করোনা উপসর্গ নিয়ে আ’লীগ নেতার মৃত্যু, বাড়ি লকডাউন

  টাঙ্গাইল প্রতিনিধি ০৬ এপ্রিল ২০২০, ২২:১৫:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

টাঙ্গাইল জেলা পরিষদের নির্বাচিত সদস্য আওয়ামী লীগ নেতা জাহাঙ্গীর আলম খান করোনাভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুবরণ করেছেন।

সোমবার সকালে হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন। পরে স্বজনরা তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

করোনাভাইরাস আক্রান্ত ছিলেন কিনা তা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। পরে বিশেষ ব্যবস্থায় তাকে দাফন করা হয়েছে। তার বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

জাহাঙ্গীর আলম খান উপজেলার বাদেমাকুল্লা গ্রামের মৃত আব্বাস আলী খানের ছেলে। তিনি টাঙ্গাইল আদালতে আইন পেশায় নিয়োজিত ও গোপালপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক।

গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা আলীম আল রাজী জানান, জাহাঙ্গীর আলম (৫৫) হৃদরোগ ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। তাকে সোমবার সকালে গোপালপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তার স্বজনরা নিয়ে আসেন। এ সময় তাকে মৃত অবস্থায় পান চিকিৎসকরা।

তিনি আরও জানান, রোববার স্থানীয় একজন ফার্মাসিস্টের কাছ থেকে চিকিৎসা নিয়েছিলেন জাহাঙ্গীর আলম। ওই ফার্মাসিস্টের মাধ্যমে তারা (স্বাস্থ্য কর্মকর্তা) জানতে পেরেছেন জাহাঙ্গীর আলমের শ্বাসকষ্টসহ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার নানা উপসর্গ ছিল। ওই ফার্মাসিস্ট তাকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ারও পরামর্শ দিয়েছিলেন।

আলীম আল রাজী জানান, জাহাঙ্গীর আলম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন কিনা তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসকরা তার নমুনা সংগ্রহ করেছেন। পরীক্ষার জন্য মঙ্গলবার তা ঢাকায় পাঠানো হবে।

এ দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে নমুনা সংগ্রহের জন্য যাওয়া দলটির তত্ত্বাবধানে জাহাঙ্গীর আলম খানকে তার গ্রামের বাড়ি নগদাশিমলা ইউনিয়নের বাদেমাকুল্লা গ্রামের সামাজিক গোরস্থানে দাফন করা হয়। দাফনকালে দূরত্ব বজায় রেখে স্থানীয় এমপি তানভীর হাসান ছোট মনিরসহ তার আত্মীয়-স্বজন ও প্রতিবেশীরা অংশ নেন।

গোপালপুর থানার ওসি মুস্তাফিজুর রহমান জানান, মৃত জাহাঙ্গীর আলম খানের বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা। ওই বাড়ি থেকে কেউ যেন বের না হন এবং অন্য কেউ যেন বাড়িতে প্রবেশ না করে তার নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে।

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

আরও
 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত