সকল চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দেবে ইন্টেগ্রো
jugantor
সকল চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দেবে ইন্টেগ্রো

   

১৯ মে ২০২০, ২৩:৩১:২২  |  অনলাইন সংস্করণ

ইন্টেগ্রো ফার্মা, বাংলাদেশ, বর্তমান সময়ে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পেশায় নিয়োজিত দেশের সকল চিকিৎসকদের পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকোয়েপমেন্টসহ বিভিন্ন প্রকার স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী উপহার দিচ্ছে। বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সকল মেম্বাররা এ উপহার সামগ্রীর আওতায় থাকবে বলে প্রতিষ্ঠানটি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে। এ পর্যন্ত প্রায় ১৩ শত ডাক্তারের কাছে পৌঁছেছে এ স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী।

ইন্টেগ্রো ফার্মা, বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এবং বাংলাদেশ প্যালিয়েটিভ কেয়ার সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ডা. জেরিন দেলওয়ার হুসাইন জানান প্রতিটি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর প্যাকেটে রয়েছে একটি করে নিজস্ব সুরক্ষা স্যুট, একটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার, দুটি হ্যান্ড গ্লাবস এবং একটি উন্নত মানের এন-৯৫ মাস্ক।

প্রতিটি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের নির্দেশনা মেনে তৈরি ও সংগৃহীত হয়েছে বলেও তিনি জানান। ইন্টেগ্রোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. জেরিন জানান, প্রায় প্রতিদিন আমরা ডাকযোগে ও সরাসরি বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে আমাদের এ স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপহার সামগ্রীগুলো পৌঁছে দিচ্ছি।

আবার কেউ কেউ আমাদের অফিস থেকেও তাদের পরিচয়পত্র ও বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সনদপত্র দেখিয়ে উপহার সংগ্রহ করছেন। ইন্টেগ্রোর এই প্রধান কর্মকর্তা আরও বলেন, যারা আমাদের অফিসে আসতে পারছেন না এবং ঢাকার বাইরে আছেন, ডাকযোগে পৌঁছে দিচ্ছি তাদের উপহারগুলো।

তিনি বলেন, আমরা ব্যক্তিগত চিকিৎসক ছাড়াও বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়েও এ উপহারগুলো যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি। সেইসঙ্গে যেসব ডাক্তার করোনা চিকিৎসার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত রয়েছেন তাদেরকে অতিসত্বর ইন্টেগ্রো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করারও অনুরোধ জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

ডা. জেরিন বলেন, দেশের এ অবস্থায় চিকিৎসকরা সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছেন। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা দানকারী সকল প্রতিষ্ঠানসমূহ ও যারা সুচিকিৎসা নিশ্চিত করছেন তাদের পাশে থাকতে পেরে আমরা সত্যি খুবই আনন্দিত। তাদের এ প্রচেষ্টা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।

ড. জেরিন পেশায় একজন কার্ডিওথোরাসিক অ্যানাস্থেসিওলজিস্ট, সেইসাথে ফার্মা প্রডাক্ট অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন ইউনিট ইন্টেগ্রো ফার্মা গ্রুপ লিমিটেডের ফাউন্ডার ডিরেক্টর এবং সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।

বাংলাদেশের একজন বৈচিত্র্যময় এবং অগ্রগামী হেলথকেয়ার পেশাজীবী, উদ্যোক্তা ও সমাজসেবী হিসেবে তিনি স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনায় উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন সাধন করেছেন, বিশেষত দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ রোগীদের মধ্যে রোগের নিরাময় বিষয়ক প্রচারণা এবং বাংলাদেশে কম খরচে উন্নত প্রযুক্তির আন্তর্জাতিক ফার্মা পণ্য ও মেডিক্যাল ডিভাইস নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন।

সফল এ চিকিৎসক ও জোন্তা ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক ২৫ এর ভাইস এরিয়া ডিরেক্টর ড. জেরিন বাংলাদেশের প্রথম একজন নারী ফার্মা ব্যবসায়িক উদ্যোক্তা বলেও তিনি জানান। এছাড়াও তিনি সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য কংগ্রেসের ক্ষমতাধর বিশ্ব সুনামধন্য ১০১ জন চিকিৎসকের মধ্যে একজন নির্বাচিত হন।

সকল চিকিৎসকদের স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী দেবে ইন্টেগ্রো

