উপসর্গ ছাড়াই করোনা 'পজিটিভ' রাবির নেপালি শিক্ষার্থীর
jugantor
উপসর্গ ছাড়াই করোনা 'পজিটিভ' রাবির নেপালি শিক্ষার্থীর

  রাজশাহী ব্যুরো  

০৫ জুলাই ২০২০, ২৩:০১:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

কোনো উপসর্গ না থাকলেও করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) অধ্যয়নরত এক নেপালি শিক্ষার্থীর। নিজ দেশে ফিরে যেতে করোনা পরীক্ষা করলে শনিবার তার ফল পজিটিভ আসে। তিনি বর্তমানে রাজশাহী নগরীর খ্রিস্টান মিশন হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন।

করোনা আক্রান্ত ওই শিক্ষার্থীর নাম অভিষেক কুমার সাহা। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘শহীদ মীর আব্দুল কাইয়ূম ইন্টারন্যাশনাল ডরমিটরির ওয়ার্ডেন অধ্যাপক ড. আসাদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ওই শিক্ষার্থীর শরীরে করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না। তিনি দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য নেপাল দূতাবাসে যোগাযোগ করেন। দূতাবাস থেকে তাকে করোনা পরীক্ষা করার জন্য বলা হয়। শনিবার তার নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ আসে। পরে তাকে হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। বর্তমানে শারীরিক অবস্থা স্বাভাবিক আছে।

ডরমিটরি সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে অনেক শিক্ষার্থী বাড়িতে আছেন। কিছু বিদেশি শিক্ষার্থী নিজ দেশে ফিরে গেছেন। বর্তমানে ডরমিটরিতে দেশি-বিদেশি মিলে ৩২ জন শিক্ষার্থী ও গবেষক আছেন।

ডরমিটরির শিক্ষার্থী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় অন্যদের বিষয়ে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে জানতে চাইলে ডরমিটরির ওয়ার্ডেন অধ্যাপক আসাদুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে ডরমিটরির দ্বিতীয় তলায় মাত্র ২ জন নেপালি ছাত্র ছিলেন। একজন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আছেন, অন্যজনকে তার কক্ষে অবস্থান করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। তার যাবতীয় প্রয়োজনে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেছি। তার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে।

উপসর্গ ছাড়াই করোনা 'পজিটিভ' রাবির নেপালি শিক্ষার্থীর

 রাজশাহী ব্যুরো 
০৫ জুলাই ২০২০, ১১:০১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

কোনো উপসর্গ না থাকলেও করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে (রাবি) অধ্যয়নরত এক নেপালি শিক্ষার্থীর। নিজ দেশে ফিরে যেতে করোনা পরীক্ষা করলে শনিবার তার ফল পজিটিভ আসে। তিনি বর্তমানে রাজশাহী নগরীর খ্রিস্টান মিশন হাসপাতালে আইসোলেশনে রয়েছেন।

করোনা আক্রান্ত ওই শিক্ষার্থীর নাম অভিষেক কুমার সাহা। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘শহীদ মীর আব্দুল কাইয়ূম ইন্টারন্যাশনাল ডরমিটরির ওয়ার্ডেন অধ্যাপক ড. আসাদুল ইসলাম।

তিনি বলেন, ওই শিক্ষার্থীর শরীরে করোনার কোনো লক্ষণ ছিল না। তিনি দেশে ফিরে যাওয়ার জন্য নেপাল দূতাবাসে যোগাযোগ করেন। দূতাবাস থেকে তাকে করোনা পরীক্ষা করার জন্য বলা হয়। শনিবার তার নমুনা পরীক্ষায় পজিটিভ আসে। পরে তাকে হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। বর্তমানে শারীরিক অবস্থা স্বাভাবিক আছে।

ডরমিটরি সূত্রে জানা গেছে, করোনার কারণে অনেক শিক্ষার্থী বাড়িতে আছেন। কিছু বিদেশি শিক্ষার্থী নিজ দেশে ফিরে গেছেন। বর্তমানে ডরমিটরিতে দেশি-বিদেশি মিলে ৩২ জন শিক্ষার্থী ও গবেষক আছেন।

ডরমিটরির শিক্ষার্থী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় অন্যদের বিষয়ে কি ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে জানতে চাইলে ডরমিটরির ওয়ার্ডেন অধ্যাপক আসাদুল ইসলাম বলেন, বর্তমানে ডরমিটরির দ্বিতীয় তলায় মাত্র ২ জন নেপালি ছাত্র ছিলেন। একজন আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আছেন, অন্যজনকে তার কক্ষে অবস্থান করার জন্য নির্দেশ দিয়েছি। তার যাবতীয় প্রয়োজনে আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে বলেছি। তার বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়েছে।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস