টোকিও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের উচ্চশিক্ষার সুযোগ

  যুগান্তর ডেস্ক ১২ মার্চ ২০২০, ১২:২২:৩১ | অনলাইন সংস্করণ

রাজধানীর গুলশানে একটি হোটেলে বাংলাদেশি শিক্ষার্থীদের জাপানের টোকিও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে (টিআইইউ) পড়াশোনার সুযোগ সম্পর্কে জানাতে এবং জাপানের বৃত্তি নিয়ে অবহিত করার জন্য একটি সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

শনিবার ঢাকার ওয়েস্টিন হোটেলে শিক্ষার্থীরা বিনামূল্যে ওই সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন। এতে উপস্থিত ছিলেন অভিভাবকরাও। বাংলাদেশ থেকে ২২ শিক্ষার্থী এপ্রিল সেশনে পড়াশোনার জন্য জাপানের টিআইইউতে যাচ্ছেন।

টিআইইউ ইংরেজি ভাষায় ই-ট্র্যাক প্রোগ্রামের আওতায় বিজনেস ইকোনমিকস, ইন্টারন্যাশনাল রিলেশনস এবং ডিজিটাল বিজনেস অ্যান্ড ইনোভেশনসে চার বছরের স্নাতক ডিগ্রি অর্জনের সুযোগ দিচ্ছে।

টোকিওর ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিতে পরবর্তী সেশনের জন্য আবেদনের সময়সীমা ২৪ মার্চ। তাই ভর্তি হতে চাইলে শিক্ষার্থীদের আবেদনের জন্য দ্রুত যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

সেমিনারে বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নের বিষয়, আবেদনের প্রক্রিয়া, বৃত্তির সুযোগ, কর্মসংস্থান এবং পড়াশোনা শেষে অভিবাসনের সুযোগ নিয়েও আলোচনা করা হয়।

টোকিও ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (টিআইইউ) ১৯৬৫ সালে ব্যবসা ও বাণিজ্যিক বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল এবং শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনে কলেজ থেকে একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পরিণত হয়।

বর্তমানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটিতে পাঁচটি স্নাতক স্কুল এবং চারটি স্নাতকোত্তর উচ্চশিক্ষা নেয়ার স্কুল রয়েছে। ই-ট্র্যাক ক্লাসগুলো শিক্ষকদের সঙ্গে ছাত্রদের একটি ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের বিকাশ করে।

এ ছাড়া টিআইইউ প্রথম থেকেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ওরেগনের উইলমেট বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে সংযুক্ত ছিল এবং বিশ্বের অন্য নামিদামি বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর সঙ্গেও ভালো সম্পর্ক গড়ে তুলেছে।

আন্তর্জাতিকমানের শিক্ষাব্যবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্য নিয়ে টিআইইউ নিয়মিতভাবে তার অনুশীলনমুখী কারিকুলামকে প্রসারিত করে চলেছে। শিক্ষার্থীদের ৩০-১০০ শতাংশ মেধাভিত্তিক বৃত্তিও দেয়া হয়।



টিআইইউর প্রায় সাড়ে ৬ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে বিশ্বের ৬০ দেশের শিক্ষার্থী রয়েছেন প্রায় ১২০০ জন।

এসব শিক্ষার্থী তাদের জীবনযাত্রার ব্যয়ভার বহনের জন্য জাসসো বৃত্তিও পান। টিআইইউ বিদেশি শিক্ষার্থীদের জন্য প্রথম বছরে জাপানে একটি নিরাপদ পরিবেশে আবাসনের ব্যবস্থা করে।

এসব ডরমেটরি ক্যাম্পাসের খুব কাছেই অবস্থিত। ক্যাম্পাসের ভেতরে শিক্ষার্থীদের জন্য হালাল খাবারের ব্যবস্থা রয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন শিক্ষার্থীর জন্য বেশ কয়েকটি ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক ক্লাব রয়েছে।

 

সম্পাদক : সাইফুল আলম, প্রকাশক : সালমা ইসলাম

প্রকাশক কর্তৃক ক-২৪৪ প্রগতি সরণি, কুড়িল (বিশ্বরোড), বারিধারা, ঢাকা-১২২৯ থেকে প্রকাশিত এবং যমুনা প্রিন্টিং এন্ড পাবলিশিং লিঃ থেকে মুদ্রিত।

পিএবিএক্স : ৯৮২৪০৫৪-৬১, রিপোর্টিং : ৯৮২৪০৭৩, বিজ্ঞাপন : ৯৮২৪০৬২, ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৩, সার্কুলেশন : ৯৮২৪০৭২। ফ্যাক্স : ৯৮২৪০৬৬ 

E-mail: [email protected]

© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত