খাসকামরা থেকে সহকারী জজের ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি!
jugantor
খাসকামরা থেকে সহকারী জজের ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি!

  কিশোরগঞ্জ ব্যুরো  

২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২১:৩১:০০  |  অনলাইন সংস্করণ

এজলাসে বসে বিচারকাজ পরিচালনা করার সময় এবার খাসকামরা থেকে বিচারকেরই ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি হওয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুরে কিশোরগঞ্জের জজকোর্টে তাড়াইল উপজেলার দায়িত্বপালনকারী সহকারী জজ উম্মে হাবিবা লাইজুর খাসকামরায় এ চুরির ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় বেঞ্চ সহকারী মো. মজিবুর রহমান বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবু বকর সিদ্দিক।

বুধবার দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে তিনি খাসকামরায় ব্যাগটি রেখে এজলাসে বসে বিচারকার্য পরিচালনা করার সময় এ চুরির ঘটনাটি ঘটে।

আদালত ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জেলার তাড়াইল উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী জজ আদালতের বিচারক উম্মে হাবিবা লাইজু খাস কামরায় তার ব্যাগটি রেখে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে এজলাসে বসে বিচারকাজ পরিচালনা করেন। বিচারকাজ শেষে দুপুর ২টায় তিনি এজলাস থেকে নেমে খাসকামরায় যান। এ সময় তিনি তার ব্যাগটি না দেখতে পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। কিন্তু ব্যাগটি আর না পেয়ে চুরি হয়ে গেছে বলে বুঝতে পারেন।

ব্যাগটিতে বিচারক উম্মে হাবিবা লাইজুর জাতীয় পরিচয়পত্র, পেনড্রাইভ, সোনালী ব্যাংকের ভিসা কার্ড, নগদ তিন হাজার টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছিল।

এ ব্যাপারে রাত ৮টার দিকে যোগাযোগ করা হলে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক জানান, এ ঘটনায় মামলার পর চোর শনাক্ত এবং চুরি যাওয়া ব্যাগটি উদ্ধারে পুলিশি অভিযান চলছে।

খাসকামরা থেকে সহকারী জজের ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি!

 কিশোরগঞ্জ ব্যুরো 
২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৯:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

এজলাসে বসে বিচারকাজ পরিচালনা করার সময় এবার খাসকামরা থেকে বিচারকেরই ভ্যানিটি ব্যাগ চুরি হওয়ার চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে। বুধবার দুপুরে কিশোরগঞ্জের জজকোর্টে তাড়াইল উপজেলার দায়িত্বপালনকারী সহকারী জজ উম্মে হাবিবা লাইজুর খাসকামরায় এ চুরির ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় বেঞ্চ সহকারী মো. মজিবুর রহমান বাদী হয়ে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানায় মামলা করেছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবু বকর সিদ্দিক।

বুধবার দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে তিনি খাসকামরায় ব্যাগটি রেখে এজলাসে বসে বিচারকার্য পরিচালনা করার সময় এ চুরির ঘটনাটি ঘটে। 

আদালত ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জেলার তাড়াইল উপজেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত সহকারী জজ আদালতের বিচারক উম্মে হাবিবা লাইজু খাস কামরায় তার ব্যাগটি রেখে দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে এজলাসে বসে বিচারকাজ পরিচালনা করেন। বিচারকাজ শেষে দুপুর ২টায় তিনি এজলাস থেকে নেমে খাসকামরায় যান। এ সময় তিনি তার ব্যাগটি না দেখতে পেয়ে খোঁজাখুঁজি শুরু করেন। কিন্তু ব্যাগটি আর না পেয়ে চুরি হয়ে গেছে বলে বুঝতে পারেন।

ব্যাগটিতে বিচারক উম্মে হাবিবা লাইজুর জাতীয় পরিচয়পত্র, পেনড্রাইভ, সোনালী ব্যাংকের ভিসা কার্ড, নগদ তিন হাজার টাকা ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র ছিল।

এ ব্যাপারে রাত ৮টার দিকে যোগাযোগ করা হলে কিশোরগঞ্জ সদর মডেল থানার ওসি মো. আবুবকর সিদ্দিক জানান, এ ঘটনায় মামলার পর চোর শনাক্ত এবং চুরি যাওয়া ব্যাগটি উদ্ধারে পুলিশি অভিযান চলছে।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন