সোলাইমানি হত্যার পর প্রথম ইরাক সফরে জারিফ
jugantor
সোলাইমানি হত্যার পর প্রথম ইরাক সফরে জারিফ

  অনলাইন ডেস্ক  

১৯ জুলাই ২০২০, ১৮:১৩:২০  |  অনলাইন সংস্করণ

কাসেল সোলাইমানি ও জাভেদ জারিফ
কাসেল সোলাইমানি ও জাভেদ জারিফ। ফাইল ছবি

কমান্ডার কাসেম সোলাইমানি হত্যার পর প্রথম ইরাক সফর করছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ। জানুয়ারি মাসে ইরানি এ কমান্ডার মার্কিন গোয়েন্দাদের বিমান হামলায় নিহত হন। 

রোববার ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ ইরাকের রাজধানী বাগদাদে পৌঁছান। 

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, জারিফ দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুয়াদ হুসেনের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের স্থিথিশীলতা নিয়ে আলোচনা করেন। আঞ্চলিক উন্নয়নে দুই কূটনীতিবিদের আলোচনায় দুই দেশের সম্পর্কের বিষয়টিও প্রাধান্য পেয়েছে। 

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে বিমান হামলায় সোলাইমানি হত্যার পর যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের উত্তেজনা বৃদ্ধির মধ্যেই জাভেদ জারিফের এ সফর।। 

ইরাকি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জারিফ বলেন, একটি স্থিতিশীল ও শক্তিশালী ইরাক উভয় দেশের স্বার্থ ছিল। সে কারণেই আমরা অব্যাহত গঠনমূলক দ্বিপক্ষীয় আলোচনার প্রত্যাশায় রয়েছি।

তিনি বলেন, ইরাকের স্থিতিশীলতা, সুরক্ষা ও শান্তি হল পুরো অঞ্চলের জন্য স্থিতিশীলতা।

এদিকে ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম ইরনা জানিয়েছে, এ ছাড়া ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাদিমি, প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহ, সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ফাইক জিদান, স্পিকার মোহাম্মদ আল হালবোসি ও পপুলার মবিলাইজেশন ফোর্সের চেয়ারম্যান ফালিহ আল-ফায়াদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন। 
 

সোলাইমানি হত্যার পর প্রথম ইরাক সফরে জারিফ

 অনলাইন ডেস্ক 
১৯ জুলাই ২০২০, ০৬:১৩ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
কাসেল সোলাইমানি ও জাভেদ জারিফ
কাসেল সোলাইমানি ও জাভেদ জারিফ। ফাইল ছবি

কমান্ডার কাসেম সোলাইমানি হত্যার পর প্রথম ইরাক সফর করছেন ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।জানুয়ারি মাসে ইরানি এ কমান্ডার মার্কিন গোয়েন্দাদের বিমান হামলায় নিহত হন।

রোববার ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জারিফ ইরাকের রাজধানী বাগদাদে পৌঁছান।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক সংবাদ মাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, জারিফ দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী ফুয়াদ হুসেনের সঙ্গে মধ্যপ্রাচ্যের স্থিথিশীলতা নিয়ে আলোচনা করেন। আঞ্চলিক উন্নয়নে দুই কূটনীতিবিদের আলোচনায় দুই দেশের সম্পর্কের বিষয়টিও প্রাধান্য পেয়েছে।

ইরাকের রাজধানী বাগদাদে বিমান হামলায় সোলাইমানি হত্যার পর যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ইরানের উত্তেজনা বৃদ্ধির মধ্যেই জাভেদ জারিফের এ সফর।।

ইরাকি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে যৌথ সংবাদ সম্মেলনে জারিফ বলেন, একটি স্থিতিশীল ও শক্তিশালী ইরাক উভয় দেশের স্বার্থ ছিল। সে কারণেই আমরা অব্যাহত গঠনমূলক দ্বিপক্ষীয় আলোচনার প্রত্যাশায় রয়েছি।

তিনি বলেন, ইরাকের স্থিতিশীলতা, সুরক্ষা ও শান্তি হল পুরো অঞ্চলের জন্য স্থিতিশীলতা।

এদিকে ইরানের রাষ্ট্রীয় সংবাদ মাধ্যম ইরনা জানিয়েছে, এ ছাড়া ইরানি পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ ইরাকের প্রধানমন্ত্রী মুস্তফা আল-কাদিমি, প্রেসিডেন্ট বারহাম সালিহ, সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ফাইক জিদান, স্পিকার মোহাম্মদ আল হালবোসি ও পপুলার মবিলাইজেশন ফোর্সের চেয়ারম্যান ফালিহ আল-ফায়াদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

 

ঘটনাপ্রবাহ : ইরানি শীর্ষ জেনারেল কাসেম সোলাইমানি নিহত