নান্দাইল বাজারে গণরোষের শিকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট
jugantor
নান্দাইল বাজারে গণরোষের শিকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

  নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি  

২৪ মে ২০২০, ১৮:৪৪:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের নান্দাইল সদর বাজারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে গণরোষের শিকার হয়েছেন সদ্য যোগদানকৃত সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারমীন ইয়াছমিন। রোববার নান্দাইল সদর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে ফেন্সী সু ষ্টোরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে দোকানের মালিক চান মিয়াকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এতে করে দোকানের মালিকসহ আশপাশের দোকানদারগণ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হন। এক পর্যায়ে উত্তেজনা দেখা দিলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে চলে আসেন।

এ বিষয়ে জানতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সারমীন ইয়াছমিনের সঙ্গে সেল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি অন্য কাজে ব্যস্ত আছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আবদুর রহিম সুজন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নান্দাইল মডেল থানার ওসি মনসুর আহম্মেদ জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

নান্দাইল বাজারে গণরোষের শিকার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট

 নান্দাইল (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি 
২৪ মে ২০২০, ০৬:৪৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ময়মনসিংহের নান্দাইল সদর বাজারে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে গণরোষের শিকার হয়েছেন সদ্য যোগদানকৃত সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সারমীন ইয়াছমিন। রোববার নান্দাইল সদর বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে গিয়ে ফেন্সী সু ষ্টোরে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে দোকানের মালিক চান মিয়াকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেন। এতে করে দোকানের মালিকসহ আশপাশের দোকানদারগণ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের সঙ্গে তর্কে লিপ্ত হন। এক পর্যায়ে উত্তেজনা দেখা দিলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দ্রুত ঘটনাস্থল থেকে চলে আসেন।

এ বিষয়ে জানতে সহকারী কমিশনার (ভূমি) সারমীন ইয়াছমিনের সঙ্গে সেল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি অন্য কাজে ব্যস্ত আছি। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সঙ্গে যোগাযোগ করেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ আবদুর রহিম সুজন বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

নান্দাইল মডেল থানার ওসি মনসুর আহম্মেদ জানান, এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত থানায় কোনো অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।