ভূমিহীন আসপিয়াকে জমি দেওয়ার ঘোষণা যুবকের
jugantor
ভূমিহীন আসপিয়াকে জমি দেওয়ার ঘোষণা যুবকের

  আব্দুল মালেক, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি  

১০ ডিসেম্বর ২০২১, ১৩:২৬:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

ভূমিহীন আসপিয়াকে জমি দেওয়ার ঘোষণা যুবকের

মেধাতালিকায় পঞ্চম স্থান অধিকার করেও ভূমিহীন হওয়ার কারণে চাকরি না পাওয়া আসপিয়াকে জমি দান করার ঘোষণা দিয়েছেন গাজীপুরের শ্রীপুরের এক যুবক।

তার নাম মেজবাহ উদ্দিন। গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ধনুয়া গ্রামের মৃত কফিল উদ্দিন মেম্বারের ছেলে তিনি। তিনি উপজেলার জৈনাবাজারের একজন চাল ব্যবসায়ী।

শুক্রবার যুগান্তরকে দেওয়া এক বক্তব্যে মেজবাহ উদ্দিন তার এ অভিপ্রায় জানান।

জৈনাবাজার মেসার্স হাফসা ট্রেডার্সের মালিক মেজবাহ উদ্দিন জানান, পুলিশের ভর্তি পরীক্ষায় পঞ্চম স্থান অধিকার করার পরও, কেবল ভূমিহীন হওয়ার কারণে চাকরি পাচ্ছে না আসপিয়া। অথচ সে স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক। বিষয়টি আমার হৃদয়ে স্পর্শ করেছে। এটি অত্যন্ত লজ্জাকর ও দুঃখজনক। আসপিয়ার চাকরিতে ন্যূনতম যতটুকু জমির প্রয়োজন তা আমি দেব। অথবা আসপিয়ার এলাকায় তা ক্রয় করে দেব।

উল্লেখ্য, বরিশাল জেলায় পুলিশ কনস্টেবল পদে অনলাইনে আবেদন করলে গত ১৪, ১৫ ও ১৬ নভেম্বর বরিশাল জেলা পুলিশ লাইন্সে শারীরিক যোগ্যতা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন আসপিয়া ইসলাম কাজল।

১৭ নভেম্বর লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন। মৌখিক পরীক্ষার ফলে মেধাতালিকায় পঞ্চম হন। ২৬ নভেম্বর জেলা পুলিশ লাইনে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষায়ও উত্তীর্ণ হন আসপিয়া। সবশেষ ২৯ নভেম্বর ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইন সেন্ট্রাল হাসপাতালে চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়। সেখানেও উত্তীর্ণ হন এই তরুণী।

পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি হচ্ছে বলে নিশ্চিত জানতেন আসপিয়া ইসলাম।

কিন্তু স্থায়ী ঠিকানা না থাকার কারণে পুলিশ ভেরিফিকেশনে আটকে যাওয়ায় তার চাকরি হচ্ছে না।

যে কারণে চাকরির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি।

বিষয়টি নিয়ে বুধবার থেকে সরব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।


ভূমিহীন আসপিয়াকে জমি দেওয়ার ঘোষণা যুবকের

 আব্দুল মালেক, শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধি 
১০ ডিসেম্বর ২০২১, ০১:২৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ভূমিহীন আসপিয়াকে জমি দেওয়ার ঘোষণা যুবকের
আসপিয়া ও মেজবাহ উদ্দিন। ছবি: যুগান্তর

মেধাতালিকায় পঞ্চম স্থান অধিকার করেও ভূমিহীন হওয়ার কারণে চাকরি না পাওয়া আসপিয়াকে জমি দান করার ঘোষণা দিয়েছেন গাজীপুরের শ্রীপুরের এক যুবক। 

তার নাম মেজবাহ উদ্দিন। গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার গাজীপুর ইউনিয়নের ধনুয়া গ্রামের মৃত কফিল উদ্দিন মেম্বারের ছেলে তিনি। তিনি উপজেলার জৈনাবাজারের একজন চাল ব্যবসায়ী। 

শুক্রবার যুগান্তরকে দেওয়া এক বক্তব্যে মেজবাহ উদ্দিন তার এ অভিপ্রায় জানান। 

জৈনাবাজার মেসার্স হাফসা ট্রেডার্সের মালিক মেজবাহ উদ্দিন জানান, পুলিশের ভর্তি পরীক্ষায় পঞ্চম স্থান অধিকার করার পরও,  কেবল ভূমিহীন হওয়ার কারণে চাকরি পাচ্ছে না আসপিয়া। অথচ সে স্বাধীন বাংলাদেশের নাগরিক। বিষয়টি আমার হৃদয়ে স্পর্শ করেছে। এটি অত্যন্ত লজ্জাকর ও  দুঃখজনক। আসপিয়ার চাকরিতে ন্যূনতম যতটুকু জমির প্রয়োজন তা আমি দেব। অথবা আসপিয়ার এলাকায় তা ক্রয় করে দেব। 

উল্লেখ্য, বরিশাল জেলায় পুলিশ কনস্টেবল পদে অনলাইনে আবেদন করলে গত ১৪, ১৫ ও ১৬ নভেম্বর বরিশাল জেলা পুলিশ লাইন্সে শারীরিক যোগ্যতা পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হন আসপিয়া ইসলাম কাজল। 

১৭ নভেম্বর লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হন। মৌখিক পরীক্ষার ফলে মেধাতালিকায় পঞ্চম হন। ২৬ নভেম্বর জেলা পুলিশ লাইনে প্রাথমিক স্বাস্থ্য পরীক্ষায়ও উত্তীর্ণ হন আসপিয়া। সবশেষ ২৯ নভেম্বর ঢাকার রাজারবাগ পুলিশ লাইন সেন্ট্রাল হাসপাতালে চূড়ান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা হয়। সেখানেও উত্তীর্ণ হন এই তরুণী।

পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি হচ্ছে বলে নিশ্চিত জানতেন আসপিয়া ইসলাম। 

কিন্তু স্থায়ী ঠিকানা না থাকার কারণে পুলিশ ভেরিফিকেশনে আটকে যাওয়ায় তার চাকরি হচ্ছে না।

যে কারণে চাকরির বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন তিনি। 

বিষয়টি নিয়ে বুধবার থেকে সরব সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। 


 

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন
জেলার খবর
অনুসন্ধান করুন