আদালতে দোষ স্বীকার করলেন রফিকুল ইসলাম 
jugantor
আদালতে দোষ স্বীকার করলেন রফিকুল ইসলাম 

  গাজীপুর প্রতিনিধি  

২৮ মে ২০২১, ২০:২৩:৪১  |  অনলাইন সংস্করণ

রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানী গাজীপুর আদালতে নিজের দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন।

শুক্রবার তাকে গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ নাজমুন নাহারের আদালতে হাজির করা হলে তিনি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার শুভাশিষ ধর শুক্রবার বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সংশ্লিষ্টরা জানান, গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজারের কলমেশ্বর এলাকায় একটি কারখানা চত্বরে গত ১০ ফেব্রুয়ারি এক ওয়াজ মাহফিলে সরকারকে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিয়েছিলেন মাদানী। ওই ঘটনায় মাদানীকে গত ৭ এপ্রিল বুধবার নেত্রকোনায় তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।

আটককালে তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এসব মোবাইলে বেশ কিছু বিদেশি পর্নোভিডিও পাওয়া যায়। আটকের পরদিন তাকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন গাছা থানায় হস্তান্তর করা হয়।

এ ঘটনায় ৭ এপ্রিল রাত সোয়া ২টার দিকে গাছা থানায় র‌্যাব-১ এর ডিএডি আব্দুল খালেক বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। র‌্যাব-১ ওই মামলাটির তদন্ত করছিল। তার বিরুদ্ধে গাজীপুরের গাছা ও বাসন থানা ছাড়াও ঢাকার তেজগাঁও থানায় মামলা রয়েছে।

আদালতে দোষ স্বীকার করলেন রফিকুল ইসলাম 

 গাজীপুর প্রতিনিধি 
২৮ মে ২০২১, ০৮:২৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

রাষ্ট্রবিরোধী উস্কানিমূলক ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ বক্তব্য এবং বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগে রফিকুল ইসলাম মাদানী গাজীপুর আদালতে নিজের দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছেন। 

শুক্রবার তাকে গাজীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শেখ নাজমুন নাহারের আদালতে হাজির করা হলে তিনি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। 

গাজীপুর মেট্রোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার শুভাশিষ ধর শুক্রবার বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। 

সংশ্লিষ্টরা জানান, গাজীপুর মহানগরীর বোর্ডবাজারের কলমেশ্বর এলাকায় একটি কারখানা চত্বরে গত ১০ ফেব্রুয়ারি এক ওয়াজ মাহফিলে সরকারকে কটাক্ষ করে বক্তব্য দিয়েছিলেন মাদানী। ওই ঘটনায় মাদানীকে গত ৭ এপ্রিল বুধবার নেত্রকোনায় তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। 

আটককালে তার কাছ থেকে চারটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়। এসব মোবাইলে বেশ কিছু বিদেশি পর্নোভিডিও পাওয়া যায়। আটকের পরদিন তাকে গাজীপুর মেট্রোপলিটন গাছা থানায় হস্তান্তর করা হয়। 

এ ঘটনায় ৭ এপ্রিল রাত সোয়া ২টার দিকে গাছা থানায় র‌্যাব-১ এর ডিএডি আব্দুল খালেক বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। পরে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। র‌্যাব-১ ওই মামলাটির তদন্ত করছিল। তার বিরুদ্ধে গাজীপুরের গাছা ও বাসন থানা ছাড়াও ঢাকার তেজগাঁও থানায় মামলা রয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন