ইসরাইলি সীমান্তে সোলাইমানির ভাস্কর্য স্থাপন (ভিডিও)
jugantor
ইসরাইলি সীমান্তে সোলাইমানির ভাস্কর্য স্থাপন (ভিডিও)

  যুগান্তর ডেস্ক  

১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১৪:১৪:২৭  |  অনলাইন সংস্করণ

ইসরাইলি সীমান্তে সোলাইমানির ভাস্কর্য স্থাপন

মার্কিন হামলায় নিহত ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানির একটি ভাস্কর্য নির্মাণ করে তা লেবানন-ইসরাইল সীমান্তে স্থাপন করেছে হিজবুল্লাহ আন্দোলন।

শনিবার ভাস্কর্য উন্মোচন উপলক্ষে মারুন আল-রাস শহরে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। ইসরাইলিদের প্রতি নজর রাখতে সেখানে একটি পর্যবেক্ষণ চৌকিও স্থাপন করেছে হিজবুল্লাহ।

ভাস্কর্য উন্মোচন অনুষ্ঠানে শত শত লোক উপস্থিত হয়েছেন বলে মিডল ইস্ট মনিটরের খবরে জানা গেছে।

কোনো কোনো প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, একটি বিশাল কার্ডবোর্ড কেটে এই ভাস্কর্য বানানো হয়েছে। এটির পাশেই একটি ফিলিস্তিনি পতাকা উড়তে দেখা গেছে। তার হাত ইসরাইলের দিকে নিশানা করা অবস্থায় রয়েছে।

এর অর্থ হচ্ছে, হিজবুল্লাহ ও ইরানের লক্ষ্য হচ্ছে ইসরাইলি দখলদারিত্ব থেকে ফিলিস্তিনকে মুক্ত করা।

গত বছরে হিজবুল্লাহর সঙ্গে উত্তেজনা বেড়ে গিয়েছিল ইসরাইলের। বিভিন্ন সময় ইহুদিবাদী দেশটিতে হামলারও হুমকি দিয়েছিল হিজবুল্লাহ।

এতে দুই পক্ষের মধ্যে সরাসরি সামরিক সংঘাতেরও শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের প্রভাব বিস্তারের কেন্দ্রবিন্দুতে থেকে ভূমিকা পালন করেছেন সোলাইমানি। সেক্ষেত্রে হিজবুল্লাহর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল।

#Lebanon#Hezbollah has unveiled today in Maroun al-Ras, which overlooks the Galilee, a statue of Hajj Qasem #Soleimani pointing his finger towards the south, implying storming #Israel.#Iran #Palestinepic.twitter.com/9KhN4HTUvg

— Hezbollah Watch® (@HezbollahWatch) February 15, 2020

ইসরাইলি সীমান্তে সোলাইমানির ভাস্কর্য স্থাপন (ভিডিও)

 যুগান্তর ডেস্ক 
১৯ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ০২:১৪ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
ইসরাইলি সীমান্তে সোলাইমানির ভাস্কর্য স্থাপন
ছবি: সংগৃহীত

মার্কিন হামলায় নিহত ইরানি জেনারেল কাসেম সোলাইমানির একটি ভাস্কর্য নির্মাণ করে তা লেবানন-ইসরাইল সীমান্তে স্থাপন করেছে হিজবুল্লাহ আন্দোলন।

শনিবার ভাস্কর্য উন্মোচন উপলক্ষে মারুন আল-রাস শহরে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। ইসরাইলিদের প্রতি নজর রাখতে সেখানে একটি পর্যবেক্ষণ চৌকিও স্থাপন করেছে হিজবুল্লাহ।

ভাস্কর্য উন্মোচন অনুষ্ঠানে শত শত লোক উপস্থিত হয়েছেন বলে মিডল ইস্ট মনিটরের খবরে জানা গেছে। 

কোনো কোনো প্রতিবেদনে দাবি করা হয়, একটি বিশাল কার্ডবোর্ড কেটে এই ভাস্কর্য বানানো হয়েছে। এটির পাশেই একটি ফিলিস্তিনি পতাকা উড়তে দেখা গেছে। তার হাত ইসরাইলের দিকে নিশানা করা অবস্থায় রয়েছে।

এর অর্থ হচ্ছে, হিজবুল্লাহ ও ইরানের লক্ষ্য হচ্ছে ইসরাইলি দখলদারিত্ব থেকে ফিলিস্তিনকে মুক্ত করা।

গত বছরে হিজবুল্লাহর সঙ্গে উত্তেজনা বেড়ে গিয়েছিল ইসরাইলের। বিভিন্ন সময় ইহুদিবাদী দেশটিতে হামলারও হুমকি দিয়েছিল হিজবুল্লাহ।

এতে দুই পক্ষের মধ্যে সরাসরি সামরিক সংঘাতেরও শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। মধ্যপ্রাচ্যে ইরানের প্রভাব বিস্তারের কেন্দ্রবিন্দুতে থেকে ভূমিকা পালন করেছেন সোলাইমানি। সেক্ষেত্রে হিজবুল্লাহর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক ছিল।

 

#Lebanon#Hezbollah has unveiled today in Maroun al-Ras, which overlooks the Galilee, a statue of Hajj Qasem #Soleimani pointing his finger towards the south, implying storming #Israel.#Iran #Palestinepic.twitter.com/9KhN4HTUvg

— Hezbollah Watch® (@HezbollahWatch) February 15, 2020

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

ঘটনাপ্রবাহ : ইরানি শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত

আরও খবর