ফুঁসলিয়ে ঘরে নিয়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ
jugantor
ফুঁসলিয়ে ঘরে নিয়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

  মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি  

১২ এপ্রিল ২০২১, ১৮:৫০:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ফুঁসলিয়ে ঘরে নিয়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চানে মুন্সী (৫০) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। শিশুটির ফুপু বাদী হয়ে সোমবার সকালে মধুপুর থানায় এ মামলা করেছেন।

চানে মুন্সী গোলাবাড়ী ইউনিয়নের আটাবাড়ী এলাকার মৃত ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে।

মামলার বাদী শিশুটির ফুপু জানান, গত এক বছর আগে শিশুটির বাবা ক্যান্সারে মারা গেছেন। মা ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করেন। শিশুটি দরিদ্র দাদীর বাড়িতে থেকে স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে।

গত শনিবার দুপুরের দিকে চানে মুন্সীর নাতি নাতনির সঙ্গে শিশুটি খেলছিল। এক পর্যায়ে চানে মুন্সী ফুঁসলিয়ে শিশুটিকে নিজ ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। অসুস্থ হয়ে পড়লেও ভয়ে শিশুটি প্রথমে কিছু বলেনি। কষ্ট বেড়ে গেলে রোববার ফুপুকে সব ঘটনা খুলে বললে দ্রুত তাকে মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে পুলিশকে জানানো হয়।

থানায় মামলা হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন মধুপুর থানার ওসি তারিক কামাল। তিনি জানান, নারী ও শিশু নির্যাতনের সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা নিয়ে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সোমবার সকালে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে ধর্ষক চানে মুন্সি পলাতক রয়েছে। আটকের চেষ্টা চলছে।

গোলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা খান বাবলু এমন ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, এলাকাবাসী এ নিয়ে ক্ষুব্ধ। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছেন তিনি।

ফুঁসলিয়ে ঘরে নিয়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণ

 মধুপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি 
১২ এপ্রিল ২০২১, ০৬:৫০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইলের মধুপুরে ফুঁসলিয়ে ঘরে নিয়ে ৬ বছরের শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে চানে মুন্সী (৫০) নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে থানায় মামলা হয়েছে। শিশুটির ফুপু বাদী হয়ে সোমবার সকালে মধুপুর থানায় এ মামলা করেছেন।

চানে মুন্সী গোলাবাড়ী ইউনিয়নের আটাবাড়ী এলাকার মৃত ফয়েজ উদ্দিনের ছেলে।

মামলার বাদী শিশুটির ফুপু জানান, গত এক বছর আগে শিশুটির বাবা ক্যান্সারে  মারা গেছেন। মা ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করেন।  শিশুটি দরিদ্র দাদীর বাড়িতে থেকে স্থানীয় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করে।

গত শনিবার দুপুরের দিকে চানে মুন্সীর নাতি নাতনির সঙ্গে শিশুটি খেলছিল। এক পর্যায়ে চানে মুন্সী ফুঁসলিয়ে শিশুটিকে নিজ ঘরে নিয়ে ধর্ষণ করে। অসুস্থ হয়ে পড়লেও ভয়ে শিশুটি প্রথমে কিছু বলেনি। কষ্ট বেড়ে গেলে রোববার ফুপুকে সব ঘটনা খুলে বললে দ্রুত তাকে মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। পরে পুলিশকে জানানো হয়।

থানায় মামলা হওয়ার বিষয়টি স্বীকার করেছেন মধুপুর থানার ওসি তারিক কামাল। তিনি জানান, নারী ও শিশু নির্যাতনের সংশ্লিষ্ট আইনে মামলা নিয়ে ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য সোমবার সকালে টাঙ্গাইল শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে ধর্ষক চানে মুন্সি পলাতক রয়েছে। আটকের চেষ্টা চলছে।

গোলবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা খান বাবলু এমন ঘটনার কথা স্বীকার করেছেন। তিনি এ ঘটনায় ক্ষোভ প্রকাশ করে জানান, এলাকাবাসী এ নিয়ে ক্ষুব্ধ। এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানিয়েছেন তিনি।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন