মুলাদীতে গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে সাংবাদিকের ওপর হামলা
jugantor
মুলাদীতে গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে সাংবাদিকের ওপর হামলা

  মুলাদী (বরিশাল) প্রতিনিধি  

২১ এপ্রিল ২০২১, ১৪:২৫:৫৬  |  অনলাইন সংস্করণ

মুলাদীতে সাংবাদিকের ওপর হামলাকারী চৌকিদার সোহেল ওরফে গণি খান।

মুলাদীতে গ্রাম পুলিশের (চৌকিদার) বিরুদ্ধে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন মাইটিভির উপজেলার প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম।

তিনি গত সোমবার বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের চিলমারী গ্রামের চৌকিদার সোহেল হোসেন ওরফে গণি খানের চুরি ও ধর্ষণ মামলার তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হন।

এ ঘটনায় সাংবাদিক রাকিবুল ইসলাম বাদী হয়ে মুলাদী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন।

রাকিবুল ইসলাম জানান, নাজিরপুর ইউনিয়নের চিলমারী গ্রামের নাসির খানের পুত্র সোহেল ওরফে গণি খানের বিরুদ্ধে মুলাদী থানায় একাধিক ধর্ষণ, চুরি ও ডাকাতির মামলা রয়েছে।

গত রবিবার চৌকিদার সোহেল হোসেন ওরফে গণি খান বোয়ালিয়া গ্রামের জনৈক মালেক হাওলাদারের বাড়ি থেকে কিছু টাকা ও মোবাইল ফোন চুরি করে।

বিষয়টি নিয়ে মালেক হাওলাদার অভিযোগ করলে মাইটিভির প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম ক্যামেরা নিয়ে সোহেল চৌকিদারের বাড়িতে যান।

এতে চৌকিদার ক্ষিপ্ত হয়ে লোকজন নিয়ে রাকিবুলের ওপর হামলা চালিয়ে ক্যামেরা ভাঙচুর করে। এসময় হামলাকারীরা সাংবাদিকের কাছ থেকে ২০ হাজার ৫০০ টাকা ছিনিয়ে নেয় বলেও অভিযোগ রয়েছে।

পরে স্থানীয়রা রাকিবুলকে উদ্ধার করে ওই দিনই মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় সে বাদী হয়ে চৌকিদার সোহেল খানসহ ৯জনকে আসামি করে অভিযোগ দায়ের করেছেন।

মুলাদী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মজিবুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে মুলাদী থানা অফিসার ইনচার্জ এস এম মাকসুদুর রহমান জানান, সাংবাদিকের ওপর হামলার লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মুলাদীতে গ্রাম পুলিশের নেতৃত্বে সাংবাদিকের ওপর হামলা

 মুলাদী (বরিশাল) প্রতিনিধি 
২১ এপ্রিল ২০২১, ০২:২৫ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মুলাদীতে সাংবাদিকের ওপর হামলাকারী চৌকিদার সোহেল ওরফে গণি খান।
মুলাদীতে সাংবাদিকের ওপর হামলাকারী চৌকিদার সোহেল ওরফে গণি খান। ছবি: সংগৃহীত

মুলাদীতে গ্রাম পুলিশের (চৌকিদার) বিরুদ্ধে সংবাদ সংগ্রহ করতে গিয়ে সন্ত্রাসী হামলার শিকার হয়েছেন মাইটিভির উপজেলার প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম।

তিনি গত সোমবার বিকাল ৫টার দিকে উপজেলার নাজিরপুর ইউনিয়নের চিলমারী গ্রামের চৌকিদার সোহেল হোসেন ওরফে গণি খানের চুরি ও ধর্ষণ মামলার তথ্য সংগ্রহ করতে গিয়ে হামলার শিকার হন। 

এ ঘটনায় সাংবাদিক রাকিবুল ইসলাম বাদী হয়ে মুলাদী থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন। 

রাকিবুল ইসলাম জানান, নাজিরপুর ইউনিয়নের চিলমারী গ্রামের নাসির খানের পুত্র সোহেল ওরফে গণি খানের বিরুদ্ধে মুলাদী থানায় একাধিক ধর্ষণ, চুরি ও ডাকাতির মামলা রয়েছে। 

গত রবিবার চৌকিদার সোহেল হোসেন ওরফে গণি খান বোয়ালিয়া গ্রামের জনৈক মালেক হাওলাদারের বাড়ি থেকে কিছু টাকা ও মোবাইল ফোন চুরি করে।

বিষয়টি নিয়ে মালেক হাওলাদার অভিযোগ করলে মাইটিভির প্রতিনিধি রাকিবুল ইসলাম ক্যামেরা নিয়ে সোহেল চৌকিদারের বাড়িতে যান। 

এতে চৌকিদার ক্ষিপ্ত হয়ে লোকজন নিয়ে রাকিবুলের ওপর হামলা চালিয়ে ক্যামেরা ভাঙচুর করে। এসময় হামলাকারীরা সাংবাদিকের কাছ থেকে ২০ হাজার ৫০০ টাকা ছিনিয়ে নেয় বলেও অভিযোগ রয়েছে। 

পরে স্থানীয়রা রাকিবুলকে উদ্ধার করে ওই দিনই মুলাদী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় সে বাদী হয়ে চৌকিদার সোহেল খানসহ ৯জনকে আসামি করে অভিযোগ দায়ের করেছেন। 

মুলাদী থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মজিবুর রহমান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে মুলাদী থানা অফিসার ইনচার্জ এস এম মাকসুদুর রহমান জানান, সাংবাদিকের ওপর হামলার লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 
 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন