চীনা শিক্ষার্থীদের ইংরেজিতে কথা বলতে বলায় অধ্যাপক বরখাস্ত

  যুগান্তর ডেস্ক ২৯ জানুয়ারি ২০১৯, ১৪:১৫ | অনলাইন সংস্করণ

চীনা শিক্ষার্থীদের ইংরেজিতে কথা বলতে বলে চাকরি হারালেন যুক্তরাষ্ট্রের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. মেগান নিলি। ছবি- ডেইলিমেইল
চীনা শিক্ষার্থীদের ইংরেজিতে কথা বলতে বলে চাকরি হারালেন যুক্তরাষ্ট্রের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. মেগান নিলি। ছবি- ডেইলিমেইল

চীনা শিক্ষার্থীদের ইংরেজিতে কথা বলতে বলে চাকরি হারালেন যুক্তরাষ্ট্রের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সহকারী অধ্যাপক।

বরখাস্ত হওয়া ওই শিক্ষকের নাম ড. মেগান নিলি। তিনি যুক্তরাষ্ট্রের নর্থ ক্যারোলাইনা অঙ্গরাজ্যের ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের স্নাতক শিক্ষা কার্যক্রমের পরিচালক এবং জৈব পরিসংখ্যানবিদ্যার সহকারী অধ্যাপক।

এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা হচ্ছে।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জৈব পরিসংখ্যানবিদ্যা বিভাগের দুই শিক্ষক ড. মেগানের কাছে অভিযোগ করেন, ক্লাসে চীন শিক্ষার্থীরা ইংরেজিতে কথা বলেন না। এ জন্য তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে মেগানকে সুপারিশ করেন ওই দুই শিক্ষক।

শিক্ষকদের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ড. মেগান চীনা শিক্ষার্থীদের একটি মেইল পাঠান। সেখানে তিনি বিদেশি শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে থাকাকালীন ইংরেজি ছাড়া অন্য কোনো ভাষায় কথা না বলার নির্দেশ দেন।

মেইলে তিনি সতর্ক করে দেন, ইংরেজিতে কথা না বললে বিদেশি শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে উটকো ঝামেলায় পড়তে পারেন।

এর পরই বিশ্ববিদ্যালয়ের চীনা শিক্ষার্থীদের মধ্যে সমালোচনার ঝড় ওঠে। মুহূর্তেই ড. মেগানের ই-মেইলের স্ক্রিনশট টুইটার ও চীনের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ওয়েবগুলোতে ছড়িয়ে পড়ে।

বিষয়টি নিয়ে ডিউক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সংবাদপত্র ‘দ্য ক্রনিকল’-এ সংবাদও প্রকাশ হয়।

গত রোববার ওয়েবগুলোতে লাখ লাখ চীনা ব্যবহারকারী হ্যাশট্যাগ দিয়ে ওই ঘটনার প্রতিবাদ জানান।

তারা ড. মেগান নিলির ছবি টুইটারে দিয়ে তার অপসারণ দাবি করেন। শুধু তাই নয়, ঘটনার প্রতিবাদে চীনা শিক্ষার্থীরা গণস্বাক্ষর কার্যক্রমও শুরু করেন।

এক বিবৃতিতে এ কার্যক্রম থেকে জানানো হয়, এটি চীনা শিক্ষার্থীদের মর্যাদা ও তাদের সম্পর্কে পোষণ করা ধারণার প্রতিবাদ।

পরে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঘটনাটি তদন্তের আশ্বাস দেয়। একই সঙ্গে জৈব পরিসংখ্যানবিদ্যা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. মেগান নিলিকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

--
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×