ইসলাম গ্রহণের ঘোষণা দিয়ে যা বললেন জনপ্রিয় এই ফরাসি মডেল
jugantor
ইসলাম গ্রহণের ঘোষণা দিয়ে যা বললেন জনপ্রিয় এই ফরাসি মডেল

  যুগান্তর ডেস্ক  

০৮ নভেম্বর ২০২২, ২২:৪৮:২৫  |  অনলাইন সংস্করণ

মেরিন এল হিমার

ইসলাম গ্রহণ করেছেন ফরাসি টিভি তারকা ও মডেল মেরিন এল হিমার। ইসলাম গ্রহণের মুহূর্তগুলো তার জীবনের সবচেয়ে আনন্দের দিন ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি।

ইনস্টাগ্রামে দেওয়া একটি পোস্টে মেরিন এল হিমার বলেন, ‘এ মুহূর্তে অনুভব করা সুখ এবং আবেগের তীব্রতা প্রকাশ করার জন্য যথেষ্ট শক্তিশালী কোনো শব্দ আমার জানা নেই। আমি মনে করি এই আধ্যাত্মিক যাত্রা ইনশাআল্লাহ আমাকে পথ দেখাবে এবং আমার জীবনে উন্নতি বয়ে নিয়ে আসবে।’

আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, কয়েক মাস আগে ইসলামে ধর্মান্তরিত হলেও মেরিন গত বুধবার (২ নভেম্বর) তা প্রকাশ করেন। এদিন ফ্রান্সের একটি মসজিদে ইসলাম গ্রহণের ভিডিও প্রকাশ করে ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন তিনি।

মরোক্কান-মিশরীয় বংশোদ্ভূত মেরিন এল হিমার ১৯৯৩ সালের জুলাই মাসে দক্ষিণ ফ্রান্সের বোর্দোতে জন্মগ্রহণ করেন। ওশেন এল হিমার নামে তার একটি যমজ বোন রয়েছে। তবে হিমার তার সৎ বাবার কাছে বেড়ে উঠেছেন।

হিমার ফ্রান্সের রিয়েলিটি টেলিভিশন শো ‘লেস প্রিন্সেস অ্যাট লেস প্রিন্সেস ডি ল’আমোরে’ (প্রেমের রাজকুমারী ও রাজকুমারীরা) অংশ নিয়েছিলেন। ‘প্রিন্সেস অব লাভ’ এবং ‘মার্সেলিওনেস ইন দুবাই’ নামের টিভি রিয়েলিটি শোর মাধ্যমে ব্যাপক খ্যাতি লাভ করেন এ তারকা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক ও টিকটকে তার লাখ লাখ অনুসারী।

ইসলামগ্রহণ প্রসঙ্গে তার মন্তব্য, এটি আমার হৃদয় ও যুক্তির মিলিত একটি পছন্দ ছিল। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে মেরিন হিমার বলেন, আমি মনে করি এখন আমি আমার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর দিনগুলো কাটাচ্ছি।

ইসলাম ধর্মে ফেরার বিষয়ে মেরিন জানান, এক সময় তিনি তার নিজের বাবা সম্পর্কে কিছু গবেষণা করেন এবং তারা মূলত কোথা থেকে এসেছেন তা নিয়ে অনুসন্ধান করেন। এই সময়েই তিনি ইসলামের সঙ্গে পরিচিত হন এবং এক পর্যায়ে তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন।

ইনস্টাগ্রামের পোস্টে ফরাসী এ তারকা মডেল লেখেন, ‘আপনাকে একাই চলতে হবে। বন্ধু নেই, পরিবার নেই, সঙ্গীও নেই। শুধুমাত্র আপনি এবং আল্লাহ থাকবেন। আপনাদের অনেকে হয়ত বিষয়টি জানেন। অনেকে প্রশ্ন করেন। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে কখনো ঘোষণা করিনি যে, আমি কয়েক মাস আগে ইসলাম গ্রহণ করেছি।’

নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে তিনি লেখেন, ‘আমার মূল বার্তা হলো, অন্য ধর্ম যাই হোক তা গ্রহণে লজ্জার কিছু নেই। এটি সবার মৌলিক অধিকারের অন্যতম, যা অবাধে চর্চার সুযোগ থাকা দরকার। অনেকেই লক্ষ্য করেছেন যে, গত বছর অনেক কিছুর পরিবর্তন ঘটেছে। আমার মধ্যেও ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। আমার অগ্রাধিকারের অনুভূতি পর্যালোচনা করেছি। তাছাড়া পেশাগত বা ব্যক্তিগত বিষয়ে জীবনের পছন্দ নিয়ে পুনরায় ভেবেছি। যারা এ বিষয়ে প্রশংসা করবেন বা অন্তত শ্রদ্ধা জানাবেন সবাইকে ধন্যবাদ।’

ইসলাম গ্রহণের পর সৌদি আরবের মক্কাও সফর করেন মেরিন এল হিমার। পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণে হিজাব পরিহিত অবস্থায় কয়েকটি ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন তিনি।

মেরিন এল হিমারের ইসলামে আগমনকে তার অনুসারীরা ব্যাপকভাবে স্বাগত জানিয়েছে। অনুসারীদের বড় একটি অংশ এই খবরে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। তিনি তার পছন্দের পদক্ষেপকে সমর্থন করায় ভক্ত-অনুসারীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

ইসলাম গ্রহণের ঘোষণা দিয়ে যা বললেন জনপ্রিয় এই ফরাসি মডেল

 যুগান্তর ডেস্ক 
০৮ নভেম্বর ২০২২, ১০:৪৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
মেরিন এল হিমার
পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণে হিজাব পরিহিত অবস্থায় কয়েকটি ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন মেরিন এল হিমার।

ইসলাম গ্রহণ করেছেন ফরাসি টিভি তারকা ও মডেল মেরিন এল হিমার। ইসলাম গ্রহণের মুহূর্তগুলো তার জীবনের সবচেয়ে আনন্দের দিন ছিল বলে জানিয়েছেন তিনি। 

ইনস্টাগ্রামে দেওয়া একটি পোস্টে মেরিন এল হিমার বলেন, ‘এ মুহূর্তে অনুভব করা সুখ এবং আবেগের তীব্রতা প্রকাশ করার জন্য যথেষ্ট শক্তিশালী কোনো শব্দ আমার জানা নেই। আমি মনে করি এই আধ্যাত্মিক যাত্রা ইনশাআল্লাহ আমাকে পথ দেখাবে এবং আমার জীবনে উন্নতি বয়ে নিয়ে আসবে।’

আনাদোলু এজেন্সির খবরে বলা হয়, কয়েক মাস আগে ইসলামে ধর্মান্তরিত হলেও মেরিন গত বুধবার (২ নভেম্বর) তা প্রকাশ করেন। এদিন ফ্রান্সের একটি মসজিদে ইসলাম গ্রহণের ভিডিও প্রকাশ করে ইনস্টাগ্রামে শেয়ার করেন তিনি। 

মরোক্কান-মিশরীয় বংশোদ্ভূত মেরিন এল হিমার ১৯৯৩ সালের জুলাই মাসে দক্ষিণ ফ্রান্সের বোর্দোতে জন্মগ্রহণ করেন। ওশেন এল হিমার নামে তার একটি যমজ বোন রয়েছে। তবে হিমার তার সৎ বাবার কাছে বেড়ে উঠেছেন।

হিমার ফ্রান্সের রিয়েলিটি টেলিভিশন শো ‘লেস প্রিন্সেস অ্যাট লেস প্রিন্সেস ডি ল’আমোরে’ (প্রেমের রাজকুমারী ও রাজকুমারীরা) অংশ নিয়েছিলেন। ‘প্রিন্সেস অব লাভ’ এবং ‘মার্সেলিওনেস ইন দুবাই’ নামের টিভি রিয়েলিটি শোর মাধ্যমে ব্যাপক খ্যাতি লাভ করেন এ তারকা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ইনস্টাগ্রাম, ফেসবুক ও টিকটকে তার লাখ লাখ অনুসারী।

ইসলামগ্রহণ প্রসঙ্গে তার মন্তব্য, এটি আমার হৃদয় ও যুক্তির মিলিত একটি পছন্দ ছিল। ইনস্টাগ্রাম পোস্টে মেরিন হিমার বলেন, আমি মনে করি এখন আমি আমার জীবনের সবচেয়ে সুন্দর দিনগুলো কাটাচ্ছি।

ইসলাম ধর্মে ফেরার বিষয়ে মেরিন জানান, এক সময় তিনি তার নিজের বাবা সম্পর্কে কিছু গবেষণা করেন এবং তারা মূলত কোথা থেকে এসেছেন তা নিয়ে অনুসন্ধান করেন। এই সময়েই তিনি ইসলামের সঙ্গে পরিচিত হন এবং এক পর্যায়ে তিনি ইসলাম গ্রহণ করেন।

ইনস্টাগ্রামের পোস্টে ফরাসী এ তারকা মডেল লেখেন, ‘আপনাকে একাই চলতে হবে। বন্ধু নেই, পরিবার নেই, সঙ্গীও নেই। শুধুমাত্র আপনি এবং আল্লাহ থাকবেন। আপনাদের অনেকে হয়ত বিষয়টি জানেন। অনেকে প্রশ্ন করেন। তবে আনুষ্ঠানিকভাবে কখনো ঘোষণা করিনি যে, আমি কয়েক মাস আগে ইসলাম গ্রহণ করেছি।’

নিজের উচ্ছ্বাস প্রকাশ করে তিনি লেখেন, ‘আমার মূল বার্তা হলো, অন্য ধর্ম যাই হোক তা গ্রহণে লজ্জার কিছু নেই। এটি সবার মৌলিক অধিকারের অন্যতম, যা অবাধে চর্চার সুযোগ থাকা দরকার। অনেকেই লক্ষ্য করেছেন যে, গত বছর অনেক কিছুর পরিবর্তন ঘটেছে। আমার মধ্যেও ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে। আমার অগ্রাধিকারের অনুভূতি পর্যালোচনা করেছি। তাছাড়া পেশাগত বা ব্যক্তিগত বিষয়ে জীবনের পছন্দ নিয়ে পুনরায় ভেবেছি। যারা এ বিষয়ে প্রশংসা করবেন বা অন্তত শ্রদ্ধা জানাবেন সবাইকে ধন্যবাদ।’

ইসলাম গ্রহণের পর সৌদি আরবের মক্কাও সফর করেন মেরিন এল হিমার। পবিত্র কাবা প্রাঙ্গণে হিজাব পরিহিত অবস্থায় কয়েকটি ছবিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন তিনি।  

মেরিন এল হিমারের ইসলামে আগমনকে তার অনুসারীরা ব্যাপকভাবে স্বাগত জানিয়েছে। অনুসারীদের বড় একটি অংশ এই খবরে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছে। তিনি তার পছন্দের পদক্ষেপকে সমর্থন করায় ভক্ত-অনুসারীদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন