টিকা উপহার পাঠানোয় মোদিকে অভিনন্দন জিএম কাদেরের
jugantor
টিকা উপহার পাঠানোয় মোদিকে অভিনন্দন জিএম কাদেরের

  যুগান্তর প্রতিবেদন  

২৩ জানুয়ারি ২০২১, ১৬:০২:০১  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের টিকা উপহার পাঠানোয় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

শনিবার জাতীয় পার্টির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভারত সরকারের উপহার ২০ লাখ ডোজ ‘কোভিশিল্ড’ বাংলাদেশকে দেওয়ায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন জিএম কাদের।

অভিনন্দন বার্তায় ভারত সরকারের পাশাপাশি দেশটির জনসাধারণের প্রতিও শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি।

জিএম কাদের বলেন, মহামারীকালে ভারত সরকারের এই উপহার বাংলাদেশের জনগণ কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণে রাখবে। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার এই ভ্যাকসিন পেয়ে দেশের মানুষ অত্যন্ত খুশি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনার ছোবলে বিশ্বব্যাপী যখন ভয়ার্ত পরিবেশ তখন ভারত সরকারের এই উপহার প্রমাণ করেছে, ভারত ও বাংলাদেশের বন্ধুত্ব অকৃত্রিম এবং অনুপম।

‘আগামী দিনে বন্ধু প্রতীম ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে।’

গত বৃহস্পতিবার ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ ডোজ টিকা আসে। এছাড়া বাংলাদেশ সরকারিভাবেও ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে তিন কোটি ডোজ টিকা কিনছে, যার প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ টিকা ২৫ জানুয়ারির মধ্যে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

টিকা উপহার পাঠানোয় মোদিকে অভিনন্দন জিএম কাদেরের

 যুগান্তর প্রতিবেদন 
২৩ জানুয়ারি ২০২১, ০৪:০২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

করোনাভাইরাসের টিকা উপহার পাঠানোয় ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যান ও বিরোধী দলীয় উপনেতা গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

শনিবার জাতীয় পার্টির এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ভারত সরকারের উপহার ২০ লাখ ডোজ ‘কোভিশিল্ড’ বাংলাদেশকে দেওয়ায় দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়েছেন জিএম কাদের।

অভিনন্দন বার্তায় ভারত সরকারের পাশাপাশি দেশটির জনসাধারণের প্রতিও শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন তিনি।

জিএম কাদের বলেন, মহামারীকালে ভারত সরকারের এই উপহার বাংলাদেশের জনগণ কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণে রাখবে। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার এই ভ্যাকসিন পেয়ে দেশের মানুষ অত্যন্ত খুশি হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, করোনার ছোবলে বিশ্বব্যাপী যখন ভয়ার্ত পরিবেশ তখন ভারত সরকারের এই উপহার প্রমাণ করেছে, ভারত ও বাংলাদেশের বন্ধুত্ব অকৃত্রিম এবং অনুপম। 

‘আগামী দিনে বন্ধু প্রতীম ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে।’

গত বৃহস্পতিবার ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটে তৈরি অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২০ লাখ ডোজ টিকা আসে। এছাড়া বাংলাদেশ সরকারিভাবেও ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে তিন কোটি ডোজ টিকা কিনছে, যার প্রথম চালানে ৫০ লাখ ডোজ টিকা ২৫ জানুয়ারির মধ্যে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস

২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২১