নেদারল্যান্ডসে আশ্রয় না পেয়ে সিরীয় কিশোরের আত্মহত্যা
jugantor
নেদারল্যান্ডসে আশ্রয় না পেয়ে সিরীয় কিশোরের আত্মহত্যা

  অনলাইন ডেস্ক  

১৭ আগস্ট ২০২০, ১৩:৩৮:৩৫  |  অনলাইন সংস্করণ

নেদারল্যান্ডসে আশ্রয় চেয়ে করা আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় আলী ঘেজাবি নামে ১৪ বছরের এক সিরীয় কিশোরের আত্মহত্যা করেছে।

দীর্ঘ ৯ বছরের গৃহযুদ্ধে লাখ লাখ সিরীয় পরিবার শরণার্থী হয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

পাঁচ বছর আগে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে সিরিয়া থেকে পালিয়ে লেবাননের একটি শরণার্থী ক্যাম্পে আশ্রয় নেয় আলী ঘেজাবির পরিবার। খবর ডেইলি সাবাহর।

সেখান থেকে পরে ওই কিশোরের পরিবার স্পেনে চলে যায়। কিন্তু সেখানে কাজ না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে হয় তাদের।

ভালো থাকার আশায় পরে আলী ঘেজাবির পরিবার নেদারল্যান্ডসে চলে যায়। সেখানে গিয়ে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় প্রার্থনা করে তার পরিবার।

দেশটির সরকার তাদের ওই আবেদন প্রত্যাখ্যান করায় সিরীয় ওই কিশোর চরম হতাশায় আত্মহত্যা করেছে।

নেদারল্যান্ডসের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ লিমবার্গের একটি শরণার্থী শিবিরে বসবাস করছে আলী ঘেজাবির পরিবার।

সোমবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আলজেমিন ডাগব্লাডকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আলীর মা আয়সা বলেন, আমাদের আশ্রয় প্রার্থনার আবেদন সরকার খারিজ করে দেয়ার পর আলী প্রচণ্ড মর্মাহত হয়।

সে কারও সঙ্গে কথা বলতো না, এমনকি খাওয়া-দাওয়াও ছেড়ে দেয়। আলীর আত্মহত্যার ঘটনায় শরণার্থী শিবিরে শোকের ছায়া নেমে আসে। অনেকেই নেদারল্যান্ডস সরকারের এহেন আচরণের কঠোর সমালোচনা করেছেন।

নেদারল্যান্ডসে আশ্রয় না পেয়ে সিরীয় কিশোরের আত্মহত্যা

 অনলাইন ডেস্ক 
১৭ আগস্ট ২০২০, ০১:৩৮ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

নেদারল্যান্ডসে আশ্রয় চেয়ে করা আবেদন প্রত্যাখ্যাত হওয়ায় আলী ঘেজাবি নামে ১৪ বছরের এক সিরীয় কিশোরের আত্মহত্যা করেছে।

দীর্ঘ ৯ বছরের গৃহযুদ্ধে লাখ লাখ সিরীয় পরিবার শরণার্থী হয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে মানবেতর জীবন যাপন করছে।

পাঁচ বছর আগে পরিবারের অন্য সদস্যদের সঙ্গে সিরিয়া থেকে পালিয়ে লেবাননের একটি শরণার্থী ক্যাম্পে আশ্রয় নেয় আলী ঘেজাবির পরিবার। খবর ডেইলি সাবাহর।

সেখান থেকে পরে ওই কিশোরের পরিবার স্পেনে চলে যায়। কিন্তু সেখানে কাজ না পেয়ে মানবেতর জীবন যাপন করতে হয় তাদের।

ভালো থাকার আশায় পরে আলী ঘেজাবির পরিবার নেদারল্যান্ডসে চলে যায়। সেখানে গিয়ে শরণার্থী হিসেবে আশ্রয় প্রার্থনা করে তার পরিবার।

দেশটির সরকার তাদের ওই আবেদন প্রত্যাখ্যান করায় সিরীয় ওই কিশোর চরম হতাশায় আত্মহত্যা করেছে।

নেদারল্যান্ডসের দক্ষিণাঞ্চলীয় প্রদেশ লিমবার্গের একটি শরণার্থী শিবিরে বসবাস করছে আলী ঘেজাবির পরিবার।

সোমবার স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আলজেমিন ডাগব্লাডকে দেয়া সাক্ষাৎকারে আলীর মা আয়সা বলেন, আমাদের আশ্রয় প্রার্থনার আবেদন সরকার খারিজ করে দেয়ার পর আলী প্রচণ্ড মর্মাহত হয়।

সে কারও সঙ্গে কথা বলতো না, এমনকি খাওয়া-দাওয়াও ছেড়ে দেয়। আলীর আত্মহত্যার ঘটনায় শরণার্থী শিবিরে শোকের ছায়া নেমে আসে। অনেকেই নেদারল্যান্ডস সরকারের এহেন আচরণের কঠোর সমালোচনা করেছেন।

যুগান্তর ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন