চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস: গবেষণা
jugantor
চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস: গবেষণা

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৩:১০:০২  |  অনলাইন সংস্করণ

চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস: গবেষণা

‘করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীন’ এমন তথ্য অনেকটা প্রতিষ্ঠিত হলেও মার্কিন বিজ্ঞানীরা অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করে দেখেছেন, চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল।

গত ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের রেডক্রস কর্মীরা বেশ কয়েকজনের রক্ত পরীক্ষা করে করোনার এন্টিবডি পেয়েছেন। এতে তারা সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়ায়।

দ্য হিলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৭ হাজার ৩৭৯ ব্যক্তির রক্ত পরীক্ষা করে ১০৬টির মধ্যে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি পাওয়া গেছে।

এর মধ্যে গত বছরের ১৩ থেকে ১৬ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া, ওয়াশিংটনসহ ৯ রাজ্যের নাগরিকদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে রেডক্রস।

তাদের মধ্যে ৩৯ জনের রক্তে করোনার অ্যান্টিবডি পাওয়া যায়। এটি প্রমাণ করে যে, ২০ জানুয়ারির আগেই তারা কোভিড-১৯ আক্রান্ত হন।

৩০ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি নাগাদ সংগ্রহ করা ৬৭টি স্যাম্পলও পজিটিভ।

যুক্তরাষ্ট্রের ইনফেকশন ডিজিস সোসাইটির গবেষণাটি সম্প্রতি অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস থেকে প্রকাশিত হয়।

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন সেন্টার ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেন্টিভের (সিডিসি) গবেষণা অনুযায়ী, চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে গত ডিসেম্বরে করোনা ছড়ানোর এ তথ্য পাওয়া গেছে চীনের সংক্রমণের তথ্য লুকানো সংক্রান্ত ফাঁস হওয়া কিছু নথি থেকে।

সিডিসির গবেষকরা ১৩ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মার্কিন ডোনারদের দেয়া স্যাম্পলের ১ দশমিক ৪ শতাংশে করোনার অ্যান্টিবডি পেয়েছেন। রেডক্রস ওই ব্লাড সংগ্রহ করে।

আর আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর জানানো হয় ১৯ জানুয়ারি। এর ১২ দিন আগে ৮ জানুয়ারি চীনে নিউমোনিয়ার মতো ভাইরাস পাওয়ার ঘোষণা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস চীনের বানানো ও ইচ্ছাকৃতভাবে ছড়িয়ে দেয়া বলে দাবি করে আসছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এমনকি একে তিনি ‘চায়না ভাইরাস’ বলে উপহাসও করেছেন বহুবার।

চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস: গবেষণা

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৩ ডিসেম্বর ২০২০, ০১:১০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে ছড়িয়েছে করোনাভাইরাস: গবেষণা
ফাইল ছবি

‘করোনাভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীন’ এমন তথ্য অনেকটা প্রতিষ্ঠিত হলেও মার্কিন বিজ্ঞানীরা অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করে দেখেছেন, চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছিল। 

গত ডিসেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রের রেডক্রস কর্মীরা বেশ কয়েকজনের রক্ত পরীক্ষা করে করোনার এন্টিবডি পেয়েছেন।  এতে তারা সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছেন যে, চীনের আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়ায়। 

দ্য হিলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ৭ হাজার ৩৭৯ ব্যক্তির রক্ত পরীক্ষা করে ১০৬টির মধ্যে করোনাভাইরাসের অ্যান্টিবডি পাওয়া গেছে। 

এর মধ্যে গত বছরের ১৩ থেকে ১৬ ডিসেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া, ওয়াশিংটনসহ ৯ রাজ্যের নাগরিকদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে রেডক্রস। 

তাদের মধ্যে ৩৯ জনের রক্তে করোনার অ্যান্টিবডি পাওয়া যায়। এটি প্রমাণ করে যে, ২০ জানুয়ারির আগেই তারা কোভিড-১৯ আক্রান্ত হন। 

৩০ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি নাগাদ সংগ্রহ করা ৬৭টি স্যাম্পলও পজিটিভ।

যুক্তরাষ্ট্রের ইনফেকশন ডিজিস সোসাইটির গবেষণাটি সম্প্রতি অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটি প্রেস থেকে প্রকাশিত হয়।  

ডেইলি মেইলের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মার্কিন সেন্টার ফর ডিজেজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেন্টিভের (সিডিসি) গবেষণা অনুযায়ী, চীনের কয়েক সপ্তাহ আগেই যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাস ছড়িয়েছে। 

যুক্তরাষ্ট্রে গত ডিসেম্বরে করোনা ছড়ানোর এ তথ্য পাওয়া গেছে চীনের সংক্রমণের তথ্য লুকানো সংক্রান্ত ফাঁস হওয়া কিছু নথি থেকে। 

সিডিসির গবেষকরা ১৩ ডিসেম্বর থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত মার্কিন ডোনারদের দেয়া স্যাম্পলের ১ দশমিক ৪ শতাংশে করোনার অ্যান্টিবডি পেয়েছেন। রেডক্রস ওই ব্লাড সংগ্রহ করে। 

আর আনুষ্ঠানিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রথম করোনাভাইরাস আক্রান্তের খবর জানানো হয় ১৯ জানুয়ারি। এর ১২ দিন আগে ৮ জানুয়ারি চীনে নিউমোনিয়ার মতো ভাইরাস পাওয়ার ঘোষণা দেয় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাস চীনের বানানো ও ইচ্ছাকৃতভাবে ছড়িয়ে দেয়া বলে দাবি করে আসছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। এমনকি একে তিনি ‘চায়না ভাইরাস’ বলে উপহাসও করেছেন বহুবার।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস