তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনা: গ্রিস সফরে যাচ্ছেন পম্পেও
jugantor
তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনা: গ্রিস সফরে যাচ্ছেন পম্পেও

  অনলাইন ডেস্ক  

২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৪:৫১:৩৭  |  অনলাইন সংস্করণ

তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনা: গ্রিস সফরে যাচ্ছেন পম্পেও

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আগামী সপ্তাহে গ্রিস সফরে যাচ্ছেন। তুরস্কের সঙ্গে ভূমধ্যসাগরে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার পর গ্রিসের প্রতি সমর্থন জানাতে তিনি এ সফর করবেন।

বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এমন খবর দিয়েছে।

পম্পেও ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে আলোচনা করতে ইতালি সফর করবেন। তিনি ভ্যাটিকান সিটিতে যাত্রাবিরতি করবেন। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোরব পর্যন্ত তার ক্রোয়েশিয়া সফর করার কথা রয়েছে।

এক বছরের কম সময়ের মধ্যে গ্রিসে পম্পেওর দ্বিতীয় সফরকালে তিনি দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় থাসালোনিকি নগরী এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় ক্রিট দ্বীপে যাওয়ার কথা রয়েছে।

সেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী কিরিয়াকোস মিতসোতাকিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, পম্পেও পূর্ব ভূমধ্যসাগরে নিরাপত্তা, শান্তি ও সমৃদ্ধির অগ্রগতির ব্যাপারে আমাদের দেয়া প্রতিশ্রুতি নবায়ন এবং যুক্তরাষ্ট্র ও গ্রিসের মধ্যে কয়েক দশক ধরে যে সুদৃঢ় সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তা পালন করবেন।

গ্রিসের দাবি করা জলসীমা থেকে তেল ও গ্যাস সংগ্রহে সামরিক ফ্রিগেট পাহারায় তুরস্ক একটি জাহাজ পাঠালে সেখানে তাদের মধ্যে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এমন পরিস্থিতিতে তুরস্ককে সাবধান করার অংশ হিসেবে গ্রিস নৌমহড়া চালায়। এ ক্ষেত্রে তারা ফ্রান্সের সহযোগিতা নেয়।

তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনা: গ্রিস সফরে যাচ্ছেন পম্পেও

 অনলাইন ডেস্ক 
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০২:৫১ পিএম  |  অনলাইন সংস্করণ
তুরস্কের সঙ্গে উত্তেজনা: গ্রিস সফরে যাচ্ছেন পম্পেও
ছবি: এএফপি

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও আগামী সপ্তাহে গ্রিস সফরে যাচ্ছেন। তুরস্কের সঙ্গে ভূমধ্যসাগরে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ার পর গ্রিসের প্রতি সমর্থন জানাতে তিনি এ সফর করবেন। 

বৃহস্পতিবার মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাতে বার্তা সংস্থা এএফপি এমন খবর দিয়েছে।

পম্পেও ধর্মীয় স্বাধীনতা নিয়ে আলোচনা করতে ইতালি সফর করবেন। তিনি ভ্যাটিকান সিটিতে যাত্রাবিরতি করবেন। আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর থেকে ২ অক্টোরব পর্যন্ত তার ক্রোয়েশিয়া সফর করার কথা রয়েছে।

এক বছরের কম সময়ের মধ্যে গ্রিসে পম্পেওর দ্বিতীয় সফরকালে তিনি দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় থাসালোনিকি নগরী এবং দক্ষিণাঞ্চলীয় ক্রিট দ্বীপে যাওয়ার কথা রয়েছে।

সেখানে তিনি প্রধানমন্ত্রী কিরিয়াকোস মিতসোতাকিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন।

মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, পম্পেও পূর্ব ভূমধ্যসাগরে নিরাপত্তা, শান্তি ও সমৃদ্ধির অগ্রগতির ব্যাপারে আমাদের দেয়া প্রতিশ্রুতি নবায়ন এবং যুক্তরাষ্ট্র ও গ্রিসের মধ্যে কয়েক দশক ধরে যে সুদৃঢ় সম্পর্ক গড়ে উঠেছে তা পালন করবেন।

গ্রিসের দাবি করা জলসীমা থেকে তেল ও গ্যাস সংগ্রহে সামরিক ফ্রিগেট পাহারায় তুরস্ক একটি জাহাজ পাঠালে সেখানে তাদের মধ্যে চরম উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

এমন পরিস্থিতিতে তুরস্ককে সাবধান করার অংশ হিসেবে গ্রিস নৌমহড়া চালায়। এ ক্ষেত্রে তারা ফ্রান্সের সহযোগিতা নেয়।