টঙ্গীতে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক গ্রেফতার
jugantor
টঙ্গীতে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক গ্রেফতার

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

১২ নভেম্বর ২০২০, ২১:৫১:৩৩  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গীতে ধর্ষণের অভিযোগে এক মাদ্রাসাশিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে টঙ্গীর দত্তপাড়া আলম মার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আটক মো. আবু বক্কর (২৮) স্থানীয় ইকরা হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক। তিনি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার জারিয়া গ্রামের মৃত সমর আলীর ছেলে।

ভিকটিম ওই নারীর অভিযোগের বরাত দিয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই রাজিব হোসেন জানান, নারীর দুই ছেলে-মেয়েকে দেড় বছর যাবত আরবি পড়াতেন স্থানীয় ইকরা হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মো. আবু বক্কর। গত ৮ নভেম্বর তার স্বামী রাজমিস্ত্রির ঠিকাদারি কাজে ৪-৫ দিনের জন্য ঢাকার সদরঘাটে একটি নির্মাণ কাজে যান।

পরদিন সকালে ওই নারীর দুই সন্তান বাংলা পড়তে অন্যত্র চলে গেলে বেলা ১১টার দিকে বাসায় আসেন আরবি শিক্ষক আবু বক্কর। এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক রুমে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি কাউকে জানালে নারী ও তার ছেলে-মেয়েকে খুন করার হুমকি দিয়ে চলে যান আবু বক্কর। পরে টঙ্গী পূর্ব থানায় অভিযোগ দিলে বুধবার রাতে অভিযুক্ত শিক্ষক মো. আবু বক্করকে দত্তপাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক মো. আবু বক্করকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

টঙ্গীতে ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক গ্রেফতার

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
১২ নভেম্বর ২০২০, ০৯:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

গাজীপুর মহানগরীর টঙ্গীতে ধর্ষণের অভিযোগে এক মাদ্রাসাশিক্ষককে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে টঙ্গীর দত্তপাড়া আলম মার্কেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

আটক  মো. আবু বক্কর (২৮) স্থানীয় ইকরা হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক। তিনি নেত্রকোনা জেলার পূর্বধলা উপজেলার জারিয়া গ্রামের মৃত সমর আলীর ছেলে।

ভিকটিম ওই নারীর অভিযোগের বরাত দিয়ে টঙ্গী পূর্ব থানার এসআই রাজিব হোসেন জানান, নারীর দুই ছেলে-মেয়েকে দেড় বছর যাবত আরবি পড়াতেন স্থানীয় ইকরা হাফেজিয়া মাদ্রাসার শিক্ষক মো. আবু বক্কর। গত ৮ নভেম্বর তার স্বামী রাজমিস্ত্রির ঠিকাদারি কাজে ৪-৫ দিনের জন্য ঢাকার সদরঘাটে একটি নির্মাণ কাজে যান।

পরদিন সকালে ওই নারীর দুই সন্তান বাংলা পড়তে অন্যত্র চলে গেলে বেলা ১১টার দিকে বাসায় আসেন আরবি শিক্ষক আবু বক্কর। এ সময় অভিযুক্ত শিক্ষক রুমে প্রবেশ করে জোরপূর্বক ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। বিষয়টি কাউকে জানালে নারী ও তার ছেলে-মেয়েকে খুন করার হুমকি দিয়ে চলে যান আবু বক্কর। পরে টঙ্গী পূর্ব থানায় অভিযোগ দিলে বুধবার রাতে অভিযুক্ত শিক্ষক মো. আবু বক্করকে দত্তপাড়া এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

টঙ্গী পূর্ব থানার ওসি মো. আমিনুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ধর্ষণের অভিযোগে মাদ্রাসাশিক্ষক মো. আবু বক্করকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছেন ভুক্তভোগী নারী।

 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন