করোনা সংকটে নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ডাক্তারের ফ্রি সামগ্রী বিতরণ
jugantor
করোনা সংকটে নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ডাক্তারের ফ্রি সামগ্রী বিতরণ

  তোফাজ্জল লিটন, নিউইয়র্ক থেকে  

১৭ মার্চ ২০২০, ০৫:০২:১৫  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশি ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার তার ব্যক্তি উদ্যোগে বৃদ্ধ ও শিশুদের জন্য বিনামূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী বিতরণ করবেন। নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় এই কার্যক্রম শুরু হবে তার কার্যালয়ের সামনে।

বৃদ্ধ কেউ যদি আয়োজনস্থলে উপস্থিত না হতে পারেন তবে পরিবারে যে কেউ যোগাযোগ করলে বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হবে সব সামগ্রী। বৃদ্ধ মানুষকে দেয়া হবে ১০ পাউন্ড বাসমতি চাল, ৩ পাউন্ড মসুর ডাল এবং দুই প্যাকেট বিস্কুট। শিশুদের জন্য থাকবে নুডলস, ব্রেড, জ্যাম নসিলা এবং বিস্কুট।

এই উদ্যোগ সম্পর্কে ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার বলেন, করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ায় অনেক সংকট তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে খাদ্য সংকট একটি বড় সমস্যা। এ বাংলাদেশি জনসমাজ আমাকে আজকের ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার বানিয়েছে। এই সংকটে যদি তাদের পাশে না দাঁডাতে পারি তাহলে নিজের কাছে নিজেই ছোট হবে যাবো।

সরেজমিনে দেখা গেছে, ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার নিজে অন্যান্য কর্মীদের সঙ্গে প্যাকেট করছেন খাবার সামগ্রী। এ সময় তিনি বলেন, বাঙালী জাতির জনকের জন্মদিন আমাদের সবার জন্য গৌরবময় একটি দিন।

আমরা কাজটি শুরু করেছি এই মহান দিনে। তবে যে কারো যে কোনো দিন খাদ্য সংকট দেখা দিলে আমরা দিতে প্রস্তুত আছি। জ্যাকসন হাইটসের ৭২ ব্রডওয়ে আমার অফিসে যে কেউ আসতে পারেন। তবে বৃদ্ধ কেউ না আসতে পারলে আমার নাম্বারে ( ১৭১৮ ৮৪৪ ৩৩৬০) এসএসএস করলে আমরা পৌঁছে দেব।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

করোনা সংকটে নিউইয়র্কে বাংলাদেশি ডাক্তারের ফ্রি সামগ্রী বিতরণ

 তোফাজ্জল লিটন, নিউইয়র্ক থেকে 
১৭ মার্চ ২০২০, ০৫:০২ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশি ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার তার ব্যক্তি উদ্যোগে বৃদ্ধ ও শিশুদের জন্য বিনামূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় খাবার সামগ্রী বিতরণ করবেন। নিউইয়র্কের জ্যাকসন হাইটসে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায় এই কার্যক্রম শুরু হবে তার কার্যালয়ের সামনে। 

বৃদ্ধ কেউ যদি আয়োজনস্থলে উপস্থিত না হতে পারেন তবে পরিবারে যে কেউ যোগাযোগ করলে বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হবে সব সামগ্রী।  বৃদ্ধ মানুষকে দেয়া হবে ১০ পাউন্ড বাসমতি চাল, ৩ পাউন্ড মসুর ডাল এবং দুই প্যাকেট বিস্কুট। শিশুদের জন্য থাকবে নুডলস, ব্রেড, জ্যাম নসিলা এবং বিস্কুট। 

এই উদ্যোগ সম্পর্কে ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার বলেন, করোনাভাইরাস বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ায় অনেক সংকট তৈরি হয়েছে। এর মধ্যে খাদ্য সংকট একটি বড় সমস্যা। এ বাংলাদেশি জনসমাজ আমাকে আজকের ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার বানিয়েছে। এই সংকটে যদি তাদের পাশে না দাঁডাতে পারি তাহলে নিজের কাছে নিজেই ছোট হবে যাবো। 

সরেজমিনে দেখা গেছে, ডাক্তার ফেরদৌস খন্দকার নিজে অন্যান্য কর্মীদের সঙ্গে প্যাকেট করছেন খাবার সামগ্রী। এ সময় তিনি বলেন, বাঙালী জাতির জনকের জন্মদিন আমাদের সবার জন্য গৌরবময় একটি দিন। 

আমরা কাজটি শুরু করেছি এই মহান দিনে। তবে যে কারো যে কোনো দিন খাদ্য সংকট দেখা দিলে আমরা দিতে প্রস্তুত আছি।  জ্যাকসন হাইটসের ৭২ ব্রডওয়ে আমার অফিসে যে কেউ আসতে পারেন। তবে বৃদ্ধ কেউ না আসতে পারলে আমার নাম্বারে ( ১৭১৮ ৮৪৪ ৩৩৬০) এসএসএস করলে আমরা পৌঁছে দেব।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ছড়িয়ে পড়ছে করোনাভাইরাস