স্কুলে পিটির পরিবর্তে 'ভুতুড়ে' নাচ!

  যুগান্তর ডেস্ক ২৩ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:১৫ | অনলাইন সংস্করণ

স্কুলে পিটির পরিবর্তে 'ভূতুড়ে' নাচ!

১৯৫১ সাল থেকেই চীনে প্রাথমিক, মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে শরীরচর্চা (পিটি) বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

আগে দেশটির সরকারি কারখানা ও অফিসেও দিনের শুরুতেও সবার জন্য বাধ্যতামূলক ছিল। প্রতিদিন সকালে ডান-বাম, বাম-ডান মার্কা পিটি প্যারেডটা একঘেঁয়েমি লাগছিল শিক্ষার্থীদেরতো বটেই, প্রধান শিক্ষকেরও।

চীনের সানশি প্রদেশের একটি স্কুলের প্রধান শিক্ষক জ্যাং পেংফেই তাই দিলেন সব উল্টাপাল্টা করে। পিটির সময় গানের তালে তালে শিক্ষার্থীদের নিয়ে শুরু নাচলেন।

জ্যাংয়ের ওই নাচের নামও জানা গেল- ‘গুইবু’ বা ‘ভুতুড়ে নাচ’। এতে কাজও হলো একশোতে একশো। শিশুরা মজাও পেল আর শরীরচর্চাটাও হয়ে গেল। খবর রাশিয়ার সংবাদ মাধ্যম আরটির।

সেখানে দেখা যায় প্রধান শিক্ষক নিজের সহকর্মীদেরও ওই একই ঢঙে নাচিয়েছেন। শি গুয়ান নামের ওই স্কুলে এখন এভাবেই শরীরচর্চা হয় নিয়মিত। আর ওই ধরনের শরীরচর্চার ভিডিও এরইমধ্যে ভাইরাল হয়েছে। গত শুক্রবার পোস্ট করা ভিডিওটি চারদিনে আড়াই কোটিবার দেখা হয়েছে।

একঘেঁয়েমি কাটানোর জন্য গত বছরের নভেম্বর থেকে নতুন পদ্ধতি চালু করেন স্কুলটির প্রধান শিক্ষক জ্যাং। নতুন এই নাচের আইডিয়া শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সামনে আনার আগে তিনি নিজে বেশ কিছু দিন চর্চা করে নেন।

শুরুতে স্কুলটির অর্ধেক শিক্ষক এর বিরোধিতা করেন। কারণ, সরকারের শিক্ষা বিভাগের কর্তাব্যক্তিরা হঠাৎই পরিদর্শনে যান। ওই সময় শারীরিক কসরতের নিয়ম না মানার কারণে সাজা হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×