সুনামগঞ্জ শহরে বখাটের ছুরিকাঘাতে দুই ভাই রক্তাক্ত
jugantor
সুনামগঞ্জ শহরে বখাটের ছুরিকাঘাতে দুই ভাই রক্তাক্ত

  সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি  

১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:২০:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জ শহরের ষোলঘর এলাকায় বখাটের ছুরিকাঘাতে বিপ্লব দাস (২৯) ও কংকন দাস (১৮) নামে দুই ভাই গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা ষোলঘর এলাকার মৃত বেণু দাসের পুত্র। বৃহস্পতিবার রাতে ষোলঘর পয়েন্টে এই ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার সময় বখাটে লিটনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। লিটন শহরের মোহাম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ষোলঘর পয়েন্টে সেলুনের টাকা হিসাব করছিলেন ব্যবসায়ী বিপ্লব দাস। এ সময় বখাটে লিটন ব্যবসায়ী বিপ্লবের কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। বিপ্লব দাস ও তার ভাই কংকন দাস বাধা দিলে বখাটে লিটন এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় স্থানীয় জনতার লিটনকে আটক করে এবং পরে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

অপরদিকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় রক্তাক্ত দুই ভাইকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সুমন আহমদ বলেন, চিৎকার শুনে আমরা এগিয়ে যাই। দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় বিপ্লব ও তার ভাই পড়ে আছে। এ সময় হামলাকারী লিটন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে উপস্থিত জনতা তাকে আটক করে। পরে আমরা বিপ্লব ও তার ভাইকে হাসপাতালে নিয়ে আসি। বিপ্লবের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি সহিদুর রহমান বলেন, লিটনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সুনামগঞ্জ শহরে বখাটের ছুরিকাঘাতে দুই ভাই রক্তাক্ত

 সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি 
১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
সুনামগঞ্জ
সুনামগঞ্জ

সুনামগঞ্জ শহরের ষোলঘর এলাকায় বখাটের ছুরিকাঘাতে বিপ্লব দাস (২৯) ও কংকন দাস (১৮) নামে দুই ভাই গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা ষোলঘর এলাকার মৃত বেণু দাসের পুত্র। বৃহস্পতিবার রাতে ষোলঘর পয়েন্টে এই ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার সময় বখাটে লিটনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে জনতা। লিটন শহরের মোহাম্মদপুর এলাকার বাসিন্দা।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে ষোলঘর পয়েন্টে সেলুনের টাকা হিসাব করছিলেন ব্যবসায়ী বিপ্লব দাস। এ সময় বখাটে লিটন ব্যবসায়ী বিপ্লবের কাছ থেকে টাকা ছিনিয়ে নেয়ার চেষ্টা করে। বিপ্লব দাস ও তার ভাই কংকন দাস বাধা দিলে বখাটে লিটন এলোপাতাড়ি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় স্থানীয় জনতার লিটনকে আটক করে এবং পরে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

অপরদিকে স্থানীয়দের সহযোগিতায় রক্তাক্ত দুই ভাইকে সুনামগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী সুমন আহমদ বলেন, চিৎকার শুনে আমরা এগিয়ে যাই। দেখি রক্তাক্ত অবস্থায় বিপ্লব ও তার ভাই পড়ে আছে। এ সময় হামলাকারী লিটন পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে উপস্থিত জনতা তাকে আটক করে। পরে আমরা বিপ্লব ও তার ভাইকে হাসপাতালে নিয়ে আসি। বিপ্লবের পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সুনামগঞ্জ সদর থানার ওসি সহিদুর রহমান বলেন, লিটনকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন