দুই ভাইকে ক্রসফায়ারে হত্যায় চট্টগ্রামে ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে মামলা
jugantor
দুই ভাইকে ক্রসফায়ারে হত্যায় চট্টগ্রামে ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে মামলা

  চট্টগ্রাম ব্যুরো  

০২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৯:২৪:০৬  |  অনলাইন সংস্করণ

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার অন্যতম আসামি ও টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ৫ পুলিশের বিরুদ্ধে আরও একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। চন্দনাইশ থেকে দুই ভাইকে ধরে নিয়ে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে বুধবার চট্টগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন নাহার রুমীর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

নিহতদের বোন জিনাত সুলতানা শাহীন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার অন্য আসামিরা হচ্ছেন টেকনাফ থানার এসআই ইফতেখারুল ইসলাম, কনস্টেবল মাজহারুল, দ্বীন ইসলাম ও আমজাদ।

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে আগামী ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে আনোয়ারা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জিয়া হাবিব আহসান।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে- গত ১৫ জুলাই বিদেশ ফেরত দুই ভাই আজাদুল হক ও আমানুল হককে চন্দনাইশ পুলিশের সহায়তায় বাসা থেকে ধরে নিয়ে যান টেকনাফ থানার তৎকালীন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও অন্য পুলিশ সদস্যরা। এরপর টেকনাফে নিয়ে গিয়ে তাদের পরিবারের কাছে ৮ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়। না পেয়ে দুই ভাইকে ক্রসফায়ারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

প্রবাস থেকে ফিরে দুই ভাই আজাদুল হক ও আমানুল হক দেশে পেয়ারা চাষে যুক্ত হয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাদের ইয়াবা ব্যবসায়ী সাজিয়ে ক্রসফায়ার দেয়। তাদের বাবার নাম আমিনুল হক। চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চননগরে তাদের বাড়ি।

দুই ভাইকে ক্রসফায়ারে হত্যায় চট্টগ্রামে ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে মামলা

 চট্টগ্রাম ব্যুরো 
০২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান হত্যা মামলার অন্যতম আসামি ও টেকনাফ থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশসহ ৫ পুলিশের বিরুদ্ধে আরও একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। চন্দনাইশ থেকে দুই ভাইকে ধরে নিয়ে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে বুধবার চট্টগ্রাম চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট কামরুন নাহার রুমীর আদালতে মামলাটি দায়ের করা হয়।

নিহতদের বোন জিনাত সুলতানা শাহীন বাদী হয়ে এ মামলা দায়ের করেন। মামলার অন্য আসামিরা হচ্ছেন টেকনাফ থানার এসআই ইফতেখারুল ইসলাম, কনস্টেবল মাজহারুল, দ্বীন ইসলাম ও আমজাদ।

আদালত মামলাটি গ্রহণ করে আগামী ২০ সেপ্টেম্বরের মধ্যে প্রতিবেদন জমা দিতে আনোয়ারা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দিয়েছেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বাদীপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট জিয়া হাবিব আহসান।

মামলায় অভিযোগ করা হয়েছে- গত ১৫ জুলাই বিদেশ ফেরত দুই ভাই আজাদুল হক ও আমানুল হককে চন্দনাইশ পুলিশের সহায়তায় বাসা থেকে ধরে নিয়ে যান টেকনাফ থানার তৎকালীন ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও অন্য পুলিশ সদস্যরা। এরপর টেকনাফে নিয়ে গিয়ে তাদের পরিবারের কাছে ৮ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করা হয়। না পেয়ে দুই ভাইকে ক্রসফায়ারে নির্মমভাবে হত্যা করা হয়।

প্রবাস থেকে ফিরে দুই ভাই আজাদুল হক ও আমানুল হক দেশে পেয়ারা চাষে যুক্ত হয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাদের ইয়াবা ব্যবসায়ী সাজিয়ে ক্রসফায়ার দেয়। তাদের বাবার নাম আমিনুল হক। চন্দনাইশ উপজেলার কাঞ্চননগরে তাদের বাড়ি।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ওসি প্রদীপ কুমার দাস

জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন