উলিপুরে ওয়ার্ড আ‘লীগ নেতাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিল জনতা
jugantor
অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ
উলিপুরে ওয়ার্ড আ‘লীগ নেতাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিল জনতা

  উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি  

২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২২:২০:২৩  |  অনলাইন সংস্করণ

কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগে মুকুল মন্ডল (৩৬) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে জনতা। বুধবার রাতে সাহেবের কুঠি চকিদার পাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

মুকুল মন্ডল উলিপুর পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাতে মুকুল মন্ডল তিন সন্তানের জননী ওই নারীর বাড়িতে প্রবেশ করলে তা স্থানীয় লোকজনের চোখে পড়ে। পরে তারা দলবদ্ধ হয়ে ওই বাড়িতে গেলে মুকুল মন্ডল ওই গৃহবধুর ঘরের বেড়া ভেঙ্গে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ডোবায় পড়ে যান। এ সময় এলাকাবাসী তাকে ডোবা থেকে উদ্ধার করে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গণধোলাই দিয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। মুকুল মন্ডল পৌরসভার পূর্ব নাওডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল ওহাব ওরফে মন্টু মন্ডলের ছেলে।

উলিপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টি আমি লোক মারফত জানতে পেরেছি। ঘটনা খতিয়ে দেখে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাঈদুল ইসলাম জানান, গভীর রাতে পুলিশ মুকুল মন্ডল নামে এক ব্যক্তিকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে রিলিজ দেয়া হয়েছে।

উলিপুর থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। এ বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ না পাওয়ায় বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

অনৈতিক কর্মকাণ্ডের অভিযোগ

উলিপুরে ওয়ার্ড আ‘লীগ নেতাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিল জনতা

 উলিপুর (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি 
২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১০:২০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কুড়িগ্রাম
কুড়িগ্রাম

কুড়িগ্রামের উলিপুরে এক নারীর সঙ্গে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে লিপ্ত থাকার অভিযোগে মুকুল মন্ডল (৩৬) নামে এক আওয়ামী লীগ নেতাকে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিয়েছে জনতা। বুধবার রাতে সাহেবের কুঠি চকিদার পাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটে।

মুকুল মন্ডল উলিপুর পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার রাতে মুকুল মন্ডল তিন সন্তানের জননী ওই নারীর বাড়িতে প্রবেশ করলে তা স্থানীয় লোকজনের চোখে পড়ে। পরে তারা দলবদ্ধ হয়ে ওই বাড়িতে গেলে মুকুল মন্ডল ওই গৃহবধুর ঘরের বেড়া ভেঙ্গে দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় ডোবায় পড়ে যান। এ সময় এলাকাবাসী তাকে ডোবা থেকে উদ্ধার করে অনৈতিক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে গণধোলাই দিয়ে ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়। পরে থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। মুকুল মন্ডল পৌরসভার পূর্ব নাওডাঙ্গা গ্রামের আব্দুল ওহাব ওরফে মন্টু মন্ডলের ছেলে।

উলিপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জাহাঙ্গীর আলম বলেন, বিষয়টি আমি লোক মারফত জানতে পেরেছি। ঘটনা খতিয়ে দেখে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মাঈদুল ইসলাম জানান, গভীর রাতে পুলিশ মুকুল মন্ডল নামে এক ব্যক্তিকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। চিকিৎসা শেষে বৃহস্পতিবার সকালে তাকে রিলিজ দেয়া হয়েছে।

উলিপুর থানার ওসি মোয়াজ্জেম হোসেন জানান, ৯৯৯ থেকে ফোন পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল গিয়ে তাকে উদ্ধার করে নিয়ে আসেন। এ বিষয়ে লিখিত কোনো অভিযোগ না পাওয়ায় বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।
 

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন