ইসরাইলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ঐক্যের ডাক দিয়েছে তুরস্ক
jugantor
ইসরাইলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ঐক্যের ডাক দিয়েছে তুরস্ক

  অনলাইন ডেস্ক  

১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২২:৫২:৩৬  |  অনলাইন সংস্করণ

এরদোগান ও নেতানিয়াহু

জর্ডান উপত্যাকা দখলের ঘোষণা দিয়েছেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। আর এ ঘোষণাকে অবৈধ ও অগ্রহণীয় বলছে তুরস্ক। এর প্রতিরোধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়েছে তুরস্ক।

বুধবার এক বিবৃতিতে আইনের মৌলিক নীতি লঙ্ঘনের দায়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ইসরাইলের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভাসগলু।

এতে আরও বলা হয়, তুর্কিরা সবসময় ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে রয়েছে; তাদের স্বাধীনতার সংগ্রামকে সমর্থন করে।

মঙ্গলবার এক টেলিভিশন ভাষণে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেন, ইসরাইলের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হলে তার সরকার এ পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করবে। এছাড়া পশ্চিম তীরের সব এলাকায় ইহুদি বসতি স্থাপন নিশ্চিত করা হবে।

জর্ডান উপত্যাকায় সাড়ে ৯ হাজার ইহুদির সঙ্গে ৭০ হাজার ফিলিস্তিনি দুঃসহ জীবন-যাপন করছে।

ইসরাইল দাবি করছে, এ উপত্যকাটি তাদের নিরাপত্তার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এ ছাড়া ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ভবিষ্যতে যে কোনো বন্দোবস্তে এর কোনো অংশ ত্যাগ করার ধারণাটি প্রত্যাখ্যান করা হচ্ছে।

এদিকে, ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পর আরব লীগ নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে। এছাড়া এ ঘটনায় সৌদি আরবও আলাদা বিবৃতি দিয়েছে। তারা ওআইসিকে জরুরি বৈঠকের আহ্বান জানিয়েছে।

সূত্র: বিবিসি ও ইয়েনি শাফাক

ইসরাইলের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক ঐক্যের ডাক দিয়েছে তুরস্ক

 অনলাইন ডেস্ক 
১১ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১০:৫২ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
এরদোগান ও নেতানিয়াহু
এরদোগান ও নেতানিয়াহু। ছবি: সংগৃহীত

জর্ডান উপত্যাকা দখলের ঘোষণা দিয়েছেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু।  আর এ ঘোষণাকে অবৈধ ও অগ্রহণীয় বলছে তুরস্ক।  এর প্রতিরোধে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে প্রতিরোধের আহ্বান জানিয়েছে তুরস্ক।   

বুধবার এক বিবৃতিতে আইনের মৌলিক নীতি লঙ্ঘনের দায়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে ইসরাইলের বিরুদ্ধে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন তুরস্কের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মেভলুত কাভাসগলু।  

এতে আরও বলা হয়, তুর্কিরা সবসময় ফিলিস্তিনিদের সমর্থনে রয়েছে; তাদের স্বাধীনতার সংগ্রামকে সমর্থন করে। 

মঙ্গলবার এক টেলিভিশন ভাষণে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু বলেন, ইসরাইলের আসন্ন সাধারণ নির্বাচনে জয়ী হলে তার সরকার এ পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করবে। এছাড়া পশ্চিম তীরের সব এলাকায় ইহুদি বসতি স্থাপন নিশ্চিত করা হবে। 

জর্ডান উপত্যাকায় সাড়ে ৯ হাজার ইহুদির সঙ্গে ৭০ হাজার ফিলিস্তিনি দুঃসহ জীবন-যাপন করছে।  

ইসরাইল দাবি করছে, এ উপত্যকাটি তাদের নিরাপত্তার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  এ ছাড়া ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে ভবিষ্যতে যে কোনো বন্দোবস্তে এর কোনো অংশ ত্যাগ করার ধারণাটি প্রত্যাখ্যান করা হচ্ছে। 

এদিকে, ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রীর এমন ঘোষণার পর আরব লীগ নিন্দা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে।  এছাড়া এ ঘটনায় সৌদি আরবও আলাদা বিবৃতি দিয়েছে।  তারা ওআইসিকে জরুরি বৈঠকের আহ্বান জানিয়েছে।

সূত্র: বিবিসি ও ইয়েনি শাফাক