কাশ্মীরে নির্যাতন বিষয়ে জাতিসংঘের প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান ভারতের

  যুগান্তর ডেস্ক ০৯ জুলাই ২০১৯, ২০:২৯ | অনলাইন সংস্করণ

কাশ্মীরে ভারতীয় বাহিনীর নির্যাতন। ফাইল ছবি
কাশ্মীরে ভারতীয় বাহিনীর নির্যাতন। ফাইল ছবি

কাশ্মীরে মানবাধিকার লঙ্ঘন বিষয়ে জাতিসংঘের প্রকাশিত প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে ভারত।

সোমবার বিকালে ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র রবীশ কুমার বলেন, জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে আগের রিপোর্টটি উদ্দেশ্যপ্রণোদিত, প্রতারণাপূর্ণ ছিল। নতুন সংস্করণেও সেই ধারাবাহিকতাই বজায় রয়েছে।

তিনি বলেন,জাতিসংঘের ওই রিপোর্টে যা বলা হয়েছে, তা ভারতের সার্বভৌমত্ব ও আঞ্চলিক অখণ্ডতারবিরোধী। ওই রিপোর্টে সীমান্ত সন্ত্রাসের মতো গুরুত্বপূর্ণ সমস্যার কথা উল্লেখ করা হয়নি।

কাশ্মীর নিয়ে এ অঞ্চলে সংঘাতের ঘটনায় সোমবার আন্তর্জাতিক তদন্তের দাবি জানিয়েছে জাতিসংঘ হাইকমিশনার ফর হিউম্যান রাইটস (ইউএনএইচসিআর)।

ইউএনএইচসিআর দফতর জানায়, কাশ্মীরি জনগণের ভবিষ্যৎ নির্ধারণের অধিকার আন্তর্জাতিক আইনে স্বীকৃত এবং ভারতের উচিত ওই অধিকারকে সম্মান জানানো।

ইউএনএইচসিআরের মতে, কাশ্মীরে ‘অতিরিক্ত বলপ্রয়োগ’ করছে ভারতীয় বাহিনী। দিল্লির বিরোধীদের যখন খুশি আটক করা হচ্ছে। কোনো ধরণের ঘোষণা ছাড়াই বন্ধ রাখা হচ্ছে ইন্টারনেট।

কাশ্মীরের উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ভারত-পাকিস্তান উভয় দেশকেই দোষারোপ করেছে জাতিসংঘের মানবাধিকার শাখা।

গত বছরের জুনে প্রকাশিত ইউএনএইচসিআরের রিপোর্টে ভারত এবং পাকিস্তান- দুই দেশেরই তীব্র সমালোচনা করা হয়। বলা হয়, ‘দুই দেশই কাশ্মীরের ওপর নিজেদের কর্তৃত্ব দাবি করে।

ঘটনাপ্রবাহ : কাশ্মীর সংকট

আরও
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×