  
১৯ মে ২০২০, ১১:৩১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

ইন্টেগ্রো ফার্মা, বাংলাদেশ, বর্তমান সময়ে সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ পেশায় নিয়োজিত দেশের সকল চিকিৎসকদের পার্সোনাল প্রোটেক্টিভ ইকোয়েপমেন্টসহ বিভিন্ন প্রকার স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী উপহার দিচ্ছে। বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সকল মেম্বাররা এ উপহার সামগ্রীর আওতায় থাকবে বলে প্রতিষ্ঠানটি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে। এ পর্যন্ত প্রায় ১৩ শত ডাক্তারের কাছে পৌঁছেছে এ স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী।

ইন্টেগ্রো ফার্মা, বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) এবং বাংলাদেশ প্যালিয়েটিভ কেয়ার সোসাইটির সাধারণ সম্পাদক ডা. জেরিন দেলওয়ার হুসাইন জানান প্রতিটি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রীর প্যাকেটে রয়েছে একটি করে নিজস্ব সুরক্ষা স্যুট, একটি হ্যান্ড স্যানিটাইজার, দুটি হ্যান্ড গ্লাবস এবং একটি উন্নত মানের এন-৯৫ মাস্ক।

প্রতিটি স্বাস্থ্য সুরক্ষা সামগ্রী ওয়ার্ল্ড হেলথ অর্গানাইজেশনের নির্দেশনা মেনে তৈরি ও সংগৃহীত হয়েছে বলেও তিনি জানান। ইন্টেগ্রোর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ডা. জেরিন জানান, প্রায় প্রতিদিন আমরা ডাকযোগে ও সরাসরি বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়ে আমাদের এ স্বাস্থ্য সুরক্ষা উপহার সামগ্রীগুলো পৌঁছে দিচ্ছি।

আবার কেউ কেউ আমাদের অফিস থেকেও তাদের পরিচয়পত্র ও বাংলাদেশ মেডিকেল এন্ড ডেন্টাল কাউন্সিলের সনদপত্র দেখিয়ে উপহার সংগ্রহ করছেন। ইন্টেগ্রোর এই প্রধান কর্মকর্তা আরও বলেন, যারা আমাদের অফিসে আসতে পারছেন না এবং ঢাকার বাইরে আছেন, ডাকযোগে পৌঁছে দিচ্ছি তাদের উপহারগুলো।

তিনি বলেন, আমরা ব্যক্তিগত চিকিৎসক ছাড়াও বিভিন্ন হাসপাতালে গিয়েও এ উপহারগুলো যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি। সেইসঙ্গে যেসব ডাক্তার করোনা চিকিৎসার সঙ্গে সরাসরি যুক্ত রয়েছেন তাদেরকে অতিসত্বর ইন্টেগ্রো কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করারও অনুরোধ জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা।

ডা. জেরিন বলেন, দেশের এ অবস্থায় চিকিৎসকরা সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় আছেন। করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা সেবা দানকারী সকল প্রতিষ্ঠানসমূহ ও যারা সুচিকিৎসা নিশ্চিত করছেন তাদের পাশে থাকতে পেরে আমরা সত্যি খুবই আনন্দিত। তাদের এ প্রচেষ্টা সবসময় অব্যাহত থাকবে বলেও তিনি জানান।

ড. জেরিন পেশায় একজন কার্ডিওথোরাসিক অ্যানাস্থেসিওলজিস্ট, সেইসাথে ফার্মা প্রডাক্ট অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন ইউনিট ইন্টেগ্রো ফার্মা গ্রুপ লিমিটেডের ফাউন্ডার ডিরেক্টর এবং সিইও হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। 

বাংলাদেশের একজন বৈচিত্র্যময় এবং অগ্রগামী হেলথকেয়ার পেশাজীবী, উদ্যোক্তা ও সমাজসেবী হিসেবে তিনি স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থাপনায় উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন সাধন করেছেন, বিশেষত দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ রোগীদের মধ্যে রোগের নিরাময় বিষয়ক প্রচারণা এবং বাংলাদেশে কম খরচে উন্নত প্রযুক্তির আন্তর্জাতিক ফার্মা পণ্য ও মেডিক্যাল ডিভাইস নিয়ে আসার ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছেন।

সফল এ চিকিৎসক ও জোন্তা ইন্টারন্যাশনাল ডিস্ট্রিক ২৫ এর ভাইস এরিয়া ডিরেক্টর ড. জেরিন বাংলাদেশের প্রথম একজন নারী ফার্মা ব্যবসায়িক উদ্যোক্তা বলেও তিনি জানান। এছাড়াও তিনি সম্প্রতি বিশ্ব স্বাস্থ্য কংগ্রেসের ক্ষমতাধর বিশ্ব সুনামধন্য ১০১ জন চিকিৎসকের মধ্যে একজন নির্বাচিত হন।