এ বছর হজের খুতবা দেবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান
jugantor
এ বছর হজের খুতবা দেবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান

  অনলাইন ডেস্ক  

২৮ জুলাই ২০২০, ২০:৩০:৩২  |  অনলাইন সংস্করণ

এ বছর হজের খুতবা দেবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান

এ বছর পবিত্র হজের খুতবা দিবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান আল মানিয়া। চলতি বছর হজের খুতবার জন্য তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ এক রাজকীয় ফরমানে শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান আল মানিয়াকে নিয়োগ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

৮৯ বছর বয়সী শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান আল মানিয়া আইনজ্ঞ হিসেবে বেশ প্রসিদ্ধ। তিনি অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন বা ওআইসির ইসলামিক ফিকহ একাডেমির সদস্য। এর আগে তিনি মক্কা আল মোকাররামা কোর্টের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

৯ জিলহজ আরাফাতের ময়দান সংলগ্ন মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা শুরু হয় ।

হজের খতিব মসজিদে নামিরা থেকে যে খুতবা প্রদান করেন মনোযোগ দিয়ে উপলব্ধি করতে হয়। খুতবা শেষে জোহরের আজান হয়। একই আজানে দুই ইকামতে জোহর ও আসরের কসর দুই রাকাত নামাজ আদায় করতে হয়।

আরাফার ময়দানে উপস্থিত সফেদ-শুভ্র কাপড়ের ইহরাম পরিহিত হাজীদের সামনে দেয়া হজের খুতবা বিশ্ব পরিস্থিতির কারণে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এ খুতবা যেমন সমবেত হাজীরা শোনেন, তেমনি শোনেন বিশ্ববাসী।

বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে শুধু সৌদি আরবে বসবাসকারী বিভিন্ন দেশের অধিবাসী ও দেশটির নাগরিকদের সমন্বয়ে দশ হাজার মানুষ এবার হজ পালন করবেন।

প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষ হজ পালন করেন। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এবার মাত্র দশ হাজার মানুষ হজ পালন করবেন।

এ বছর হজের খুতবা দেবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান

 অনলাইন ডেস্ক 
২৮ জুলাই ২০২০, ০৮:৩০ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
এ বছর হজের খুতবা দেবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান
শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান। ছবি: সংগৃহীত

এ বছর পবিত্র হজের খুতবা দিবেন শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান আল মানিয়া। চলতি বছর হজের খুতবার জন্য তাকে নিয়োগ দেয়া হয়েছে। 

মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সৌদি বাদশাহ সালমান বিন আবদুল আজিজ এক রাজকীয় ফরমানে শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান আল মানিয়াকে নিয়োগ দিয়েছেন বলে জানা গেছে।

৮৯ বছর বয়সী শায়খ আবদুল্লাহ বিন সুলাইমান আল মানিয়া আইনজ্ঞ হিসেবে বেশ প্রসিদ্ধ। তিনি অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন বা ওআইসির ইসলামিক ফিকহ একাডেমির সদস্য। এর আগে তিনি মক্কা আল মোকাররামা কোর্টের প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

৯ জিলহজ আরাফাতের ময়দান সংলগ্ন মসজিদে নামিরা থেকে হজের খুতবা শুরু হয় । 

হজের খতিব মসজিদে নামিরা থেকে যে খুতবা প্রদান করেন মনোযোগ দিয়ে উপলব্ধি করতে হয়। খুতবা শেষে জোহরের আজান হয়। একই আজানে দুই ইকামতে জোহর ও আসরের কসর দুই রাকাত নামাজ আদায় করতে হয়।

আরাফার ময়দানে উপস্থিত সফেদ-শুভ্র কাপড়ের ইহরাম পরিহিত হাজীদের সামনে দেয়া হজের খুতবা বিশ্ব পরিস্থিতির কারণে বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। এ খুতবা যেমন সমবেত হাজীরা শোনেন, তেমনি শোনেন বিশ্ববাসী।

বৈশ্বিক মহামারী করোনার কারণে শুধু সৌদি আরবে বসবাসকারী বিভিন্ন দেশের অধিবাসী ও দেশটির নাগরিকদের সমন্বয়ে দশ হাজার মানুষ এবার হজ পালন করবেন।

প্রতি বছর লাখ লাখ মানুষ হজ পালন করেন। পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে এবার মাত্র দশ হাজার মানুষ হজ পালন করবেন।
 

 

ঘটনাপ্রবাহ : হজ-২০২০