নতুন চিন্তাই নতুন সৌন্দর্য্যের আবিষ্কারক: পিন্টু ঘোষ

  মিল্কী রেজা ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৫:২০ | অনলাইন সংস্করণ

পিন্টু ঘোষ। ছবি: যুগান্তর
পিন্টু ঘোষ। ছবি: যুগান্তর

সৃষ্টি তখনই মানুষের হৃদয় ছোঁয়, যখন তা সৌন্দর্যের চারকূল ছাপিয়ে যায়। হ্যা, প্রতিটি সৃষ্টি প্রতিটি নির্মাণের ক্ষেত্রে প্রয়োজনীয় সবগুলো উপাদানের সঠিক মিলন খুবই জরুরী। যেমন একটি সিনেমা নির্মাণে সেটির পরিচালনা, প্রেক্ষাপট, মেজাজ, গল্প, সঙ্গীত, অভিনেতা-অভিনেত্রী, চিত্রধারণ এবং একরাশ নিবেদন- একটির সঙ্গে আরেকটির ওতোঃপ্রতো সম্পর্ক।

কোন একটিতে কমতিই নির্মাণের মানে ঘাটতি। তেমনি একটি নির্মাণ ‘ফাগুন হাওয়ায়’। সম্প্রতি দেশের ৫২টি সিনেমা হলে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমাটি ইতিমধ্যেই দর্শকমহলে ব্যাপক সাড়া ফেলে দিয়েছে। বিশিষ্ট অভিনেতা এবং পরিচালক তৌকির আহমেদ নির্মিত এই সিনেমাটির ইতিবাচক প্রতিক্রিয়ায় মুখর দর্শকেরা।

৫২’র ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে নির্মিত এই ছবিটিতে সঙ্গীত পরিচালনা করেছেন বিশিষ্ট সঙ্গীত পরিচালক, গীতিকার, সুরকার ও সঙ্গীতশিল্পী পিন্টু ঘোষ এবং রোকন ইমন। ছবি মুক্তি পাওয়ার আগেই ইউটউবে মুক্তি পায় ছবিটির কয়েকটি গান যা বিশেষ প্রশংসার দাবিদার।

গবেষণা ধর্মী সঙ্গীত আয়োজনে সফল তাঁরা। একটি মিষ্টি প্রেমের গান, চারটি লালনগীতির চমৎকার উপস্থাপন এবং বিশেষ করে দুটি বাংলা বন্দিস ছবিটিতে এনেছে ভিন্ন মাত্রা। মুক্তিযুদ্ধের প্রেক্ষাপট, সঙ্গে লালনগীতি, বাংলা বন্দিস, মিষ্টি করে প্রেমের উপস্থাপন। এই মিশ্রণগুলো একদমই সচরাচর নয়। এই নিয়ে কথা বলার সুযোগ হয়েছিল ছবিটির সঙ্গীত পরিচালক পিন্টু ঘোষের সঙ্গে-

- কেমন আছেন?

- অবশ্যই ভালো।

- ‘ফাগুন হাওয়ায়’-এর সাফল্য নিয়ে কি বলবেন?

- আমাদের চোখে একটি ছবি তখনই সফল যখন তার নির্মাণ, গল্প, অভিনয়, সঙ্গীত সবকিছু মিলেই তা দর্শক মনে সাড়া দেয়। সে দিক দিয়ে ‘ফাগুন হাওয়ায়’ একটি সফল ছবি।

- ‘ফাগুন হাওয়ায়’-এর সঙ্গীত নিয়ে কিছু বলুন।

- ‘ফাগুন হাওয়ায়’ ৫২'র ভাষা আন্দোলনের প্রেক্ষাপটে নির্মিত একটি ছবি। গল্পের মেজাজ ঠিক রেখেই সঙ্গীতে একটু ভিন্ন মাত্রা যোগ করার চেষ্টা করেছি।

- কী কী পর্যায়ের সঙ্গীত আয়োজিত হয়েছে ছবিটিতে?

- চারটা লালনগীতি, দুটো বাংলা বন্দিস এবং একটি মিষ্টি প্রেমের গান।

- সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে কে রয়েছেন?

- আমি নিজেই রয়েছি। সঙ্গে রয়েছেন নন্দিতা মাহমুদ এবং সুকন্যা মজুমদার ঘোষ।

- শিল্পীদের কাজ নিয়ে কিছু বলুন।

- নন্দিতা মাহমুদ এবং সুকন্যা মজুমদার ঘোষ দুজনই শিল্পী হিসেবে আমার খুব পছন্দের। এবং তাঁদের দুজনের কাজই প্রসংশার দাবিদার। তাদের কন্ঠে এবং গায়কীতে গানের চাহিদা পূরণ হয় বলে আমি মনে করি।

- ভাষা আন্দোলন অথবা মুক্তিযুদ্ধের সিনেমার ক্ষেত্রে আমরা সাধারণত এ ধরনের গান দেখিনি এর আগে। অথচ ‘ফাগুন হাওয়ায়’ সিনেমাটিতে প্রেমের গান তো রয়েছেই; সঙ্গে রয়েছে বাংলা বন্দিস। বিষয়টি নতুন নয়কি?

-হ্যা। নতুন চিন্তাই নতুন সৌন্দর্য্যের আবিষ্কারক। আর আমাদের মনে হয়েছে এটা গল্পের চাহিদা। সে চাহিদাকে গতানুগতিক সহজলভ্য প্রসাদে মিটাতে চাইনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×