৫ দেশের মর্জিতে সবাই চলবে কেন, প্রশ্ন এরদোগানের

  যুগান্তর ডেস্ক    ২৩ মে ২০১৯, ১৫:৩০ | অনলাইন সংস্করণ

আঙ্কারায় বিচার বিভাগের সদস্য ও প্রসিকিউটরদের এক অনুষ্ঠানে এরদোগান
আঙ্কারায় বিচার বিভাগের সদস্য ও প্রসিকিউটরদের এক অনুষ্ঠানে এরদোগান। ছবি: ডেইলি সাবাহ

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী পাঁচ সদস্য রাষ্ট্রের সমালোচনা করে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোগান বলেছেন, গোটা বিশ্ব এ পাঁচ দেশ থেকে অনেক বড়। এই পাঁচ দেশের মর্জিতেই বিশ্ববাসীর চলতে হবে কেন?

বুধবার আঙ্কারায় বিচার বিভাগের সদস্য ও প্রসিকিউটরদের এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।খবর ডেইলি সাবাহর।

এ সময় 'বিগ ফাইভ’তথা যুক্তরাষ্ট্র, ব্রিটেন, রাশিয়া, চীন ও ফ্রান্সের সমালোচনা করে তিনি বলেন, গোটা বিশ্ব এই পাঁচটি দেশের চেয়েও বড়।

এরদোগান উল্লেখ করেন যে, তিনি প্রতিটি আন্তর্জাতিক সেমিনারে এ কথা বারবার বলেন, পাঁচটি দেশের চেয়ে গোটা বিশ্ব অনেক বড়। আর এটা ইনসাফপূর্ণ বিচার কামনা করার একটা পদ্ধতি মাত্র।

তিনি বলেন, আমরা সবসময় বিশ্বের নিপীড়িত মানুষের পক্ষে এবং পৃথিবীর অত্যাচারী শক্তি, অধিকাংশ সময় যারা জুলুম ও অত্যাচারের কারণ হয় তাদের বিপক্ষে কথা বলছি।

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সক্ষমতার বিষয়ে প্রশ্ন তুলে এরদোগান বলেন, আরাকান, লিবিয়া, ফিলিস্তিনে কি তারা কোনো ন্যায়বিচার করতে পেরেছে? অথচ বিশ্বজুড়ে তারা ন্যায়বিচার প্রতিষ্ঠার ছবক দেয়, এভাবে মানবতার বুলি আওড়িয়ে মানবতার সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে।

গত ১৭ বছরে তুরস্কের বিচারব্যবস্থার যথেষ্ট উন্নতি হয়েছে বলে জানান প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

তিনি বলেন, বিগত ১৭ বছরে দেশের বিচারব্যবস্থা সব ক্ষেত্রেই উন্নত ও শক্তিশালী হয়েছে। তুরস্ক একটি স্বাধীন দেশ। আমরা ন্যায়বিচারের শাসনে বিশ্বাসী। কোনো বিচারক, রাজনীতিক- এমনকি আমার দলের কেউ-ই ন্যায়বিচারের ঊর্ধ্বে নয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×