উন্নয়নের পথে হাটঁছে বাংলাদেশ: মাহাথির

  আহমাদুল কবির, মালয়েশিয়া থেকে ২৮ মার্চ ২০১৯, ০৯:৫৪ | অনলাইন সংস্করণ

মাহাথির

দ্বিপাক্ষীয় সম্পর্কোন্নয়নে এবং আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন বিষয়ে ঐক্যমত পোষণ এবং যথাশিগগির বাংলাদেশ সফরের আগ্রহ প্রকাশ করেছেন তুন ডা. মাহাথির মুহাম্মদ।

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী ডা. তুন মাহাথির মুহাম্মদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারেক আহমদ সিদ্দিকি সাক্ষাতকালে এ আগ্রহ প্রকাশ করেন।

২৭ মার্চ বুধবার লাঙ্কাওই ইন্টারন্যাশনাল মালয়েশিয়া মেরিটাইম অ্যান্ড অ্যারোস্কেস এক্সিবিশনে সাক্ষাৎ করেন তিনি। বিভিন্ন ইস্যুতে বাংলাদেশের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক আলোচনার মাধ্যমে সম্পর্কোন্নয়নে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন।

উভয় দেশেই নতুন সরকার তাই সম্পর্কে নবউন্মেষ হবে এ প্রত্যাশা করেন। তিনি বলেন বাংলাদেশ ও মালয়েশিয়ার সম্পর্ক দীর্ঘ দিনের।

মাহাথির মুহাম্মদের সঙ্গে আলাপ কালে নিরাপত্তা বিষয়ক উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অব.) তারেক আহমদ সিদ্দিকি বলেন, বাংলাদেশের অনেকের কর্মসংস্থান হয়েছে এবং হচ্ছে এমন সুযোগ দেয়ার জন্য মালয়েশিয়া সরকারের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান।

তিনি বলেন ডিজিটাল বাংলাদেশ স্লোগান নিয়ে তথ্য প্রযুক্তি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ যথেষ্ট এগিয়ে রয়েছে। সে মোতাবেক বাংলাদেশ হতে প্রযুক্তিতে অভিজ্ঞ ও দক্ষ লোক নিয়োগ করতে পারে মালয়েশিয়া। যেহেতু মালয়েশিয়া বাংলাদেশকে সোর্স কান্ট্রি করে শ্রম নিয়োজন শুরু করেছে সেহেতু কর্মরতদের বৈধতা সংক্রান্ত সমস্যার সমাধানের জন্য অনুরোধ করেন এবং নবনিয়োগের ক্ষেত্রেও অনুরোধ করেন। এ বিষয়ে ডা. মাহাথির মুহাম্মদ আশা প্রকাশ করে বলেন যে নিয়ম কানুন ও পলিসি মোতাবেক দ্রুত সমস্যা সমাধানের পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে আর সে পলিসি শ্রমনীতির নতুন পদ্ধতিতে যথাশিগগির বাংলাদেশ থেকে কর্মী নিয়োগের আশা পূর্ণ ব্যক্ত করেন তিনি।

সাক্ষাৎকালে মায়ানমারের রাখাইন প্রদেশের নির্যাতিতরা বিপুল পরিমাণে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে এবং বাংলাদেশ এ সকল অসহায় লোকদের পাশে থেকে যে মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে তাতে সাধুবাদ জানান এবং পাশে থাকার আশ্বাস দেন। তিনি রোহিঙ্গা সমস্যার আশু সুষ্ঠু সমাধান প্রত্যাশা করেন। তিনি স্মরণ করেন যে, স্বাধীনতাযুদ্ধের পর দেশ অর্থনৈতিকভাবে অনেক ক্ষতিগস্ত হয়। সে অবস্থায় অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির দায়িত্ব নেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমান। তারই সুযোগ্য কন্যা বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিকভাবে সমৃদ্ধতা পেয়েছে। তিনি বলেন, আজকের বাংলাদেশ উন্নয়নের সঠিক পথে হাটছে।

চীনের পরেই গার্মেন্টস শিল্পে বাংলাদেশ দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। বাংলাদেশ একটি ডিজিটাল দেশ, আগমী ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ মধ্যম আয়ের দেশে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, ব্যবসা বাণিজ্যের সুপ্রসার ঘটলে দুই দেশই লাভবান হবে। প্রধানমন্ত্রীকে আস্বস্থ করেন উপদেষ্টা এবং বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানালে এ সময় মাহাথির মুহাম্মদ যথাশিগিগর বাংলাদেশ সফরের আশ্বাস দেন এবং রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করবেন।

সাক্ষাতকালে মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মহ.শহীদুল ইসলাম, বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত, নৌবাহিনী প্রধান রিয়াল অ্যাডমিরাল আওরঙ্গজেব, এবং দূতাবাসের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা এয়ার কমডোর মো. হুমায়ূন কবির সঙ্গে ছিলেন।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত

 
×