মঞ্চ থেকে পলায়ন: নেতানিয়াহুকে নিয়ে ইসরাইলে মশকরা

  যুগান্তর ডেস্ক ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১৫:৫৩:০৪ | অনলাইন সংস্করণ

ছবি: এএফপি

ইসরাইলি বন্দরনগরী আশদোদে গাজা থেকে আসা রকেট আতঙ্কে নির্বাচনী প্রচার মঞ্চ থেকে নিরাপদ আশ্রয়ে সরে আসার যাওয়ার পর এবার দেশটির বিরোধীদের মশকরার শিকার হলেন বেনইয়ামিন নেতানিয়াহু।

এ সময়ে তার নিরাপত্তা ব্যবস্থারও সমালোচনা করেন বিরোধীরা। মিস্টার নিরাপত্তা হিসেবে নিজেকে তুলে ধরার যে চেষ্টা নেতানিয়াহু করে আসছেন, সেই প্রশ্ন তুলে ধরে গাজার প্রতিরোধ যোদ্ধাদের হামলা মোকাবেলায় সরকার ব্যর্থ বলে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করেন আসছে নির্বাচনে তার প্রতিদ্বন্দ্বীরা।

ইসরাইলের ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টির সহনেতা ইয়াইর ল্যাপিড বলেন, নেতানিয়াহু মঞ্চে থাকা অবস্থায় একটি রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। এটা হচ্ছে ইসরাইলি নাগরিকদের জন্য লাল পতাকা প্রদর্শন।

আশদোদ ও আশকেলোনে অন্তত দুটি রকেট বিস্ফোরিত হয়েছে। যদিও ইসরাইলি ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা আয়রন ডোম দুটোয়ই ধ্বংস করতে সমর্থ হয়েছে।

এদিকে রকেট হামলার মুখে ব্লু অ্যান্ড হোয়াইট পার্টির সমর্থক ও সাবেক জেনারেল গাবি আশকেনাজি মঞ্চ থেকে সরে না যাওয়ায় তাদের তারিফ করেছেন দলটির প্রধান বেন্নি গ্যানজ।

নেতানিয়াহু যখন মঞ্চ থেকে পালিয়ে গেছেন, তখন তারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নিজেদের অবস্থানে থাকার কথা জানিয়েছে দলটির নেতাকর্মীরা।

উত্তরাঞ্চলীয় জুলিসের দুরুজ গ্রামের একটি অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমরা আতঙ্কিত না। হামাস কিংবা হিজবুল্লাহকে ভয় করি না।

লেবার নেতা আমির পেরাটজ বলেন, নতুন কিছু না। দুর্ভাগ্যবশত, দক্ষিণাঞ্চলীয় নাগরিকদের তুচ্ছ করে নেতানিয়াহু অদৃশ্য হয়ে গেলেন। আসল নেতৃত্ব সমস্যাকে গোড়া থেকে মোকাবেলা করেন। তারা আয়রন ডোমের ঢালের আড়ালে লুকিয়ে থাকেন না।

ইসরাইলের ডানপন্থী নেতারাও নেতানিয়াহুর সমালোচনা করেন। প্রধানমন্ত্রীর মঞ্চ ছেড়ে নিরাপদ আশ্রয়ে চলে যাওয়ার ঘটনাকে জাতীয় অবমাননা বলে অভিহিত করেন ইয়ামিনা পার্টির সদস্য নাফতালি বেন্নেট। তিনি বলেন, হামাস ইসরাইলকে ভয় পাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে।

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত