পটুয়াখালীতে প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের ঘটনায় বৃদ্ধ আটক
jugantor
পটুয়াখালীতে প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের ঘটনায় বৃদ্ধ আটক

  পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি  

২১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:০১:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

গ্রেফতার অভিযুক্ত ধর্ষক  মো. জালাল গাজী।

পটুয়াখালীর গলাচিপায় ১২ বছরের প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত মো. জালাল গাজী (৬৫) নামে এক বৃদ্ধকে আটক করেছে র‌্যাব-৮।

মঙ্গলবার বিকালে ওই উপজেলার পাতাবুনিয়া ইউনিয়নের কল্যাণকলস এলাকা থেকে আটক করা হয়।আটকের পর তাকে গলাচিপা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এতদিন ধরে অভিযুক্ত ধর্ষক জালাল গাজী পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন।

গত ১২ এপ্রিল উপজেলা গজালিয়া ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় জালাল গাজীর দোকানের পেছনে ধর্ষিত হয় শিশুটি।

ঘটনার বরাতদিয়ে র‌্যাব-৮’র পটুয়াখালী ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার মো. রবিউল ইসলাম জানান, গত ১২ এপ্রিল জালাল গাজীর দোকানে যায় প্রতিবন্ধী শিশুটি। খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে তার দোকানে পেছনে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন জালাল।

এসময় শিশুটির চিৎকারে প্রতিবেশি মো. রেজাউল গাজী ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। ধর্ষক জালালপালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর ধর্ষকের পক্ষ থেকে আইনি সহায়তা না নিতে হুমকি-ধামকিদেওয়া হয়। পরে ভিকটিম পরিবার গলাচিপা থানায় একটি মামলা করলে ধর্ষক আত্মগোপনে চলে যায়।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকালে গলাচিপা উপজেলার কল্যাণকলস থেকে জালাল গাজীকে আটক করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। আটক জালাল ওই উপজেলার দক্ষিন চরচন্দ্রাইলের মৃত মোন্তাজ গাজীর ছেলে।

পটুয়াখালীতে প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের ঘটনায় বৃদ্ধ আটক

 পটুয়াখালী ও দক্ষিণ প্রতিনিধি 
২১ এপ্রিল ২০২১, ০৩:০১ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ
গ্রেফতার অভিযুক্ত ধর্ষক  মো. জালাল গাজী।
গ্রেফতার অভিযুক্ত ধর্ষক মো. জালাল গাজী। ছবি: যুগান্তর

পটুয়াখালীর গলাচিপায় ১২ বছরের প্রতিবন্ধী শিশু ধর্ষণের ঘটনায় অভিযুক্ত মো. জালাল গাজী (৬৫) নামে এক বৃদ্ধকে আটক করেছে র‌্যাব-৮।

মঙ্গলবার বিকালে ওই উপজেলার পাতাবুনিয়া ইউনিয়নের কল্যাণকলস এলাকা থেকে আটক করা হয়।আটকের পর তাকে গলাচিপা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। 

এতদিন ধরে অভিযুক্ত ধর্ষক জালাল গাজী পালিয়ে বেড়াচ্ছিলেন।

গত ১২ এপ্রিল উপজেলা গজালিয়া ব্রীজ সংলগ্ন এলাকায় জালাল গাজীর দোকানের পেছনে ধর্ষিত হয় শিশুটি।

ঘটনার বরাত দিয়ে র‌্যাব-৮’র পটুয়াখালী ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার মো. রবিউল ইসলাম জানান, গত ১২ এপ্রিল জালাল গাজীর দোকানে যায় প্রতিবন্ধী শিশুটি। খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে তার দোকানে পেছনে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন জালাল। 

এসময় শিশুটির চিৎকারে প্রতিবেশি মো. রেজাউল গাজী ঘটনাস্থলে পৌঁছে শিশুটিকে উদ্ধার করেন। ধর্ষক জালাল পালিয়ে যায়।

এ ঘটনার পর ধর্ষকের পক্ষ থেকে আইনি সহায়তা না নিতে হুমকি-ধামকি দেওয়া হয়। পরে ভিকটিম পরিবার গলাচিপা থানায় একটি মামলা করলে ধর্ষক আত্মগোপনে চলে যায়। 

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মঙ্গলবার বিকালে গলাচিপা উপজেলার কল্যাণকলস থেকে জালাল গাজীকে আটক করতে সক্ষম হয় র‌্যাব। আটক জালাল ওই উপজেলার দক্ষিন চরচন্দ্রাইলের মৃত মোন্তাজ গাজীর ছেলে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
আরও খবর
 
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন