শামীমের ঈদ উপহার ‘যদি থাকে নসিবে’
jugantor
শামীমের ঈদ উপহার ‘যদি থাকে নসিবে’

  বিনোদন ডেস্ক  

০৭ আগস্ট ২০১৯, ২০:৪১:১৯  |  অনলাইন সংস্করণ

শামীমের ঈদ উপহার ‘যদি থাকে নসিবে’

ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে খুশি। বিনোদনপ্রেমীদের সঙ্গে সেই আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে চান তরুণ নির্মাতা শামীম হোসেন। আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে তিনি দর্শকদের জন্য নিয়ে আসছেন শর্টফিল্ম ‘যদি থাকে নসিবে’।

শর্ট ফিল্মটি হাই স্পিড প্রোডাকশন ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দেয়া হবে। প্রধান সহকারী পরিচালক ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বিজয় রায়।

কমেডি ধাচের এই শর্টফিল্মে উঠে এসেছে ট্রায়াঙ্গাল প্রেমের গল্প।

শামীম হোসেনের রচনা ও পরিচালনায় শর্টফিল্মে মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন লাভলী আক্তার, শামীম হোসেন, লিটন খান, মিলন খান, শর্মী ইসলাম ও তৈয়ব আলী টিটু।

এ সম্পর্কে নির্মাতা শামীম হোসেন বলেন, ‘খুব যত্ন নিয়ে শর্টফিল্মটি তৈরি করেছি। সবাই বেশ মজা করেই কাজ করেছেন। ভবিষ্যতে আরও ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে চাই দর্শকদের। আশা করি, আমাদের ক্ষুদ্র পরিসরের এই প্রচেষ্টা দর্শকদের নিরাশ করবে না।’

আরেক অভিনেতা মিলন খান বলেন, ‘শামীম ভাইয়ের সাথে প্রথম কাজ করলাম। অসাধারণ গল্প। আমার চরিত্রটা খুব উপভোগ করেছি।’

নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করা শর্মী ইসলাম বলেন, ‘গল্পটা আমার ভীষণ ভালো লেগেছে। সংলাপও অসাধারণ। আশা করি মেকিংটাও ভালো হবে। গল্পটা শুনেই এতে কাজ করতে রাজি হয়ে যায়। এটুকু বলতে পারি যে, দর্শক বিরক্ত হবে না।’

শামীমের ঈদ উপহার ‘যদি থাকে নসিবে’

 বিনোদন ডেস্ক 
০৭ আগস্ট ২০১৯, ০৮:৪১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
শামীমের ঈদ উপহার ‘যদি থাকে নসিবে’
যদি থাকে নসিবে শর্টফিল্মের একটি দৃশ্য। ছবি: যুগান্তর

ঈদ মানে আনন্দ। ঈদ মানে খুশি। বিনোদনপ্রেমীদের সঙ্গে সেই আনন্দ ভাগাভাগি করে নিতে চান তরুণ নির্মাতা শামীম হোসেন।  আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে তিনি দর্শকদের জন্য নিয়ে আসছেন শর্টফিল্ম ‘যদি থাকে নসিবে’। 

শর্ট ফিল্মটি হাই স্পিড প্রোডাকশন ইউটিউব চ্যানেলে মুক্তি দেয়া হবে। প্রধান সহকারী পরিচালক ও সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন বিজয় রায়।

কমেডি ধাচের এই শর্টফিল্মে উঠে এসেছে ট্রায়াঙ্গাল প্রেমের গল্প। 

শামীম হোসেনের রচনা ও পরিচালনায় শর্টফিল্মে মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন লাভলী আক্তার, শামীম হোসেন, লিটন খান, মিলন খান, শর্মী ইসলাম ও তৈয়ব আলী টিটু।

এ সম্পর্কে নির্মাতা শামীম হোসেন বলেন, ‘খুব যত্ন নিয়ে শর্টফিল্মটি তৈরি করেছি। সবাই বেশ মজা করেই কাজ করেছেন। ভবিষ্যতে আরও ভালো ভালো কাজ উপহার দিতে চাই দর্শকদের। আশা করি, আমাদের ক্ষুদ্র পরিসরের এই প্রচেষ্টা দর্শকদের নিরাশ করবে না।’

আরেক অভিনেতা মিলন খান বলেন, ‘শামীম ভাইয়ের সাথে প্রথম কাজ করলাম। অসাধারণ গল্প। আমার চরিত্রটা খুব উপভোগ করেছি।’ 

নায়িকার ভূমিকায় অভিনয় করা শর্মী ইসলাম বলেন, ‘গল্পটা আমার ভীষণ ভালো লেগেছে। সংলাপও অসাধারণ। আশা করি মেকিংটাও ভালো হবে। গল্পটা শুনেই এতে কাজ করতে রাজি হয়ে যায়। এটুকু বলতে পারি যে, দর্শক বিরক্ত হবে না।’