দুই কোটি ছাত্রীর আর স্কুলে ফেরা হবে না: মালালা
jugantor
দুই কোটি ছাত্রীর আর স্কুলে ফেরা হবে না: মালালা

  অনলাইন ডেস্ক  

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৩:০৬:৫৯  |  অনলাইন সংস্করণ

মহামারী করোনাভাইরাসের প্রকোপ শেষে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও দুই কোটি ছাত্রীর আর কখনই স্কুলে ফেরা হবে না।

শান্তিতে নোবেল জয়ী এবং নারী অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। খবর দ্য ডনের।

জাতিসংঘের এক অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় মালালা নারী শিক্ষার্থী ঝরেপড়ার এই আশঙ্কার কথা শোনান।

করোনা থাবায় স্থবির পৃথিবীতে গতি ফিরতে শুরু করেছে ধীরে ধীরে। তবে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে এখনও অনেক সময় প্রয়োজন।

এই পরিস্থিতিতে অধিকাংশ দেশে এখনও বন্ধ স্কুল–কলেজসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে বিশ্বের ১৬০ কোটি শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন।

তবে বিশ্ব এই পরিস্থিতি সামলে উঠলে দেশে দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ফের খুলে দেয়া হলেও কতজন নারী শিক্ষার্থী পুনরায় স্কুলে পড়াশোনা করতে যাবেন, তা নিয়ে সন্দিহান মালালা ইউসুফজাই।

মালালা বলেন, মহামারী শেষ হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো থেকে আরও দুই কোটি মেয়ে ঝরে পড়বে। যাদের আর কখনই ফেরা হবে না স্কুলে। ইতোমধ্যে গোটা বিশ্বে শিক্ষা খাতে বরাদ্দের ঘাটতি ২০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে।’

মালালা বলেন, নারী শিক্ষার মতো বিশ্বের সামষ্টিক লক্ষ্যগুলো অর্জনে মারাত্মক আঘাত হেনেছে কোভিড-১৯।

দুই কোটি ছাত্রীর আর স্কুলে ফেরা হবে না: মালালা

 অনলাইন ডেস্ক 
২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০১:০৬ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ

মহামারী করোনাভাইরাসের প্রকোপ শেষে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুললেও দুই কোটি ছাত্রীর আর কখনই স্কুলে ফেরা হবে না।

শান্তিতে নোবেল জয়ী এবং নারী অধিকারকর্মী মালালা ইউসুফজাই এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন। খবর দ্য ডনের।

জাতিসংঘের এক অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তৃতায় মালালা নারী শিক্ষার্থী ঝরেপড়ার এই আশঙ্কার কথা শোনান।

করোনা থাবায় স্থবির পৃথিবীতে গতি ফিরতে শুরু করেছে ধীরে ধীরে। তবে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে এখনও অনেক সময় প্রয়োজন।

এই পরিস্থিতিতে অধিকাংশ দেশে এখনও বন্ধ স্কুল–কলেজসহ সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। অনিশ্চয়তার মধ্যে রয়েছে বিশ্বের ১৬০ কোটি শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন।

তবে বিশ্ব এই পরিস্থিতি সামলে উঠলে দেশে দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো ফের খুলে দেয়া হলেও কতজন নারী শিক্ষার্থী পুনরায় স্কুলে পড়াশোনা করতে যাবেন, তা নিয়ে সন্দিহান মালালা ইউসুফজাই।

মালালা বলেন, মহামারী শেষ হলেও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো থেকে আরও দুই কোটি মেয়ে ঝরে পড়বে। যাদের আর কখনই ফেরা হবে না স্কুলে। ইতোমধ্যে গোটা বিশ্বে শিক্ষা খাতে বরাদ্দের ঘাটতি ২০০ বিলিয়ন মার্কিন ডলারে দাঁড়িয়েছে।’

মালালা বলেন, নারী শিক্ষার মতো বিশ্বের সামষ্টিক লক্ষ্যগুলো অর্জনে মারাত্মক আঘাত হেনেছে কোভিড-১৯।