ন দিকে ছোটাছুটি করছিলেন।

সকাল ৭টা থেকে ১১টা পর্যন্ত পাগলা শিয়ালটি হাসপাতালের সম্মুখের রাস্তায় ১৪ জন নারী-পুরুষকে কামড়িয়ে আহত করে। এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে শিয়ালটিকে ধরে রশি দিয়ে বেঁধে পিটিয়ে মেরে ফেলেন।

কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. তানভীর হাসান যুগান্তরকে বলেন, সকালে কটিয়াদী পৌর সদরে পাগলা শিয়ালের আক্রমণে আহত ১৪ জন রোগীকে জলাতঙ্কের ইনজেকশন দিয়ে  আমাদের অবজারভেশনে রাখা হয়েছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন