গ্রেটার আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার জয়

  যুগান্তর ডেস্ক ২২ নভেম্বর ২০১৯, ০৩:৫৬ | অনলাইন সংস্করণ

গ্রেটার আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার জয়

আন্তর্জাতিক শিশু শান্তি পুরস্কার পেলেন বিশ্বজুড়ে সাড়া জাগানো তরুণ জলবায়ু কর্মী গ্রেটা থানবার্গ।

পরিবেশ আন্দোলনে বিশেষ ভূমিকা রাখায় বুধবার তাকে এ পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। ক্যামেরুনের ১৫ বছর বয়সী শান্তি কর্মী দিভিনা মালুমকেও এ পুরস্কার দিয়েছে ডাচ সংস্থা কিডসরাইটস ফাউন্ডেশন। খবর এএফপির।

মাত্র ১৬ বছর বয়সে গ্রেটা থানবার্গ বিশ্বে চলমান জলবায়ু আন্দোলনের নেতায় পরিণত হয়েছেন। সম্প্রতি শেষ হওয়া জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে বিশ্বনেতাদের উদ্দেশে অগ্নিঝরা ভাষণ দিয়ে অগ্নিকন্যা খেতাব কুড়িয়েছেন তিনি।

২০১৮ সালের আগস্টে প্রতি শুক্রবার সুইডেনের পার্লামেন্টের সামনে একটি প্ল্যাকার্ড নিয়ে অবস্থান নিয়ে আলোচনায় আসেন গ্রেটা। ওই প্ল্যাকার্ডে লেখা ছিল, জলবায়ুর জন্য স্কুলে ধর্মঘট।

এ কিশোরী জলবায়ু আন্দোলনকর্মীর ডাকে ‘ফ্রাইডেজ ফর ফিউচার’ কর্মসূচিতে সাড়া দিয়েছেন বিশ্বের কয়েক লাখ মানুষ।

গ্রেটা এক বার্তায় জানিয়েছেন, এ পুরস্কারে অত্যন্ত কৃতজ্ঞ ও সম্মানিত বোধ করছেন তিনি। তার পক্ষে পুরস্কার গ্রহণ করেন জার্মান জলবায়ুকর্মী লুইসা মারি নুবার। তিনি বলেন, ‘জলবায়ু সংকটই এ সময়ে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ।’

অন্যদিকে দিভিনা মালুমকে পুরস্কার দেয়া হয় বোকো হারামের বিরুদ্ধে তার শান্তিপূর্ণ লড়াইয়ের জন্য। তিনি বলেন, ‘ক্যামরুন ও আফ্রিকায় নীতিনির্ধারকরা শিশুদের ভুলে গেছেন।

শান্তি প্রতিষ্ঠার কথা ভুলে গেছেন। আমি সব শিশুদের এ বিষয়ে আওয়াজ তোলার আহ্বান জানাই।’ ২০১৪ সালে শান্তিতে নোবেল বিজয়ী ভারতীয় কৈলাশ সত্যার্থী বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।

এছাড়া জয়ীরা তাদের আন্দোলনের জন্য ১ লাখ ইউরোও পাবেন। এর আগে এ পুরস্কার পেয়েছিলেন পাকিস্তানের অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজায়ী।

থানবার্গ নিজে উপস্থিত থেকে শান্তি পুরস্কার নিতে পারেননি। কারণ বর্তমানে জাতিসংঘের এক সম্মেলনে যোগ আটলান্টিক পাড়ি দিচ্ছেন তিনি। এর আগে সুইডেন থেকে চিলির উদ্দেশে যাত্রা করেছিলেন গ্রেটা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
সব খবর

ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০০০-২০১৯

converter
×