বিশ্বের কনিষ্ঠতমকে যে উপদেশ দিলেন সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী
jugantor
বিশ্বের কনিষ্ঠতমকে যে উপদেশ দিলেন সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী

  যুগান্তর ডেস্ক  

১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:২৪:৫১  |  অনলাইন সংস্করণ

বিশ্বের কনিষ্ঠতমকে যে উপদেশ দিলেন সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী
বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ ও কনিষ্ঠতম সানা মারিন। ছবি: আরটি

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রধানমন্ত্রী মালয়েশিয়ার মাহাথির মোহাম্মদ কনিষ্ঠতম প্রধানমন্ত্রী ফিনল্যান্ডের সানা মারিনকে কিছু উপদেশ বাণী দিয়েছেন।

মঙ্গলবার ৩৪ বছর বয়সী সানা মারিনকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করা হয়েছে। সাবেক এই পরিবহনমন্ত্রী পাঁচ দলীয় জোটের হাল ধরেন। আগামী বছর তিনি সোস্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধানের দায়িত্ব নিলে জোটের সব দলগুলোর নেতাই হবেন নারী।

আর একজন বাদে সবার বয়সই ৩৫ বছরের নিচে। পার্লামেন্টে ৯৯-৭০ ভোটে তার মনোনয়ন নিশ্চিত করার পর তিনি হলেন দেশটির তৃতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী।

ডাক বিভাগীয় ধর্মঘট মোকাবেলায় জোটের দলগুলোর আস্থা হারানোর পর গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন আনত্তি রিন্নি। পরবর্তী সময়ে তার উত্তরসূরি হিসেবে সান্না মারিনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

এমন একসময় তিনি সরকারের প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন, যখন দেশটি নতুন করে শিল্প ধর্মঘটের মোকাবেলা করতে যাচ্ছে। আর এই পরিস্থিতিকে সামনে রেখে ৯৪ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ তাকে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে তিনি বলেন, যখন আমরা তরুণদের আদর্শে আস্থা রাখি, তখন বয়স্কদের অভিজ্ঞতা বিবেচনা করাও তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি বলেন, মারিন যদি বৃদ্ধ নাগরিকদের কথা শোনেন এবং নিজের তারুণ্যময় আদর্শ বজায় রাখেন, তখন এই দুয়ের মধ্যে একটি সমন্বয় ঘটবে। যেটা খুবই ভালো হবে।

গত মে মাসে বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে ঐতিহাসিক বিজয়ের মাধ্যমে দ্বিতীয়বারের মতো মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন মাহাথির মোহাম্মদ। এর আগে ১৯৮১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ২২ বছর দেশটিকে শাসন করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর পার্লামেন্টের বাইরে সাংবাদিকদের মারিন বলেন, বাস্তবিক বিষয়আশয়গুলো নিয়ে আমার চিন্তাভাবনা। 

তিনি জানান, নিজের বয়স কিংবা লিঙ্গ নিয়ে কোনো ভাবনা নেই আমার। সেসব বিষয়গুলো নিয়েই আমার চিন্তা, যে কারণে আমি রাজনীতিতে এসেছি ও লোকজন আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন।

বিশ্বের কনিষ্ঠতমকে যে উপদেশ দিলেন সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী

 যুগান্তর ডেস্ক 
১১ ডিসেম্বর ২০১৯, ১২:২৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
বিশ্বের কনিষ্ঠতমকে যে উপদেশ দিলেন সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী
বিশ্বের সবচেয়ে বয়স্ক প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ ও কনিষ্ঠতম সানা মারিন। ছবি: আরটি

বিশ্বের সবচেয়ে বেশি বয়সী প্রধানমন্ত্রী মালয়েশিয়ার মাহাথির মোহাম্মদ কনিষ্ঠতম প্রধানমন্ত্রী ফিনল্যান্ডের সানা মারিনকে কিছু উপদেশ বাণী দিয়েছেন।

মঙ্গলবার ৩৪ বছর বয়সী সানা মারিনকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফিনল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা করা হয়েছে। সাবেক এই পরিবহনমন্ত্রী পাঁচ দলীয় জোটের হাল ধরেন। আগামী বছর তিনি সোস্যাল ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রধানের দায়িত্ব নিলে জোটের সব দলগুলোর নেতাই হবেন নারী।

আর একজন বাদে সবার বয়সই ৩৫ বছরের নিচে। পার্লামেন্টে ৯৯-৭০ ভোটে তার মনোনয়ন নিশ্চিত করার পর তিনি হলেন দেশটির তৃতীয় নারী প্রধানমন্ত্রী।

ডাক বিভাগীয় ধর্মঘট মোকাবেলায় জোটের দলগুলোর আস্থা হারানোর পর গত সপ্তাহে পদত্যাগ করেন আনত্তি রিন্নি। পরবর্তী সময়ে তার উত্তরসূরি হিসেবে সান্না মারিনকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

এমন একসময় তিনি সরকারের প্রধান নির্বাহীর দায়িত্ব নিতে যাচ্ছেন, যখন দেশটি নতুন করে শিল্প ধর্মঘটের মোকাবেলা করতে যাচ্ছে। আর এই পরিস্থিতিকে সামনে রেখে ৯৪ বছর বয়সী মাহাথির মোহাম্মদ তাকে কিছু পরামর্শ দিয়েছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে তিনি বলেন, যখন আমরা তরুণদের আদর্শে আস্থা রাখি, তখন বয়স্কদের অভিজ্ঞতা বিবেচনা করাও তাদের জন্য গুরুত্বপূর্ণ।

তিনি বলেন, মারিন যদি বৃদ্ধ নাগরিকদের কথা শোনেন এবং নিজের তারুণ্যময় আদর্শ বজায় রাখেন, তখন এই দুয়ের মধ্যে একটি সমন্বয় ঘটবে। যেটা খুবই ভালো হবে।

গত মে মাসে বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে ঐতিহাসিক বিজয়ের মাধ্যমে দ্বিতীয়বারের মতো মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী হয়েছেন মাহাথির মোহাম্মদ। এর আগে ১৯৮১ থেকে ২০০৩ সাল পর্যন্ত দীর্ঘ ২২ বছর দেশটিকে শাসন করেন তিনি।

প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর পার্লামেন্টের বাইরে সাংবাদিকদের মারিন বলেন, বাস্তবিক বিষয়আশয়গুলো নিয়ে আমার চিন্তাভাবনা।

তিনি জানান, নিজের বয়স কিংবা লিঙ্গ নিয়ে কোনো ভাবনা নেই আমার। সেসব বিষয়গুলো নিয়েই আমার চিন্তা, যে কারণে আমি রাজনীতিতে এসেছি ও লোকজন আমাকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন।