বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসায় যুক্তরাষ্ট্র
jugantor
বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসায় যুক্তরাষ্ট্র

  কৌশলী ইমা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে  

২৫ নভেম্বর ২০২১, ০২:০০:৪৩  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ৫০তম সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর সচিব ফ্রাঙ্ক কেন্ডাল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসা করেন।

স্থানীয় সময় সোমবার (২২ নভেম্বর) দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র সফররত বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আবদুল হান্নান। অনুষ্ঠানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন মার্কিন বিমানবাহিনীর সচিব ফ্রাঙ্ক কেন্ডাল।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলামসহ অতিথিরা বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সামরিক ও বেসামরিকসহ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব ও সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের কথাও স্মরণ করেন তারা। তিনি কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবেলায় সরকারের প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী যে ভূমিকা পালন করেছে তা তুলে ধরেন।

রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রম, জ্ঞান ও অভিজ্ঞতার আদান-প্রদান, প্রশিক্ষণ, সংগ্রহ ও সফর বিনিময় ইত্যাদি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে বহুমুখী সহযোগিতার বিষয়ে সন্তোষজনকভাবে উল্লেখ করেন।

ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে ৫০তম সশস্ত্র বাহিনী দিবসের অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে মার্কিন বিমানবাহিনী সচিব বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসা করেন; যা বিশ্বব্যাপী প্রশংসা অর্জন করেছে।

তিনি মন্তব্য করেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশ মহাকাশ, অন্বেষণ এবং গবেষণায় অ্যাক্সেসের বিষয়ে বৈশ্বিক নিয়মে একই মতামত ভাগ করেছে। এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আবদুল হান্নান মার্কিন সশস্ত্র বাহিনী এবং বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ ও সহযোগিতামূলক সম্পর্কের ওপর জোর দেন; যা বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক ফোরামে তাদের নিয়মিত কর্মকাণ্ডে প্রতিফলিত হয়। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, তার এ সফর দুই দেশের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক আরও জোরদার করবে।

বিভিন্ন দেশের প্রতিরক্ষা অ্যাটাচ, কূটনীতিক, পেন্টাগন, স্টেট ডিপার্টমেন্ট এবং অন্যান্য মার্কিন সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বাংলাদেশি প্রবাসী এবং দূতাবাসের কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। প্রতিরক্ষা অ্যাটাচে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শাহেদুল ইসলাম সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথিদের স্বাগত জানান এবং দুই দেশের জন্য পারস্পরিকভাবে উপকারী সমর্থন ও সহযোগিতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে ধন্যবাদ জানান।

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসায় যুক্তরাষ্ট্র

 কৌশলী ইমা, যুক্তরাষ্ট্র থেকে 
২৫ নভেম্বর ২০২১, ০২:০০ এএম  |  অনলাইন সংস্করণ

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসা করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত ৫০তম সশস্ত্র বাহিনী দিবস উদযাপন অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে যোগ দিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিমানবাহিনীর সচিব ফ্রাঙ্ক কেন্ডাল বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসা করেন। 

স্থানীয় সময় সোমবার (২২ নভেম্বর) দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাষ্ট্র সফররত বিমানবাহিনী প্রধান এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আবদুল হান্নান। অনুষ্ঠানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করেন মার্কিন বিমানবাহিনীর সচিব ফ্রাঙ্ক কেন্ডাল।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত এম শহীদুল ইসলামসহ অতিথিরা বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সামরিক ও বেসামরিকসহ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্ব ও সর্বোচ্চ আত্মত্যাগের কথাও স্মরণ করেন তারা। তিনি কোভিড-১৯ মহামারি মোকাবেলায় সরকারের প্রচেষ্টায় বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনী যে ভূমিকা পালন করেছে তা তুলে ধরেন। 

রাষ্ট্রদূত শহীদুল ইসলাম জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা কার্যক্রম, জ্ঞান ও অভিজ্ঞতার আদান-প্রদান, প্রশিক্ষণ, সংগ্রহ ও সফর বিনিময় ইত্যাদি ক্ষেত্রে বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্রের সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে বহুমুখী সহযোগিতার বিষয়ে সন্তোষজনকভাবে উল্লেখ করেন।

ওয়াশিংটন ডিসিতে বাংলাদেশ দূতাবাসের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে ৫০তম সশস্ত্র বাহিনী দিবসের অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তৃতাকালে মার্কিন বিমানবাহিনী সচিব বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষা ও মানবিক কার্যক্রমের প্রশংসা করেন; যা বিশ্বব্যাপী প্রশংসা অর্জন করেছে।

তিনি মন্তব্য করেন যে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং বাংলাদেশ মহাকাশ, অন্বেষণ এবং গবেষণায় অ্যাক্সেসের বিষয়ে বৈশ্বিক নিয়মে একই মতামত ভাগ করেছে। এয়ার চিফ মার্শাল শেখ আবদুল হান্নান মার্কিন সশস্ত্র বাহিনী এবং বাংলাদেশ সশস্ত্র বাহিনীর মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ ও সহযোগিতামূলক সম্পর্কের ওপর জোর দেন; যা বিভিন্ন দ্বিপাক্ষিক ও বহুপাক্ষিক ফোরামে তাদের নিয়মিত কর্মকাণ্ডে প্রতিফলিত হয়। তিনি আশা প্রকাশ করেন যে, তার এ সফর দুই দেশের মধ্যে দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক আরও জোরদার করবে।
 
বিভিন্ন দেশের প্রতিরক্ষা অ্যাটাচ, কূটনীতিক, পেন্টাগন, স্টেট ডিপার্টমেন্ট এবং অন্যান্য মার্কিন সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা, বাংলাদেশি প্রবাসী এবং দূতাবাসের কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। প্রতিরক্ষা অ্যাটাচে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. শাহেদুল ইসলাম সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অতিথিদের স্বাগত জানান এবং দুই দেশের জন্য পারস্পরিকভাবে উপকারী সমর্থন ও সহযোগিতার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে ধন্যবাদ জানান।
 

[প্রিয় পাঠক, যুগান্তর অনলাইনে পরবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। প্রবাসে আপনার কমিউনিটির নানান খবর, ভ্রমণ, আড্ডা, গল্প, স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। সংশ্লিষ্ট বিষয়ে ছবিসহ মেইল করুন jugantorporobash@gmail.com এই ঠিকানায়। লেখা আপনার নামে প্রকাশ করা হবে।]
যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন