‘আরও সাত-আট দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করবে’
jugantor
‘আরও সাত-আট দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করবে’

  অনলাইন ডেস্ক  

১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ২০:২৯:৫৫  |  অনলাইন সংস্করণ

‘আরও সাত-আট দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করব’
ছবি: আল জাজিরা

ইসরাইলের সঙ্গে সর্ম্পকে স্থাপনের জন্য আরো বেশ কয়েকটি দেশ প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের পর সৌদি আরবও দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপকালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ কথা বলেন। 

ট্রাম্প বলেন, ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের জন্য আরো কয়েকটি দেশ প্রস্তুত রয়েছে।সাত বা আট বা ৯টির বেশি দেশ খুব শিগগিরই ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করবে।
 
মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন কেন্দ্রীক পারস্পরিক যে দ্বন্দ্বে লিপ্ত ছিল তা অনেকটাই গুছিয়ে এসেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সৌদী বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ন আলোচনা হয়েছে। 

কিছু দিনের মধ্যে আরো ভালো পরিবেশ তৈরী হবে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আমরা ফিলিস্তিনের বিষয়েও কথা বলছি।

হোয়াইট হাউসে মঙ্গলবার দুপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপস্থিতিতে গোটা মুসলিম বিশ্বের উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠাকে পাশ কাটিয়ে ইহুদিবাদী রাষ্ট্র ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণে আনুষ্ঠানিক চুক্তি সই করে দুই আরব দেশ, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু, আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ান ও বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল লতিফ আল জায়ানি নিজ নিজ দেশের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর উপলক্ষে এদিন সংশ্লিষ্ট তিনটি দেশের প্রায় ৭০০ অতিথির জন্য এক জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন ট্রাম্প।


ডেইলি জং উর্দূ অবলম্বনে- তোফায়েল গাজালি 

‘আরও সাত-আট দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করবে’

 অনলাইন ডেস্ক 
১৬ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৮:২৯ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
‘আরও সাত-আট দেশ ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করব’
ছবি: আল জাজিরা

ইসরাইলের সঙ্গে সর্ম্পকে স্থাপনের জন্য আরো বেশ কয়েকটি দেশ প্রস্তুত রয়েছে বলে জানিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের পর সৌদি আরবও দখলদার ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিক করবে বলে প্রত্যাশা ব্যক্ত করেছেন তিনি।

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে আলাপকালে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এ কথা বলেন।

ট্রাম্প বলেন, ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপনের জন্য আরো কয়েকটি দেশ প্রস্তুত রয়েছে।সাত বা আট বা ৯টির বেশি দেশ খুব শিগগিরই ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করবে।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন কেন্দ্রীক পারস্পরিক যে দ্বন্দ্বে লিপ্ত ছিল তা অনেকটাই গুছিয়ে এসেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সৌদী বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ ও যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের সঙ্গে এ বিষয়ে গুরুত্বপূর্ন আলোচনা হয়েছে।

কিছু দিনের মধ্যে আরো ভালো পরিবেশ তৈরী হবে বলে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আমরা ফিলিস্তিনের বিষয়েও কথা বলছি।

হোয়াইট হাউসে মঙ্গলবার দুপুরে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপস্থিতিতে গোটা মুসলিম বিশ্বের উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠাকে পাশ কাটিয়ে ইহুদিবাদী রাষ্ট্র ইসরাইলের সঙ্গে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণে আনুষ্ঠানিক চুক্তি সই করে দুই আরব দেশ, বাহরাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু, আমিরাতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন জায়েদ আল-নাহিয়ান ও বাহরাইনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল লতিফ আল জায়ানি নিজ নিজ দেশের পক্ষে চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

চুক্তি স্বাক্ষর উপলক্ষে এদিন সংশ্লিষ্ট তিনটি দেশের প্রায় ৭০০ অতিথির জন্য এক জমকালো অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন ট্রাম্প।


ডেইলি জং উর্দূ অবলম্বনে- তোফায়েল গাজালি

 

ঘটনাপ্রবাহ : শতাব্দীর সেরা সমঝোতা